Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২০ :: ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৮ : ৩৯ অপরাহ্ন
Home / রংপুর / রংপুর জেলা জাপার সম্পাদকের পদ পেতে দৌড়ঝাঁপ

রংপুর জেলা জাপার সম্পাদকের পদ পেতে দৌড়ঝাঁপ

 মহিউদ্দিন মখদুমী: রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনের তারিখ এখনো ঘোষণা হয়নি। তবু সম্মেলন ঘিরে প্রায় স্থবির হয়ে পড়া রংপুর জাতীয় পার্টি আবারো প্রাণবন্ত হওয়ার চেষ্টা করছে। জেলার সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। তাই বেড়েছে কর্মীদের কদর।

দীর্ঘদিন পর সম্মেলনকে সামনে রেখে রংপুর জেলার ৮উপজেলা, ৫৮টি ইউনিয়ন এবং ৫শত ২২টি ওয়ার্ডের জাপা নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। তবে এবারের সম্মেলনকে ঘিরে নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা যারা দলের জন্য নিবেদিত ছিল। অভিমান করে বসে ছিল তারা আবারো দলের হাল ধরুক। তা না হলে রংপুর জাপায় আরো ভরাডুবি হবে বলে মনে করেন নেতাকর্মীরা।

জাতীয় পার্টির কর্মী-সমর্থকরা আশা করছেন, জেলা শাখার নেতৃত্বে যেন বড় ধরনের পরিবর্তন আসে। জানা গেছে, চলতি মাসের যে কোন দিন জেলা জাপার সম্মেলণের তারিখ ঘোষণা হতে পারে। তাই সাধারণ সম্পাদকের পদ পেতে কেন্দ্রর সাথে শক্তিশালী লবিং করছেন জাতীয় যুব সংহতি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও রংপুর জেলা শাখার সভাপতি হাজী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। তিনি ৯০ এর দশকে এরশাদ মুক্তি আন্দোলনের প্রধান শ্লোগান দাতা ও যুব নেতা ছিলেন। এ কারণে জেল খেটেছেন। জাপার এই ত্যাগী নেতা একাধিক মামলার আসামী ছিলেন। কিন্তু কখনো পার্টির হাল ছাড়েননি।

এ ছাড়া কেন্দ্রের সাথে লবিং চালাচ্ছেন সাবেক কাউন্সিলর আজমল হোসেন লেবু। জেলা জাপার যুগ্ন সম্পাদক ও সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এরশাদ মুক্তি আন্দোলনে জেলে যেতে হয়েছিল তাকে। বর্তমান তিনি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হিসেবে আছেন। তিনি পার্টির ত্যাগী নেতা হিসেবে পরিচিত।

কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির নির্বাহী সদস্য মেজবাহুল ইসলাম মিলন চৌধুরী রংপুর জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে জোড় প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি জেলা জাপার পরপর দুই বার সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া জাতীয় ছাত্র সমাজ রংপুর জেলা শাখার নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন।

এই তিনজন ছাড়া আরো যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জেলা জাপার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাসুদ চৌধুরী নান্টু, বদরগঞ্জ উপজেলা জাপার সভাপতি সাবলু চৌধুরী, মিঠাপুকুর উপজেলা জাপার সভাপতি ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীর।

দলীয় সূত্র জানায়, জাপা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ২০১৫ সালের ১০ সেপ্টেম্বর সাবেক এমপি মোফাজ্জল হোসেনকে আহ্বায়ক ও এরশাদের ভাতিজা ও সাবেক সাংসদ আসিফ শাহরিয়ারকে সদস্যসচিব করে রংপুর জেলা কমিটি গঠন করে দেন।

দায়িত্ব পাবার পর পার্টিকে সংগঠিত করতে ব্যর্থ হওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীদের চাপের মুখে গত ২১জুন গত বিগত কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ এমপিকে আহবায়ক ও সাবেক এমপি মোফাজ্জল হোসেনকে সমন্বয়ক করে জেলা জাপার সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করেন।

এ ব্যাপারে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য হাজী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সম্মেলনের মাধ্যমে আমরা আবারো রংপুরে শক্ত অবস্থান তৈরি করতে পারব। ত্যাগী ও অভিমানী নেতাকর্মীদের মূল্যায়নের কথাও বলেন তিনি।

 

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful