Templates by BIGtheme NET
আজ- শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৭ : ৫১ অপরাহ্ন
Home / লালমনিরহাট / শিশু মিরাজ অনেকটাই সুস্থ

শিশু মিরাজ অনেকটাই সুস্থ

নিয়াজ আহমেদ সিপন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত শিশু মিরাজকে(১২) সরকারী তত্ত্ববধানে পিজিতে দুই দিন চিকিৎসার পর বাড়ি পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে কিছুটা সুস্থ রয়েছে স্কুল ছাত্র মিরাজ। চিকৎসা চালাতে হবে দীর্ঘ দিন।

সোমবার(৭ আগষ্ট) বেলা ১১টায় লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক চিকিৎসার জন্য মিরাজকে নগদ ২০হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেন।

শিশু মিরাজ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার পুর্ব সিন্দুর্না গ্রামের ভুমিহীন দিনমজুর আব্দুল হামিদের ছেলে। সে স্থানীয় হাতীবান্ধা ১নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্র।

২৩ জুলাই লালমনিরহাট সিভিল সার্জনের তত্ত্ববধানে মিরাজকে নেয়া হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে। সেখানে ৪ সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের নিবির পরিচর্যায় ১৩ দিন চিকিৎসা শেষে মিরাজকে উন্নত পরীক্ষার জন্য শনিবার (৫ আগষ্ট) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়। সেখানে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে রোববার(৬ আগষ্ট) মিরাজকে চিকিৎসা পত্র দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়।

মিরাজের বাবা আব্দুল হামিদ জানান, দেশবাসীর দোয়ায় মিরাজ অনেকটাই সুস্থ। এখন তার শরীর থেকে রস বের হচ্ছে না। শরীর কিছুটা মসৃন হচ্ছে। চিকিৎসকদের পরামর্শমত ৭৫০ টাকা মুল্যের একটি ক্রীম দিনে দুবার তার শরীরে ব্যবহার করা হচ্ছে। এটা বেশ কিছু দিন ব্যবহার করলে পুরোদমে সুস্থ হবে মিরাজ।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডা. আমিরুজ্জামান জানান, রংপুরের চিকিৎসায় মিরাজের শরীরের ঘা শুকে যাওয়ায় ঢাকায় স্কিন বায়োপ্সি করানো সম্ভব হয় নি। যার ফলে তার রোগটি সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায় নি। তবে এটি এক ধরনের চর্মরোগ । সে এখন অনেকটাই সুস্থ। পুরোপুরি সুস্থ হতে কিছুটা সময় লাগবে। এখন চিকিৎসকের নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়িতেই চিকিৎসা চালাতে পারবে। তাই বাড়িতে হাতীবান্ধা হাসপাতালের চিকিৎসকদের তত্ত্বধানে চলবে মিরাজের চিকিৎসা।

মিরাজের জন্য গঠিত তহবিলের বাকী অর্থ থেকে তার পরিবারকে স্বালম্বী করতে একটা উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যাতে তার চিকিৎসা ও পড়াশুনাসহ ওই পরিবারটি উঠে দাঁড়াতে পারে যোগ করে সিভিল সার্জন।

নিজ কার্যালয়ে অনুদানের টাকা মিরাজের হাতে তুলে দেয়ার সময় পুলিশ সুপার বলেন, মিরাজ মিশনে সকল মিডিয়া স্বার্থক। তাদের বস্তুনিষ্ট খবরে সরকারের দৃষ্টিগোচর হয় এবং তার উপযুক্ত চিকিৎসা শুরু হয়। দেশবাসীর দোয়ায় মিরাজ অনেকটাই সুস্থ হয়েছে। সে আবারও সহপাঠিদের সাথে স্কুলে যেতে পারবে। এমন মানবিক কাজে এগিয়ে আসতে মিডিয়া হাউজ গুলোর প্রতি আহবান জানান তিনি।

অনুদান দেয়ার সময় তার সাথে ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এনএম নাসির উদ্দিন, সহকারী পুলিশ লিজাসহ পুলিশের কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, জন্মের ৬ মাস বয়সে গায়ে চুলকানী হয় শিশু মিরাজের। আস্তে আস্তে তা পুরো শরীরের বিস্তার লাভ করে। স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার পর রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চর্মরোগ বিভাগে চিকিৎসা করা হলেও উন্নতি হয় নি। বর্তমানে মিরাজের শরীর ফুলে ফেপে যাওয়ায় শ্বাস কষ্ট হচ্ছে। সেই সাথে শরীর দিয়ে পড়ছে দুর্গন্ধযুক্ত রস। এ জন্য মিরাজের কাছে কেউ ভিড়তে চায় না। এ জন্য বিদ্যালয়ে যেতে নিষেধ করেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবুও বিদ্যালয় যাওয়া বন্ধ করে নি মিরাজ।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful