Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২৫ জুন, ২০১৮ :: ১১ আষাঢ় ১৪২৫ :: সময়- ২ : ৪৩ পুর্বাহ্ন
Home / নীলফামারী / নীলফামারীতে উন্নয়ন মেলায় সরকারের বাস্তব প্রতিফলন ঘটছে

নীলফামারীতে উন্নয়ন মেলায় সরকারের বাস্তব প্রতিফলন ঘটছে

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়, নীলফামারী ১২ জানুয়ারী॥ ‘উন্নয়নের রোল মডেল শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ শ্লোগানে নীলফামারীর ছয়টি স্থানে উন্নয়ন মেলা ২০১৮ জমে উঠেছে। আজ শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) মেলার দ্বিতীয় দিন কনকনে হাঁড় কাঁপাননো শীত উপেক্ষা করে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী সহ সাধরন মানুষজন বর্তমান সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের সেবা মুলক কর্মকান্ড পরিদর্শন ও সুফলভোগে মেলা চত্বরগুলোতে আসছে। ফলে লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠেছে জেলা সদর নীলফামারীর হাই স্কুল চত্বর মেলার মাঠ ও অপর ৫ উপজেলা ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা, কিশোরীগঞ্জ ও সৈয়দপুর উপজেলার উন্নয়ন মেলা চত্বর। সরকারের পক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) হতে এই মেলার আয়োজন করেছে নীলফামারী জেলা প্রশাসন।
গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশের মতো নীলফামারীর ছয় স্থানে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছিলেন। আগামীকাল শনিবার (১৩ জানুয়ারি) রাত আটটায় এই মেলার সমাপনী ঘটবে।
জেলা সদরের হাইস্কুলে মাঠে এবারের উন্নয়ন মেলায় ৮০ টিরও বেশি স্টল করা হয়েছে। এ ছাড়া উপজেলা পযায়ে স্টল হয়েছে ৪০টি করে। সরকারি সংস্থার স্টলই এই মেলায় বেশি রয়েছে। আধা-সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার স্টলও রয়েছে মেলায়। এ ছাড়া বিভিন্ন স্কুল কলেজও শিক্ষার পরিবেশ নিয়ে তাদের স্টলে উপস্থাপন করছে।
মেলায় উন্নয়ন মেলায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের দপ্তরগুলোর স্টল, বাংলাদেশ উন্নয়ন কর্তৃপ, অর্থমন্ত্রনালয়, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয়, বেজা, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, রেলপথ মন্ত্রণালয়, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, জেলা সমবায় অফিস, কৃষি মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর, জেলা কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর, পৌরসভা, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ স¤পদ মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের স্টল।
তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলায় আলোচনা সভা ছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দেশের মুক্তিযুদ্ধ ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের নানা দিক তুলে ধরা হচ্ছে। স্থানীয় শিল্পীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন। মেলা চলাকালীন প্রতিদিন আয়োজন করা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কুইজ, আলোচনা, বিতর্ক ও রচনা প্রতিযোগিতা।
আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় এমডিজি অর্জন ও এসডিজি অর্জনের পথে বাংলাদেশ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত সচিব) আসাদুল ইসলাম। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম এতে সভাপতিত্ব করে।
মেলায় অসংখ্য দর্শনার্থীরা জানান বর্তমান সরকার যে দেশের উন্নয়ন চালিয়ে যাচ্ছে এবং ব্যাপক উন্নয়ন ঘটিয়ছে তার বাস্তব প্রমান আমরা দেখছি এই উন্নয়ন মেলায়।
স্কুল ছাত্রী শ্রেয়া ঘোষ জানায় আমরা রাজনীতি বুঝিনা। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নে বিভিন্ন সময় যে বক্তব্য প্রদান করেন তা দেখতে এই উন্নয়ন মেলায় এসে অভিভুত হয়েছি। কারন প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রমান মেলে উন্নয়ন মেলা। অর্নাসের ছাত্রী আসফানা তারানুম নিকিতা বলে উন্নয়ন নিয়ে মেলা হয় যা চোখে না দেখলে বুঝতে পারতাম না। সত্যি আমরাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই দেশের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন এবং করে যাচ্ছেন। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করি।
ইটাখোলা হতে উন্নয়ন মেলা দেখতে আসা কৃষক ইনছান আলী বললেন শেখ হাসিনা সরকারে এতো সুফল এই মেলায় না আসলে বুঝতে পারতাম না।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful