Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯ :: ৪ শ্রাবণ ১৪২৬ :: সময়- ৪ : ৩৯ অপরাহ্ন
Home / জাতীয় / সড়ক দুর্ঘটনায় এগিয়ে বাস; মামলায় এগিয়ে মোটরসাইকেল

সড়ক দুর্ঘটনায় এগিয়ে বাস; মামলায় এগিয়ে মোটরসাইকেল

ডেস্ক: সড়কে মৃত্যুর মিছিল। ঘাতক বাস কেড়ে নিলো পথচারীর প্রাণ। থামছেই না মৃত্যুর মিছিল। এ কথাগুলো প্রতিনিয়তই খবরের শিরোনাম হচ্ছে। বিশেষ করে বাসের বিরুদ্ধে। এ ছাড়া এসব ঘটনায় বিক্ষোভ, মানববন্ধন, রাজপথ অবরোধসহ গোটা দেশেই অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে অসংখ্যবার। সবশেষ চলমান ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহের মধ্যেই বেপরোয়া সুপ্রভাত বাসের চাপায় সেনা নিয়ন্ত্রিত বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় আবারো দেশব্যাপী আন্দোলনের হুঙ্কার দেখেছে গোটা দেশের মানুষ। এসব ঘটনার রেশ যতদিন থাকছে, ঠিক ততদিনই তৎপর থাকতে দেখা যাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন থেকে শুরু করে সরকার পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে।

 রাজীব, দিয়া, মিমের ধারাবাহিকতায় আবরার, একের পর এক ঝরছে তাজা প্রাণ। এ ছাড়া সারাদেশে প্রতিদিনই ঘটছে দুর্ঘটনা। লম্বা হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। অথচ মৃত্যুর মিছিলে আজ পর্যন্ত এমন কোনো তথ্য নেই যেখানে মোটরসাইকেল চাপা পড়ে কারো মৃত্যু হয়েছে এবং তার ফলে দেশব্যাপী বিক্ষোভ-সংগ্রামের ঘটনা ঘটেছে। তবুও দেখা যাচ্ছে, ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা বাস ছেড়ে মোটরসাইকেলসহ অন্যান্য যানবাহনের পিছেই লেগে আছে। পুলিশের চলমান ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহের প্রথম তিনদিনের পরিসংখ্যানই তার প্রমাণ।

ট্রাফিক সপ্তাহের প্রথম তিন দিনের ওই পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, বাসের বিরুদ্ধেই ট্রাফিক সদস্যরা মামলা করেছে চার হাজার ৭১৯টি, পক্ষান্তরে মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে মামলার সংখ্যা ৯ হাজার ৩৩৩টি। যদিও বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের (এআরআই) এক গবেষণায় উঠে এসেছে- রাজধানীতে অধিকাংশ সড়ক দুর্ঘটনা বাসের কারণেই ঘটছে। তা ছাড়া যেখানে-সেখানে বাস থামানো, যাত্রী ওঠা-নামা করা, রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি, প্রতিযোগিতাসহ ইত্যাদি অহরহ ঘটনা ঘটাচ্ছে কেবল বাস চালকরাই।

বুয়েটের এআরআই জানাচ্ছে, ২০১৬ সালের মার্চ থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ৬৬৬ দুর্ঘটনায় ৬৯৯ জন নিহত এবং এক হাজার ২২৭ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে ৩৫৪ দুর্ঘটনা বাসের কারণে ঘটেছে। এ ছাড়া ১৩০ দুর্ঘটনা মোটরসাইকেলের কারণে, ট্রাকের কারণে ১৩৩, পিকআপ ৭৩ এবং ব্যক্তিগত গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে ৫৬টি। যদিও পুলিশকে সদা তৎপর থাকতে দেখা যায় মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধেই। এদিকে, সবশেষ গত ৩১ জানুয়ারি শেষ হওয়া ট্রাফিক শৃঙ্খলা পক্ষের পরিসংখ্যানও দিচ্ছে একই রকম তথ্য।

মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে করা মামলার সংখ্যা, বাসের বিরুদ্ধে করা মামলার প্রায় দ্বিগুণ। গত বছরের ১৪ আগস্ট শেষ হওয়া ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহে মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে ৪৩ হাজার ৮৬৩টি। যা বাসের বিরুদ্ধে করা মামলার তিনগুণেরও বেশি। বাস ছেড়ে মোটরসাইকেলের দিকে এত বেশি মনোযোগী কেন পুলিশ এমন প্রশ্নে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও রিসিভ না করায় উত্তর জানা সম্ভব হয়নি। চলতি ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহ শুরু হওয়ার দ্বিতীয় দিনেই রাজধানী নর্দ্দা এলাকায় বাসচাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের শিক্ষার্থী আবরার নিহত হওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবারও রাজধানীর কল্যাণপুরে লরি চাপায় মারা যান এক মাদ্রাসা শিক্ষক। উল্লেখ্য, রাজধানীর রাজপথে শৃঙ্খলা ফেরাতে চলমান ট্রাফিক সপ্তাহ চলবে আগামী ২৩ মার্চ পর্যন্ত।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful