Today: 20 Jul 2017 - 10:36:49 pm

অবশেষে ফুলবাড়ী থানার এসআই ইসমাইল ক্লোজড

Published on Monday, July 17, 2017 at 10:06 am

 ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি: ১৪ জুলাই তল্লাশির নামে হেনস্তা করার ঘটনা বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পুলিশ বিভাগে ব্যাপক তোলপার শুরু হয়। পরে সরেজমিন তদন্ত করেন নাগেশ্বরী বি-সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান।

তিনি ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপারকে তার বদলীর জন্য সুপারিশ করেন।

অবশেষে রোববার দুপুরে বিতর্কিত পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এস.আই.) ইসমাইল হোসেনকে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে,বিতর্কিত এই পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী থানায় যোগদান করার পর থেকে একের পর এক বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়েন। বিশেষ করে মাদক আটক করার নামে বিভিন্ন অসহায় মানুষকে মামলায় ফাঁসানোসহ বিভিন্ন অপরাধ করেন তিনি।
লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে নিরহকে ফাঁসাতে চার্জশীটটে নাম দিয়ে জেল খাটান তিনি।
সর্বশেষ বুধবার উপজেলার পানিমাছকুটি গ্রামের আবুল ফাত্তার স্ত্রী শাহানাজ বেগম ও স্বজন ফরিদা পারভিন আত্মীয়ের বাড়ী থেকে সন্ধায় নিজ বাড়ীতে ফেরার পথে সন্ধ্যায় ঠাকুরপাঠ এলাকায় আসলে ফুলবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই.) ইসমাইল হোসেন তাদের বহনকৃত অটো রিক্সটি আটক করে শাহানাজ বেগমের শরীরে মাদক বাধাঁ আছে বলে অটোর অন্য ৫ জন যাত্রীর সবাইকে নামিয়ে হেনস্থা করেন।
এ খবর ফুলবাড়ীতে ছড়িয়ে পড়লে রাতে বিক্ষুব্ধ জনতা দায়ী পুলিশের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি চেয়ে থানার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে। এরই প্রেক্ষিতে রোববার এসআই ইসমাইলকে ক্লোজড করা হয়।