Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ১৮ অগাস্ট, ২০১৭ :: ৩ ভাদ্র ১৪২৪ :: সময়- ১২ : ৫৮ অপরাহ্ন
Home / টপ নিউজ / উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ লোডশেডিং, পর্যবেক্ষণে আসছেন সচিব

উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ লোডশেডিং, পর্যবেক্ষণে আসছেন সচিব

 ডেস্ক: গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে রাজশাহীসহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুতের লোডশোডিং ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ঘন ঘন বিদ্যুতের আসা-যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। বিদ্যুতের অভাবে শিল্প-কারখানায় চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে পণ্যের উৎপাদন। এতে আর্থিকভাবে লোকসানের মুখে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।

বিদ্যুতের এই গোলযোগ শুধু শহরেই নয়। গ্রামে এর অবস্থা আরও বেহাল। এলাকাভেদে লোডশেডিংয়ের মাত্রা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। প্রচণ্ড গরমের মাঝে বিদ্যুতের এমন বেহাল দশায় ক্ষোভ বাড়ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। এরই মধ্যে গত জুলাইয়ে জেলার দুর্গাপুর ও চারঘাট উপজেলায় পল্লী বিদ্যুতের অফিসে হামলা চালিয়েছেন বিক্ষুব্ধ লোকজন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন গত সোমবার নর্থ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের রাজশাহীর জেনারেল ম্যানেজার একেএম মুশফিকুর রহমানের কার্যালয়ে গিয়ে দ্রুত বিদ্যুতের সমস্যা সমাধানের তাগিদ দিয়েছেন। কিন্তু একটুও কমেনি বিদ্যুতের আসা-যাওয়া।

এ অবস্থায় লোডশেডিং পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রাজশাহী আসছেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তার রাজশাহী পৌঁছানোর কথা রয়েছে। রাজশাহী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শুক্রবার রাতে বিদ্যুৎ সচিব সড়কপথে রাজশাহী আসবেন। রাতে তিনি সার্কিট হাউসে থাকবেন। পরদিন শনিবার সকালে তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমনুরায় বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র পরিদর্শনে যাবেন। এরপর বিকেলে তিনি রাজশাহীতে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

বিদ্যুৎ বিভাগের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের কারণে রাজশাহীর কয়েকজন এমপির অনুরোধে তিনি এখানে আসছেন। তিনি নিজে এখানকার বিদ্যুৎ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবেন। এরপর সমস্যা সমাধানে তিনি কর্মকর্তাদের দিকনির্দেশনা দেবেন।

তবে বিদ্যুৎ বিভাগেরই আরেক কর্মকর্তা বলেছেন, বিদ্যুতের উৎপাদনই কম হচ্ছে। তাই বেড়েছে লোডশেডিং। শুধু রাজশাহী মহানগরীতে পিক আওয়ারে বিদ্যুতের চাহিদা ৭৫ থাকে ৮০ মেগাওয়াট। সন্ধ্যার দিকে এ চাহিদা আরও বেড়ে যায়। কিন্তু বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে চাহিদার ৩০ শতাংশ কম। ফলে লোডশেডিংয়ের মাত্রা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে।

রাজশাহী পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির তথ্যমতে, মহানগরীর বাইরে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় এক লাখ ৭৯ হাজার আবাসিক, বাণিজ্যিক ও সেচ গ্রাহক মিলে প্রতিদিন ৫৩ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে। এর বিপরীতে পাওয়া যাচ্ছে গড়ে ৩৬ থেকে ৩৭ মেগাওয়াট। জেলায় প্রতিদিন ১৭ থেকে ২০ মেগাওয়াট ঘাটতি থাকায় লোডশেডিং হচ্ছে।

রাজশাহী পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির এজিএম শামীম আহম্মেদ জানান, লোডশেডিং শুধু গ্রামাঞ্চলেই নয়, রাজশাহী মহানগরীসহ পুরো উত্তরাঞ্চলেই হচ্ছে। চাহিদার বিপরীতে যে বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে তা সব অঞ্চলে ভাগ করে দেয়া হচ্ছে।

তিনি দাবি করেন, যান্ত্রিক কিছু ত্রুটির কারণেও রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে বিদ্যুতের লোডশেডিং বেড়েছে। যান্ত্রিক ত্রুটির মেরামত এবং সরবরাহ না বাড়লে বিদ্যুতের সমস্যা সমাধানে তাদের কিছু করার নেই বলেও দাবি করেন বিদ্যুৎ বিভাগের এই কর্মকর্তা।

এদিকে ঘন ঘন বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে সেচ কাজও চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এতে কৃষকরাও পড়েছেন বিপাকে। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনাতেও বিঘ্ন ঘটছে। কোনো কোনো এলাকায় ২৪ ঘণ্টায় ২৫ বার পর্যন্ত লোডশেডিং হচ্ছে।

রাজশাহী মহানগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালের জেনারেটর অপারেটর মাইনুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অন্তত ১০ বার লোডশেডিং হয়েছে এই এলাকায়।  প্রতিদিন গড়ে সাত থেকে আট ঘণ্টা জেনারেটর চালাতে হচ্ছে তাকে।

নগরীর কাদিরগঞ্জের বাসিন্দা তোফাজ্জল হোসেনের অভিজ্ঞতা অন্যরকম। তিনি জানান, দিনে তাদের এলাকায় বিদ্যুৎ যায় ঘণ্টায় ঘণ্টায়। আর রাতে তো বিদ্যুৎ গেলে আসার খবর থাকে না। বিশেষ করে প্রতি মধ্যরাতেই বিদ্যুৎ চলে যাচ্ছে। বিদ্যুৎ আসছে ভোররাতের দিকে। ফলে দুঃসহ গরমে নির্ঘুম রাত কাটাতে হচ্ছে তাদের।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful