Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২০ :: ১১ মাঘ ১৪২৬ :: সময়- ২ : ৩৪ পুর্বাহ্ন
Home / দিনাজপুর / দিনাজপুরে কোরবানি ঈদে প্রস্তুত এক লাখ ৯১ হাজার গবাদি পশু

দিনাজপুরে কোরবানি ঈদে প্রস্তুত এক লাখ ৯১ হাজার গবাদি পশু

 শাহ্ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরে এবার কোরবানি ঈদ উপলক্ষে এক লাখ ৯১ হাজার ২’শ ১৪টি গবাদি পশু প্রস্তুত করেছে খামারিরা। এর মধ্যে গরু ও মহিষ এক লাখ ১৯ হাজার ৯’৬৫টি এবং ছাগল ও ভেড়া ৭১ হাজার ২’শ ৪৯টি রয়েছে।
কোরবানি’র জন্য প্রন্তুত গবাদি পশুর মধ্যে ৮৯ হাজার ৩’শ ৮০টি ষাঁড়, ১২ হাজার ১’শ ৩৩টি বলদ, ১৮ হাজার ৩’শ ৮৩টি গাভী ও মহিষ রয়েছে ৬৩টি। অপরদিকে ৭১ হাজার ২’শ ৪৯টি ছাগল ও ভেড়ার মধ্যে ৬৮ হাজার ২’শ ৪২টি ছাগল এবং ভেড়া ৩ হাজার ৭টি রয়েছে।
দিনাজপুর জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলম জানিয়েছেন, দিনাজপুরের ১৩ উপজেলায় সর্বমোট ৬০ হাজার ৫’শ ২০টি গবাদি পশু এবং ছাগল ও ভেড়া হৃষ্টপুষ্টকারী খামারি বা পালনকারী রয়েছেন। এ সব খামারে পালনকারীদের কাছে কোরবানির জন্য ১ লাখ ৯১ হাজার ২’শ ১৪টি কোরবানি যোগ্য পশুর তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে।
তিনি জানান, প্রস্তুকৃত (মোটাতাজা/হৃষ্টপুষ্ট) গবাদি পশুগুলো সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন জেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। প্রতিটি খামারে নিরাপদ উপায়ে গবাদি পশু হৃষ্টপুষ্ট করার জন্য তদারকি করা ও পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি ক্ষতিকর ওষুধের ব্যবহার প্রতিরোধে পশু খাদ্য নিয়মিত তদারকি করা হচ্ছে।
ডা. শাহিনুর আলম জানান, ওষুধের অপব্যবহার, রাসায়নিক খাদ্য বর্জনের জন্য সবসময়ই খামারি/পালনকারীদের পরামর্শ দিয়ে আসছেন তারা। রোগাক্রান্ত পশু কিংবা কোরবানির অনুপযোগী গবাদি পশু ক্রয়-বিক্রয় না করার পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি ওষুধের দোকানগুলো যাতে নকল বা মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করতে না পারে সে দিকেও নজর রাখছেন তারা।
ডা. শাহিনুর আলম আরো বলেন, এবারে ঈদে দিনাজপুরের ১৩ উপজেলায় প্রতিটি পশুর হাটে একটি করে ভেটেরিনারী মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। এসব টিম পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা, খামারি ও হাট কর্তৃপকে বিভিন্ন পরামর্শ দিবেন। এতে নেতৃত্ব দিবেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা। এছাড়া ওই কর্মকর্তারা নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাই এবং জবাই পরবর্তী বর্জ্য অপসারণে সংশ্লিষ্টদের সাথে মতবিনিময় সভা করছেন।
দিনাজপুর চিরিরবন্দর উপজেলার খামারি আব্দুস সালাম জানান, তার খামারে আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিভিন্ন জাতের ১৮টি গরু দেশীয় পদ্ধতিতে মোটাতাজা করা হয়েছে। তিনি বলেন, এবার ভারতের গরু ছাড়াই আমাদের দেশীয় গরু দিয়ে বোরবানির হাট-বাজারগুলো ভরে যাবে। তবে ঈদের সময় যাতে ভারতীয় গরু বাংলাদেশে না আসে সেদিকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে খেয়াল রাখার অনুরোধ জানান তিনি।
দিনাজপুর জেলায় আসন্ন রোরবানি ঈদে এক লাখ ৮ হাজার ১’শ ১৭ গবাদি-পশু চাহিদার বিপরিতে উৎপাদন করা হয়েছে এক লাখ ৯১ হাজার ২’শ ১৪টি গবাদি পশু। যার মধ্যে ৮২ হাজার ৭’শ ৯৭টি গবাদি পশু উদ্বৃত্ত থাকবে। অপরদিকে ২৬ হাজার ৮৭টি ছাগল ও ভেড়ার চাহিদার বিপরিতে উৎপাদন করা হয়েছে ৭১ হাজার ২’শ ৪৯টি। যার মধ্যে উদ্বৃত্ত থাকবে ৪৫ হাজার ১’শ ৬২টি ছাগল ও ভেড়া ।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful