Templates by BIGtheme NET
আজ- শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৮ : ২৩ পুর্বাহ্ন
Home / ক্যাম্পাস / ‘রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়’ নাম নিয়ে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া

‘রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়’ নাম নিয়ে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া

 আজমিরা আজমি, স্টাফ রিপোর্টার: রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হতে যাচ্ছে বলে গতকাল বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে একটি সংবাদ প্রচার হয়েছে।

এই সংবাদ প্রকাশের পর থেকে রংপুরে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখাগেছে। বিশেষ করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই নামকরণে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা এই নামকরণের সমালোচনা করেছেন এবং কি রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামকরণ ঠেকাতে আন্দোলনেরও হুমকি দিয়েছে অনেকে।

এম এ রউফ খান নামে একজন লিখেছেন, ‘বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্বের নাম রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় ছিলো যা রাজনৈতিক কারনে পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় এটি ব্যবহার করতে চাচ্ছে। এখন তোমরা বেরোবির ছাত্র-ছাত্রীরা যদি আন্দোলন করে আবার ”রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়” নাম রাখতে পারো তাহলে ঐ বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে এই নামে খুলতে বাধা দিতে পারো। আর যদি না পারো তাহলে তাদের এই নামে বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে বাধা দেয়ার কোন যৌক্তিকতা দেখিনা।’

এইচ.টি.এম আরিফ নামে একজন লিখেছেন, ‘প্রাইভেট ভার্সিটি আবার বিভাগের নামে হয়?? এমন নাম কেবল পাবলিক ভার্সিটির হতে হবে। প্রাইভেট ভার্সিটির এমন নাম বিনা যুক্তিতে বাতিলযোগ্য।’

সাঈদুর রহমান বলেছেন, ‘আমার এলাকায় এখনো আমি যখন বেগম রোকেয়া বলি তখন আবার কষ্ট করে আমাকে রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় বলা লাগে,,,কারন অনেকে চিনতে পারে না। এটা কেন করা লাগে???!,, কেন নামটা পরিবর্তন করা হলো?? রংপুর বাসির ঐতিয্য, কৃষ্টি কালচার নিয়ে বেচে থাকবে “রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়”। যার নাম তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হউক,,,,,তা না হলে চরম দ্বিধা দ্বন্দ্বে পড়বে সাধারন মানুষ,,,, তাছাড়া প্রায় সবগুলো বিভাগের নামে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হলে রংপুর কেন নয়??? কার স্বার্থে রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামটা পরিবর্তন করা হলো???? তাহলে পিছিয়ে পড়া এই রংপুর বাসিকে নামের ক্ষেত্রেও অবহেলা করা হলো নাতো?? একটু ভেবে দেখবেন,,,,, আর হে একটা সুন্দর নাম অনেক কিছু বহন করে,,,,,,আমি বলছি না রোকেয়া নামটা বেমানান ,,, তবে এর প্রাক্তন নামটাও বেমানান ছিল না। যার নাম তাকেই ফিরিয়ে দেওয়া হউক।’

সন্ময় মহন্ত নামে একজন লিখেছেন, ‘কোনো এলাকার নামে ভার্সিটি বলতে তো সেই এলাকার পাবলিক ভার্সিটিতে বোঝায় ৷ কিন্তু রংপুর ভার্সিটি নামে প্রাইভেট ভার্সিটি হবে এটা এলাকার জন্যও লজ্জাজনক ৷’

রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক কুন্তলা চৌধুরী বলেন, নামকরণটা একটা কোয়ালিটির উপর নির্ভর করে। এখন সবাই যদি চায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ১, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ৩ সেটা যেমন সম্ভব নয়। তেমনি এখন যদি রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামে কোন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় হয় তাহলে এটা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সমস্যা তৈরি করতে পারে। রংপুরে যখন প্রথম পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হলো তখন ডেফিনেটলি রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নাম করাই যেত।

অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের শিক্ষক উমর ফারুক বলেন,যদি স্থান এর নামে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় হয় বা হতে হয় তাহলে নিঃসন্দেহে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হতে হবে। কোনো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থানের নামে হওয়াটা শোভন দেখায় না । যেখানে একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আছে সেরকম একটি জায়গায়। আমরা বিশ্বাস করি যে রংপুর এ অনেকগুলি বিশ্ববিদ্যালয় দরকার। তবে সেই বিশ্ববিদ্যালয় এর নাম করণের ক্ষেত্রে সরকারের অবশ্যই একটু প্রাজ্ঞ হওয়া উচিৎ।

এ বিষয়ে জানতে আমরা কথা বলেছি রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. তুহিন ওয়াদুদ এর সাথে। তিনি উত্তরবাংলা ডটকম কে জানান, আমি মনে করি এসব প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এর নাম না হয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় হওয়া উচিৎ। কারণ আমাদের দেশে বরাবর স্থান গুলোর নামে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আছে আমাদের মধ্যে ধারনা টাও কিন্তু একই। সে জন্য আমরা মনে করি রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামে কোনো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় না হয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার জন্য আমরা সরকারের কাছে দাবি করি। সবাই এ কথাই বলছেন যেমন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় বগুড়া এটাও আমরা চাই না। রাজশাহী এর নামে হোক এটাও আমরা চাই না। এগুলোর নামে একটা বিশেষত্ব তৈরি হয়েছে ফলে রংপুর এর নামে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় হলে সেটা যেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হয়।

জানাগেছে, রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়টি রংপুর সার্কিট হাউজ রোডের নাহার ম্যানসনে প্রস্তাবনা করা হয়েছে। এটির প্রস্তাবক হিসেবে রয়েছেন মোতাহার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সাবেক সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী (বাবু)। তার সঙ্গে রয়েছেন সরকার সমর্থিত একাধিক বণিক নেতা, মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানসহ অনেকে। ইউজিসি সূত্র জানায়, আগামী ১১ সেপ্টেম্বর রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করবেন ইউজিসি’র পরিদর্শক দল।

উল্লেখ্য, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন ১২ অক্টোবর ২০০৮ রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামে একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে অরাজনৈতিক সরকারের করা বিশ্ববিদ্যালয় এটি। সময়স্বল্পতার কারণে নতুন করে জমি অধিগ্রহণ না করে রংপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অধিগ্রহণ করা জমিতে কারমাইকেল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় করার অধ্যাদেশ বাতিল করে রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরবর্তীতে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০০৯ সালে রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর নামকরণ করে। রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় নামটির প্রতি রংপুরবাসীর দুর্বলতা থাকলেও রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের মতো মহীয়সী এবং নারী প্রগতির অন্যতম পথিকৃৎ বিজ্ঞানমনস্ক লেখকের নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম হওয়ায় কেউ আপত্তি করেনি।

 

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful