Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ :: ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ :: সময়- ৩ : ৫৯ অপরাহ্ন
Home / রংপুর বিভাগ / লালমনিরহাটে বিএনপি’র ৩২৭ নেতাকর্মীর নামে গ্রেফতারী পরোয়ানা

লালমনিরহাটে বিএনপি’র ৩২৭ নেতাকর্মীর নামে গ্রেফতারী পরোয়ানা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে বিজয় দিবসের আ’লীগ বিএনপি’র হামলায় পুলিশ সদস্য আহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিএনপি’র ৩২৭জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। চার্জসীট দাখিল করা হয় ৪১৯ জনের নামে।
বৃহস্পতিবার(৬ ডিসেম্বর) দুপুরে লালমনিরহাটের অতিরিক্ত চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান মন্ডল এ আদেশ দেন।
মামলার বিবরনে জানা গেছে, গত বছর ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের র‌্যালীতে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আসামীদের ছুড়া ইট পাটকলের আঘাতে তৎকালীন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) সুশান্ত সরকার, সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম, উপ পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন এবং দুইজন কনস্টবল আহত হন।
পরদিন এ ঘটনায় বিএনপি’র ২৮ জন নেতা কর্মীর নামসহ অজ্ঞতনামা আরো ৩/৪ শত জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন সদর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন। মামলাটি দীর্ঘদিন তদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) ৪১৯ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপ পরিদর্শক(এসআই) মাইনুল হক। এ মামলার প্রধান আসামী সদর উপজেলার বড়বাড়ির বাসিন্দা হারুন মিয়া তথ্যপযুক্তি আইনের অপর একটি মামলায় ঢাকা কারাগারে রয়েছেন। এ মামলায় আসলাম নামে একজন লালমনিরহাট কারাগারে রয়েছেন। অভিযোগ পত্র পর্যালোচনা করে আদালতের বিচারক অতিরিক্ত চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান মন্ডল ৩২৭ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন।
মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মাইনুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলাটি তদন্ত করে ৪১৯জন আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করা হলে আদালত ৩২৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন।
লালমনিরহাট কোর্ট পরিদর্শক (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আদালত এ মামলায় ৩২৭ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন। আসামীদের সংশ্লিষ্ঠ থানায় আদালতের আদেশনামা আজকের মধ্যেই পাঠানো হবে।
লালমনিরহাট জেলা বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা বলেন, প্রথম দিকে এ মিথ্যা মামলায় ২৮ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে পুলিশ। এখন নির্বাচনী মাঠে বিএনপি’কে নেতাকর্মী শুন্য করতে এবং গনগ্রেফতারকে বৈধ্য করতে এ গায়েবী আদেশ দেয়া হয়েছে।
লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সভাপতি ও লালমনিরহাট-৩ আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু বলেন, নির্বাচনে ফাকা ফিল্ডে গোল দেয়ার জন্যই এই গায়েবী আদেশ। অথচ চার্জসীট দেয়ার আগে এই মামলায় বিএনপির মাত্র ২৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছিল।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful