Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০ :: ৬ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৫ : ৩৫ পুর্বাহ্ন
Home / বিনোদন / বলিউডের দশ অপ্রত্যাশিত ‘ব্রেকআপ’

বলিউডের দশ অপ্রত্যাশিত ‘ব্রেকআপ’

সম্পর্কের পত্তন, মুখরোচক গল্পকাহিনী, সবশেষে সম্পর্কের ভাঙ্গন; বলিউডে এ আর নতুন কি! হলিউডের সাথে তাল মিলিয়ে বলিউড তারকারাও সমান হারে সম্পর্কের ভাঙ্গন, মানে ‘ব্রেকআপ’-এ অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

রাজ কাপুর থেকে জন আব্রাহাম, কেউই তাদের বহুল আলোচিত প্রেম শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারেননি। তবে বলিউড ইতিহাসের সব হৃদয় বিদারক (!) গল্প তুলে আনতে না পারলেও, এই আয়োজনে দর্শকের জন্য থাকছে সেরা দশ অপ্রত্যাশিত ‘ব্রেকআপ’-এর গল্প।

শহিদ কাপুর-কারিনা কাপুর
সম্পর্কের শুরু থেকেই এই জুটির ভাববঙ্গি ছিল ‘ফেভিকল দিয়ে জোড়া লাগানো’ টাইপ। কারিনার পরীক্ষামূলক প্রেমের সম্প্রচার তিন বছরের বেশি এগোয়নি। তারপর বলিউডের ছোটে নবাব সাইফ আলী খানের প্রেমে পড়লেন কারিনা, অতঃপর বিয়ে। ‘সাইফিনা’-র সুখের দাম্পত্য জীবন দূর হতে ভগ্নহৃদয় নিয়ে দেখা ছাড়া আর কিছু করার ছিল না শহিদ কাপুরের।

শহিদ কাপুর-কারিনা কাপুর

শহিদ কাপুর-কারিনা কাপুর

সালমান খান-ঐশ্বরিয়া রাই
এ সম্পর্কের ব্যাকগ্রাউন্ড রিসার্চ নতুন করে করবার নেই। সালমানের বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক হয়রানির অভিযোগ এনে সম্পর্কের ইতি টানেন ঐশ্বরিয়া। যদিও দুজনকে বেশিদিন একা থাকতে হয়নি। জীবনের মোড় দুজনকে দুই নতুন রাস্তায় নিয়ে গেছে। ঐশ্বরিয়া এখন জুনিয়র বচ্চন অভিষেকের ঘরণী, আর সালমান সেই আগের মত বহু আকাঙ্খিত ‘ব্যাচেলর’।

সালমান খান-ঐশ্বরিয়া রাই

সালমান খান-ঐশ্বরিয়া রাই

রণবীর কাপুর-দীপিকা পাড়ুকন
পরিচালক করণ জোহরের জনপ্রিয় টিভি শো ‘কফি উহথ করণ’ এর কল্যাণে কারোরই আর অজানা নয় দীপিকা-রণবীর এর ব্রেকআপ স্টোরি। রণবীরের অবিশ্বস্ততা, উদ্ধত আচরণই নাকি ছিলো ভাঙনের প্রধান কারণ। মাঝখানে বেশ কিছুদিন সিদ্ধার্থ মালিয়ার সাথে দীপিকার নাম শোনা গেলেও, হালে জড়িয়েছেন রণবীর সিং-এর সাথে। অন্যদিকে ঋষি কাপুর-তনয় উড়ছেন ক্যাটরিনার কাইফের সাথে।

রণবীর কাপুর-দীপিকা পাড়ুকন

রণবীর কাপুর-দীপিকা পাড়ুকন

সাইফ আলী খান-অমৃতা সিং
সকল সামাজিক-পরিবারিক বাধা অতিক্রম করে ১২ বছরের বড় আমৃতা সিংকে বিয়ে করে ঘরে তুলেছিলেন সাইফ আলী খান। তীব্র এই প্রেমের দুঃখজনক অবসান ঘটে ২০০৪-এ। সাইফ তার বাসনা কিংবা প্রেম ধরে রাখতে পারেননি, প্রেমের জোয়ার নতুন করে গিয়ে ঠেকেছে কারিনার কূলে।

সাইফ আলী খান-অমৃতা সিং

সাইফ আলী খান-অমৃতা সিং

কারিশমা কাপুর-অভিষেক বচ্চন
সিনিয়র বচ্চনের এর ৬০তম জন্মদিনকে ঘিরে বচ্চন বধূ হিসেবে মিডিয়ায় নতুন ভাবে উঠে এসেছিল কারিশমা কাপুরের নাম। কিন্তু হঠাৎ নদীর জল কোথায় ঘোলা হলো- বুঝে উঠবার আগেই পাল্টে গেলো নদীর গতিপথ। যদিও গুঞ্জনে এর জন্য দায়ী করা হয়েছিল জয়া বচ্চনকেই। পেছন থেকে তিনিই নাকি সব কলকাঠি নেড়েছেন। পরে কী হতে কী হয়ে গেল, তড়িঘড়ি করে কারিশমা শিল্পপতি ও অভিনেতা সঞ্জয় কাপুরের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসে গেলেন।

কারিশমা কাপুর-অভিষেক বচ্চন

কারিশমা কাপুর-অভিষেক বচ্চন

প্রীতি জিনতা-নেস ভাদিয়া
তাকিয়ে থাকার মত জুটি প্রীতি-নেস এর সম্পর্কে ফাটল ধরার আগ পর্যন্ত তাদের মনে হত ‘মেড ফর ঈচ আদার’। তাদের এই সম্পর্ক ভাঙানের কারণ এখনো উদঘাটন না হলেও, এমন একটি পদক্ষেপ তাদের দুজনকেই যে কষ্টের জোয়ারে ভাসিয়ে দিয়েছে, এটি নিশ্চিত!

প্রীতি জিনতা-নেস ভাদিয়া

প্রীতি জিনতা-নেস ভাদিয়া

সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ
আবার সালমান! কোটি হৃদয় হরণকারী ক্যাটরিনাকে বলিউড জগতের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন সাল্লু। শোনা যায়, ক্যাটকে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত করতে সবকিছু করার প্রতিজ্ঞাও করেছিলেন তিনি। রণবীর কাপুর ক্যাটের মনে কড়া নাড়ার আগ পর্যন্ত সবকিছু ঠিকঠাকই চলছিলো। তবে এটা ধারনা করা হয়, সালমান-ক্যাট দুজনের মনের কোণে এখনো দুজনের জন্য খানিকটা প্রেম রয়েই গেছে।

সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ

সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ

আমির খান-রীনা দত্ত
মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির ক্যারিয়ারের শুরুতেই বিয়ে করেছিলেন তার কিশোর বয়সের প্রেমিকা রীনা দত্তকে। সাফল্য যখন তুঙ্গে, তখনও দুজন একসাথেই ছিলেন। কিন্তু ১৫ বছরের এই বৈবাহিক সম্পর্কে হঠাৎই ফাটল ধরে ২০০২ সালে ডিভোর্স দিয়ে। ২০০৫-এ সালে আমির বিয়ে করেন কিরণ রাওকে।

আমির খান-রীনা দত্ত

আমির খান-রীনা দত্ত

লারা দত্ত-কেলি দর্জি
বলিউডের অনেক সুন্দর সম্পর্কের গল্পের মধ্যে এটি একটি। যদিও তার অবসান ঘটে অল্প সময়ের মধ্যেই। লারা ও কেলি উভয়ই তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে স্পষ্টভাষী এবং দৃঢ় ছিলেন। এই উজ্জ্বল প্রেমের অবসান ঘটে কেলির বেস্ট ফ্রেন্ড জিনা মোরিওর হস্তক্ষেপে। কিছুটা দ্বন্দ্ব নিয়ে অবসান ঘটলেও উভয়েই নিজ নিজ জায়গায় সুখে আছেন তা অনুমান করা যায়।

লারা দত্ত-কেলি দর্জি

লারা দত্ত-কেলি দর্জি

জন আব্রাহাম-বিপাশা বসু
এটি হয়তো সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে বড় ভাঙন। দশ বছরের দীর্ঘ সম্পর্কের পর উভয়ই এই বহমান স্রোতকে থামিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন। জনসম্মুখে প্রেম করা এই জুটি জনসম্মুখে স্বীকার করলেন তাদের ‘ব্রেকআপ’-এর কথা। ধারণা করা হয়, বিয়ে করার অনিচ্ছাই এই ভাঙনের কারণ। সূত্র: মেনস্ এক্সপি, আফিয়া পিনা, এটিএন টাইমস

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful