Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ০০ পুর্বাহ্ন
Home / লালমনিরহাট / কালীগঞ্জে মাদক সম্রাট দুই ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

কালীগঞ্জে মাদক সম্রাট দুই ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি
অবশেষে ধরা পরলো মাদক সম্রাট খরজামাল। তাকে আজ শুক্রবার ভোরে রংপুর থেকে পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গত দু’দিন তাকে ধরার জন্য পুলিশ অনেক চেষ্টা করেছে। আতœসমর্পন করার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে আহবান করা হয়েছিল। কথাও দিয়েছিল গতকাল (বৃহস্পিতিবার) স্বেচ্ছায় থানায় আতœসমর্পন করবে। কিন্তু তা’ না করে সে তার মোবাইল ফোনটির সিম পরিবর্তন করে আতœগোপনে চলে যায়।
লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের তসলিম উদ্দিনের ছেলে মাদক সম্রাট খরজামাল (৩০) বহু মাদক মামলার পলাতক আসামী । তাকে ধরার জন্য গত ৬ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ তার বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় পরিবারের লোকজন পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে খরজামালকে ছিনিয়ে নেয়। আতœরক্ষার্থে পুলিশ এক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে।
অইদিন রাতে খরজামালের বড়ভাই মাদক সম্রাট,ইউপি সদস্য আলী ইসলাম আলোকে চন্দ্রপুর বাজার থেকে গ্রেফতার করে। রাতে কালীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ মকবুল হোসেনের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ ফোর্স নিয়ে খরজামালকে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে খরজামাল মোবাইলে ওসিকে আতœসমর্পন করার প্রতিশ্রæতি দেয়। পরের দিন(৭ সেপ্টেম্বর) আতœসমর্পন না করে মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেয় এবং আতœগোপনে চলে যায়।
অবশেষে গতকাল(৮ সেপ্টেম্বর) ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর থেকে খরজামালকে পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এ সংবাদ নিঃশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ মকবুল হোসেন। তিনি জানান, খরজামাল ও আলী ইসলাম আলো কুখ্যাত মাদক চোরাকারবারি। তাদের বিরুদ্ধে বহু মাদক নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রয়েছে। তিনি আরও জানান,তাদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধাদান সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসি কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। সংবাদ লেখা পর্যন্ত খরজামালকে জেলহাজতে প্রেরনের প্রক্রিয়া চলছে। আলী ইসলাম আলোকে বৃহস্পতিবারে আদালতের মাধ্যমে হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।
এলাকাবাসি জানান, মাদক ব্যবসায়ী খরজামালকে গ্রেফতারের ঘটনায় গত কয়েকদিন যাবৎ এলাকায় আতংক বিরাজ করছিল। তাকে গ্রেফতার করার খবরে এলাকার জনমনে স্বস্তির ফিরে এসেছে।
এই প্রথমবারের মত মাদক সম্রাট দুই ভাই খরজামাল এবং আলী ইসলাম আলোকে একদিনের ব্যবধানে গ্রেফতার করতে পেরেছে পুলিশ। এর আগে তারা বহুবার গ্রেফতার হলেও আইনের ফাঁকে উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে এসে আবার মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়তো। যে কারনে এলাকার মাদক চোরাচালানির মত অপরাধ নিয়ন্ত্রন করতে হিমশিম খাচ্ছিল আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।
লালমনিরহাটে পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক যোগদানের পর থেকে অব্যাহত চোরাচালান প্রতিরোধ তৎপরতায় বহু মাদক ব্যবসায়ী জেলহাজতে রয়েছে। অনেকে এলাকা ছেড়ে আতœগোপন করেছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful