Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০ :: ৫ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ৩৪ পুর্বাহ্ন
Home / কুড়িগ্রাম / প্রেমের ফাঁদে পড়ে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

প্রেমের ফাঁদে পড়ে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

Rep 3কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার কাশীপুর ইউনিয়নের বেড়াকুটি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী এতিম কোহীনুর খাতুন (১৫) স্কুল সংলগ্ন ষ্টেশনারী দোকানদার লম্পট যুবক আল আমিনের (২৫) প্রেমের ফাঁদে পড়ে ৭মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন।

অন্তঃসত্ত্বা হয়ে বিয়ের দাবী ও অনাগত সন্তানের পিতৃত্বের দাবীতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল কুড়িগ্রাম-১ এ একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেছেন। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় লোক-লজ্জা ও লম্পট যুবক আল আমিনের ভয়ে ৩মাস বিদ্যালয়ে আসতে না পারায় মেয়েটির লেখাপড়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সহপাঠী সহ এলাকাবাসী অভিযুক্ত আল আমিনের শাস্তি দাবী করেছেন।

ঘটনা প্রকাশের পর থেকেই লম্পট যুবক দোকান বন্ধ করে পলাতক রয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক বছর আগে দনি রামখানা গ্রামের আবেদ আলীর পুত্র আল আমিন অনন্তপুর গ্রামের কমর উদ্দিনের কন্যা কহীনুর খাতুনকে স্কুলে যাওয়া আসার সময় প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত এক পর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এরই মধ্যে কহীনুর গর্ভবতী হলে লম্পট আল আমিন বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে টালবাহানা শুরু করে পরবর্তীতে ঘটনাটি জানাজানি হলে গ্রাম্য সালিশ বৈঠকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলেও বিয়ে করতে রাজী না হওয়ায় বাধ্য হয়ে কহীনুর খাতুন বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ কুড়িগ্রামে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। মামলা নং: ৯/১, তারিখ: ৩০-১০-২০১৩ ইং। কহীনুরের খালা শিউলি বেগম জানান হতভাগ্য কহিনুরের বয়স যখন ৩বছর তখন তার বাবা মাকে তালাক দেয় এর একবছর পর মা অন্যত্র বিয়ে করায় দিন মজুর মামার বাড়ীতে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে বেড়ে উঠছিল মেয়েটি। লম্পট যুবকের পাল্লায় পড়ে মেয়েটি এখন ৭মাসের অন্তঃস্বত্তা এমতাবস্থায় পরিবারের লোকজন চরম উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় দিন পার করছেন।

গ্রামবাসী শফিকুল, জয়নাল ও তুষার জানান যে লম্পট যুবক আল আমিন সালিশ বৈঠকে ঘটনার কথা স্বীকার করলেও বিয়ে করতে রাজী না হওয়ায় অভিযুক্ত যুবকের শাস্তি দাবী করেছেন। কিশোরী মেয়েটির পেটের বা”চার বাবা কে হবেন? এই প্রশ্ন করে কহীনুরের মা আমেনা খাতুন লম্পট যুবকের শাস্তি চান।

বেড়াকুটি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আ: মতিন জানান, কহীনুর অত্র বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী তাহার রোল নং: ১৬ এবং মেয়েটির পড়াশুনা চালিয়ে নেয়ার জন্য বিশেষ ব্যবসা গ্রহণ করা হয়েছে এছাড়াও ঘটনা জানার পর লম্পট যুবকের বিরুদ্ধে সালিশ বৈঠকের জন্য তার নামে নোটিশ জারী করা হলেও নোটিশ গ্রহণ না করে পলাতক থাকায় কোন ব্যবসা নিতে পারছেন না।

অভিযুক্ত যুবকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে যোগাযোগ করা যায়নি এমনকি তার পরিবারের সদস্যরাও এ ব্যাপারে কোন কথা বলতে রাজী হয়নি। এতিম মেয়েটির সাথে এমন আচরণের দায়ে লম্পট আল আমিনের শাস্তি দাবী করেছেন এলাকাবাসী ও সহপাঠীরা।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful