Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ :: ২৯ কার্তিক ১৪২৬ :: সময়- ৩ : ০৮ অপরাহ্ন
Home / নীলফামারী / নিষেজ্ঞাধা অমান্য করে তিস্তা ব্যারাজের উপর দিয়ে ভারী যানবাহন চলছে

নিষেজ্ঞাধা অমান্য করে তিস্তা ব্যারাজের উপর দিয়ে ভারী যানবাহন চলছে

বিশেষ প্রতিনিধি ৫ জানুয়ারী॥ ভারী যানবাহন চলাচল ঠেকাতে দেশের সর্ববৃহৎ তিস্তা ব্যারাজের প্রবেশ মুখে স্থাপিত লোহার রড ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে । অথচ সেখানে আছে পুলিশ ফাঁড়ি ও আনসার ক্যাম্প। আইনশৃঙ্খলাবাহিনী ছাড়াও রয়েছে সেখানে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা ও কর্মচারী। প্রবেশ মুখের লোডার ব্যারিকেট রড ভেঙ্গে দিয়ে দিনে ও রাতে চলছে পাথর বোঝাই ৪০ মেট্রিকটন ওজনের ট্রাক। ফলে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে দেদারছে চলছে ভারী যানবাহন। আজ শনিবার(৫ জানুয়ারী) বিকালে এলাকাবাসীর অভিযোগ ভারী যানবাহন চলাচলে চক্রটি হাতিয়ে নিচ্ছে অর্থ। এ নিয়ে তিস্তা ব্যারাজের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
নীলফামারী ও লালমনিরহাট জেলার সীমানা ডালিয়া ও দোয়ানীতে অবস্থিত দেশের সর্ববৃহৎ সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ। এটি চালু হবার পর রাজস্ব আদায়ে তিস্তা ব্যারাজ দিয়ে যানবাহন পারাপারে টোল আদায়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ২০০১ সালে ব্যারেজের উপর দিয়ে ২০ টনের নিচে সব যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়। সেই থেকে প্রতিবছর সরকার রাজস্ব আয় করতো কোটি টাকার ওপরে। কিন্তু টোল আদায়ের ঠিকাদার কতিপয় অসাধু কর্মকর্তার সঙ্গে আতাত করে টাকার বিনিময়ে ৩০ থাকে ৩৫ টনের বেশি ওজনের ভারী যানবাহন চলাচলের সুবিধা করে দেয়। এতে ব্যারাজে দেখা দেয় ফাটল ও ৪৪টি মুল জলকপাট গুলো অপারেটিং এ দেখা দেয় সমস্যা।
তিস্তা ব্যারাজকে রক্ষার্থে ২০১৪ সালের ২৫ নবেম্বর হতে ব্যারেজের উপর দিয়ে ভারী যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। নিষেধাজ্ঞা কার্যকরে টোল আদায় বন্ধ করা হয়। ব্যারেজের উভয় প্রান্তের গেটে মূল সড়কে রিক্সা ভ্যান,কার,মাইক্রো পারাপারের সুবিধায় ৭ ফিট ৮ ইঞ্চি ফাঁকা রেখে লোহার পাইপ বসিয়ে রাস্তা সংকীর্ণ করা হয়। যাতে ট্রাক ও বাস চলাচল করতে না পারে। ফলে বুড়িমারী থেকে বিভিন্ন ভারী যানবাহন পাটগ্রাম হাতীবান্ধা লালমনিরহাট হয়ে তিস্তা সেতু দিয়ে চলাচল করে আসছিল।দীর্ঘ দিন ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকার পর হঠাৎ করে ভারী যনবাহন চলাচল শুরু করে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ তিস্তা ব্যারাজের প্রবেশের দ্বারের উভয়প্রান্তের লোহার পাইপ ভেঙে পুনরায় চলাচল সচল হয় ভারী যানবাহন। এ জন্য সরকারি এ নিষেধাজ্ঞাকে বৃদ্ধাক্সগুলি দেখিয়ে কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা ও কর্মচারী ও আইনশৃ্কংলার দায়িত্বে থাকা সদস্যদের যোগসাজশে পুনরায় ভারী যানবাহন চলাচল শুরু করেছে ব্যারাজের উপর দিয়ে। এতে লালমনিরহাট হয়ে না গিয়ে তিস্তা ব্যারেজ অতিক্রম করে নীলফামারী হয়ে সারা দেশে যাচ্ছে বুড়িমারী স্থলবন্দরের পাথরসহ বিভিন্ন পণ্য বোঝাই ট্রাক।ফলে তিস্তা ব্যারাজের জলকপাট অপারেটিং সিষ্টেমের ক্ষতি সহ ব্যারাজের বিভিন্ন স্থানে ফাটল দেখা দিয়েছে।
বেশ কিছু ট্রাক চালক জানায় টাকা ছাড়া ব্যারাজে পাথর বোঝাই গাড়ি তোলা সম্ভব নয়। ট্রাকপ্রতি এক হাজার করে টাকা দিলেই বাঁধা নেই। তিস্তা ব্যারাজ হয়ে চলাচল করলে তিস্তাসড়ক সেতুর টোল ও রাস্তার দুরত্ব কমে অতিরিক্ত জ্বালানি দু’টোয় বেঁচে যায়।এলাকার অনেকের অভিযোগ ভারী যানবাহন চলাচলের কারনে ব্যারেজের স্থায়িত্ব যেমন প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়েছে, তেমনি ব্যারেজের সংযোগ সড়ক ফ্লাড ফিউজ সড়কেও বড় বড় গতের সৃস্টি হয়েছে। এলাকাবাসী তিস্তা ব্যারাজ রক্ষার্থে ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবি করেছে।
তিস্তা ব্যারাজের নিরাপত্তার দায়িত্ব থাকা আনসার ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ আবু সাঈদ সাংবাদিকদের বলেন, লোহার পাইপের মাঝ দিয়ে যাওয়ার মত ছোট ছোট ট্রাক চলাচলকরে। তবে লোহার পাইপ কারা কিভাবে ভেঙ্গেছে তা তিনি জানেন না।
অপর দিকে তিস্তা ব্যারাজে নিরাপত্তায় থাকা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) আফওয়াজুল ইসলামও ওই আনসার ক্যাম্পের ইনচার্জের মতো বললেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের অনুমোদন অনুযায়ী ছোট ছোট যানবাহনগুলো চলাচল করে। তবে পাথরের ট্রাক চলাচলের কোনো সুযোগ নেই বলেও দাবি করেন তিনি। তিস্তা ব্যারেজ ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল¬াহ আল মামুন জানান বিষয়টি তার নজরে এসেছে। অচিরেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful