Today: 25 Jun 2017 - 04:26:45 am

স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

Published on Friday, May 19, 2017 at 7:35 am

 ডেস্ক: অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট ডাকার তিন ঘণ্টা পর তা প্রত্যাহার করেছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা।

যুগোপযোগী স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা প্রণয়নে শুল্ক গোয়েন্দা মহাপরিচালকের আশ্বাসে এ ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়।

বাজুসের সভাপতি গঙ্গাচরণ মালাকার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে দুই দফা দাবিতে বৃহস্পতিবার বিকাল থেকে ধর্মঘটের ডাক দেয় স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা।

এসব দাবির মধ্যে ছিল সাম্প্রতিক সময়ে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের হয়রানিমূলক অভিযান বন্ধ এবং ব্যবসাবান্ধব স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা জারি।

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভাশেষে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় বাজুস। আর সিদ্ধান্তের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর বড় শপিংমল এবং বড় মার্কেটগুলোতে স্বর্ণের দোকান বন্ধ করে দেয়া হয়।

জানতে চাইলে বাজুসের সভাপতি গঙ্গাচরণ মালাকার বলেন, আমরা ২৫ বছর পর্যন্ত স্বর্ণের নীতিমালা দাবি করে আসছি। কিন্তু সরকার এ ব্যাপারে কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না। নীতিমালা থাকলে স্বর্ণের ব্যবসায় স্বচ্ছতা বাড়তো।

তিনি বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সোনা আমদানি করে। আর ব্যবসায়ীরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছ থেকে পণ্য কিনে অলংকার তৈরি করে বিক্রি করে। ফলে পুরো প্রক্রিয়াটি স্বচ্ছতার সঙ্গে পরিচালিত হয়। এতে ব্যবসায়ী এবং ক্রেতা উভয় লাভবান হয়।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, স্বর্ণের নীতিমালা থাকা অত্যন্ত জরুরি। আর ধর্মঘট দীর্ঘ হলে অর্থনীতিতে পুরো ব্যবসা বাণিজ্যে এর প্রভাব পড়তে পারে।

এ ব্যাপারে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থ উপদেষ্টা ড. এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়ীরা নীতিমালার যে দাবি করছে, তা অত্যন্ত যৌক্তিক। কারণ নীতিমালা ছাড়া কোনো ব্যবসায়ই স্বচ্ছতা থাকে না। এছাড়া আমদানি প্রক্রিয়া আরও সহজ করার পক্ষে মত দেন তিনি।

মতামত