Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০ :: ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ১২ : ৩২ অপরাহ্ন
Home / খোলা কলাম / ঘুরে দাঁড়াও বাংলাদেশের কৃষক

ঘুরে দাঁড়াও বাংলাদেশের কৃষক

মহিউদ্দিন মখদুমী।।

লেখক

শরতের নীল আকাশের রং মেখে বাতাস স্নিগ্ধ হয়। মোহনীয় সেই বাতাসের টানে তিস্তা নদী পাড়ের গ্রামের পথে যেতে মন চাইবে আপনার। কিন্তু এবার আপনি হয়তো সেখানে যেতে চাইবেন না। যদি আবেগী মনের টানে চলেই যান। তবে দেখবেন তিস্তা নদী পাড়ের বিশাল বিশাল সমতল জমিনে রোপিত আমন ধানের ক্ষেত বানের পানিতে পঁেচ গেছে। পঁচা আমন ধান ক্ষেতের দূর্গন্ধময় আন্দোলিত শরতের বাতাস আপনাকে দীর্ঘশ্বাস ছাড়তে বাধ্য করবে। আপনি কেঁদে ফেলতে পারেন। অথবা আপনার চোখে পড়বে রোপিত আমন ধান ক্ষেতের পাশে বসে থাকা কৃষকের বেদনায় নুয়ে পড়া কান্না ভেজা মুখ। স্বপ্ন হারিয়ে, পুঁজি হারিয়ে নিঃস্ব কৃষককে দেখে আপনার সংবেদনশীল মনটা মোচ্ড় দিয়ে উঠতে পারে। আপনার ভিতরে যদি প্রেম থাকে। সত্যিকারের দেশ প্রেম। তবে আপনার চোখ বাঁধা মানবে না। অবশ্যই আপনি কেঁদে ফেলবেন। অশ্রুকে আটকাতে পারবে না আপনি। চোখের কোনে জমে থাকা জল মুঁছতে মুঁছতে লক্ষ্য করবেন আপনার বুকের ভিতর অনেক শব্দ জটলা করে খেলা করছে। বুদ্ বুদ করে অনু”্চারিত ভাবে আপনি যেন বলছেন, বাংলাদেশের কৃষকরাই বাংলাদেশের প্রাণ। বাংলাদেশের কৃষকরাই সবচেয়ে ভরসার জায়গা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথাগুলো মনে পড়বে। তিনি বলেছিলেন, “কৃষকই এদেশের আসল নায়ক যারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে আমাদের সবার অন্ন জোগায়। কোট-প্যান্ট খুলে গ্রামের জমিতে নামতে হবে। কেমন করে হালে চাষ করতে হয়? কোন জমিতে কত ফসল হয়? জমিতে কেমন করে লাঙল চষে? কেমন করে বীজ ফলন করতে হয়? আগাছা কখন পরিষ্কার করতে হবে? ধানের কোন সময় নিড়ানি দিতে হয়? কোন সময় আগাছা ফেলতে হয়? পরে ফেললে আমার ধান নষ্ট হয়ে যায়। এগুলো বই পড়লে হবে না। গ্রামে যেয়ে আমার চাষি ভাইদের সঙ্গে প্রাকটিক্যাল কাজ করে শিখতে হবে। তাহলে আপনারা অনেক শিখতে পারবেন”। (১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্রুুুয়ারি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ময়মনসিংহে দেয়া বঙ্গবন্ধুর বিশেষ ভাষণ থেকে নেয়া)- আবেগী ভাবাবেগ আপনাকে পঁচে যাওয়া আমন ধান ক্ষেতে নামতে বাধ্য করতে পারে। কলকল করে বেড়ে উঠা মধ্যবয়সী সবুজ ধান ক্ষেত ছিল এই খানে। হে বানের পানি ! আমার কৃষকের স্বপ্ন ধুলিসাৎ করার জন্য কেন এসেছিলি তুই? কেন বারবার কৃষকের দুঃস্বপ্ন হয়ে দেখা দিস তুই? এমন কষ্টোউক্তি বুক ফুঁড়ে বেরিয়ে আসতে পারে আপনার।

হঠাৎ আপনার আবেগ বেপরোয়া হয়ে উঠতে পারে। বানের পানিতে পঁচে যাওয়া কৃষকের স্বপ্ন রোপিত আমন ধানের ক্ষেত আপনাকে দিকবলয়ের পথে টানতে পারে। আপনি চিৎকার করে বলতে পারেন-বাংলাদেশের কৃষক ঘুরে দাঁড়াও। বানের পানি নেমে গেছে। লুঙ্গি কাচনী করে নেমে পড় মাঠে। লাঙ্গলের ফলায় জমিন ফাঁড়িয়ে আবার ধান রোপনের জন্য প্রস্তুত করো। দেশ ও জাতির কল্যাণে দিনরাত পরিশ্রম করে যে কৃষক তার তো কোন বিরাম নেই। বিরাম থাকে না। থাকবার কথা নয়। প্রতিকূলতার সাথে যুদ্ধ করার অদম্য সাহস একমাত্র বাংলাদেশের কৃষকের আছে। সহজে মাথা নোয়ার পাত্র বাংলার কৃষক নয়। শুকনো মরিচ ও লবণ দিয়ে পান্তা ভাত খেয়ে বীজ বপনে নেমে পড়ো। সদ্য রোপণ করা আমন ধানের ক্ষেত বানের পানিতে পঁচে গেছে তাতে কি? তোমার হিম্মত তো পঁচে যায়নি। আবার জমিন সবুজ হবে। ধানে ধানে ভরে যাবে গোলাঘর। বাংলাদেশের কোটি মানুষ তোমার দিকে তাকিয়ে হে কৃষক। তুমি তাদের অন্নের যোগান দাতা। তুমি তাদের প্রকৃত বন্ধু। আপনার গলার স্বর নুরুলদীনের মতো হয়ে উঠতে পারে। আপনি চিৎকার করে বলে ফেলতে পারেন। কোনঠে বাহে দিনাজপুরের কৃষক! লুঙ্গি কাচনী করে জমিনে নামি পড়ো বাহে। কোনঠে বাহে কুড়িগ্রামের কৃষক ! বানের পানি নামি গেইছে বাহে। আবার তোমাক স্বপ্নচাষ করতে হবে বাহে। কোনঠে বাহে নীলফামারীর কৃষক! হতাশা ঝারি ফেলে মাঠোত নামো বাহে। কোনঠে বাহে রংপুর, লালমনিরহাট, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, গাইবান্ধার কৃষক ! জেগে উঠো বাহে। সম্ভাবনার জমিন তোমাক ডাকছে।

পুনশ্চঃ কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও এবং গাইবান্ধা জেলায় বানের পানিতে হেক্টর হেক্টর জমিনে সদ্য রোপন করা আমন ধানের ক্ষেত পঁচে গেছে। এ সংবাদ সবাই জানে। আমি রংপুরের গংগাচড়া উপজেলায় তিস্তা নদীর পাড়ের বিশাল বিশাল পঁচে যাওয়া আমন ধান ক্ষেত গুলো দেখে এসেছি। একদিকে ঘর বাড়ি নষ্ট হয়ে গেছে, অন্যদিকে কৃষকদের বেঁচে থাকার অবলম্বন রোপিত আমনক্ষেত বানের পানিতে পঁচে গেছে। নিরুপায় কৃষকের কষ্টের কথা শুনে ও পঁেচ যাওয়া ধান ক্ষেতগুলো দেখে আবেগে চোখে জল এসেছিল। আমি কেঁদেছি। দেখে আসুন, আপনিও কাঁদবেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব। প্রার্থনা করি, সরকারের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা একদল লোভী রাক্ষসের সমন্বয়হীনতা ও খামখেয়ালিপনার কারণে এই ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা যেন আবার দুঃখ না পায়। কৃষিবান্ধব এই সরকার স্বচ্ছতায় থেকে সহায়তা নিয়ে দুঃখী কৃষকের পাশে থাকুক।

লেখক, সাংবাদিক, দৈনিক মানবকন্ঠ,রংপুর অফিস।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful