Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০ :: ১৫ চৈত্র ১৪২৬ :: সময়- ৬ : ১৯ অপরাহ্ন
Home / টপ নিউজ / রংপুরে সাদ এরশাদ নিয়ে ঘরে-বাইরে বিবাদ

রংপুরে সাদ এরশাদ নিয়ে ঘরে-বাইরে বিবাদ

মমিনুল ইসলাম রিপন: সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনে উপ-নির্বাচনকে ঘিরে জটিল সমীকরণের সম্মুখীন জাতীয় পার্টি। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে দলটির প্রার্থী চূড়ান্তকরণ নিয়ে ঘরে বাইবে চলছে নানা আলোচনা। আর এই আলোচনায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে রওশন এরশাদ পুত্র রাহগীর আল মাহি সাদ।

রংপুরে এরশাদের এই আসনে স্থানীয় জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে বাদ দিয়ে সাদ এরশাদকে মনোনয়ন দেয়ার ইঙ্গিতে ফুঁসে উঠেছেন এরশাদ পরিবারের একাংশ। বিক্ষুব্ধ তৃণমূল জাতীয় পার্টিও। বহিরাগত প্রার্থী ঠেকাতে মাঠে নেমেছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী এরশাদের ভাতিজা সাবেক এমপি হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ।

মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রংপুরের সেনপাড়া লাঙল ভবন থেকে বিশাল মিছিল নিয়ে বিক্ষোভ করেছে সাদ এরশাদ বিরোধী আসিফ শাহরিয়ারের কর্মী সমর্থকরা। মিছিলটি নিয়ে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাব চত্বরে গিয়ে সমাবেশ করেন।  এতে সাদ এরশাদকে রংপুরে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে আসিফের কর্মী-সমর্থকরা। সমাবেশে এরশাদের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ার বলেন, সাদ আমার ভাই। কিš‘ ওকে কেউ চিনে না। ওর কোনো পরিচিতি নেই। মানুষ ওকে অন্য চোখে দেখে। অনেকেই দাবি করেছেন সাদ এরশাদ পুত্র নয়। তাই আমি চাইব এমন প্রার্থী রংপুরে না দেয়াই ভালো।

এসময় তিনি বলেন, মানুষের মুখরোচক গল্প বন্ধ করতে সাদের ডিএনএ টেস্টের বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত। নইলে সাদকে নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি আরও বাড়বে।

এদিকে গতকাল সোমবার রাতে রংপুর সদর উপজেলার পালিচড়া হাটে ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি মতিন মিয়া ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক রায়হানুর রহমান রায়হানের এর নেতৃত্বে সাদ এরশাদের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে আসিফ শাহরিয়ারের কর্মী সমর্থকরা। এ সময় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা প্রতিবাদ করলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে । অন্যদিকে একই দিনে রাতে পাগলাপীর বন্দরেও সাদ এরশাদের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।

পাগলাপীরে সাদ এরশাদের কুশপুত্তলিকা দাহ

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় প্রার্থী ব্যতীত বহিরাগত প্রার্থীকে দল মনোনয়ন দিলে তার পক্ষে রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির নির্বাচনে মাঠে থাকবে না বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।
তিনি বলেন, ‘এখন আর আগের দিন নেই। যে কাউকে ধরে এনে হাত তুলে দিলে রংপুরবাসী তাকে ভোট দিবে। জন-সম্পৃক্ততা আছে, সাধারণ মানুষ যাকে চিনেন, সবার কাছে আস্থা-ভাজন এমন স্থানীয় প্রার্থী ছাড়া অন্য কাউকে মনোনয়ন দিলে পার্টির জন্য ক্ষতি হবে। দলের তৃণমূল নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা মাঠে থাকবে না। যারা বহিরাগতকে মনোনীত করবে, তাদেরকেই রংপুরে এসে তার পক্ষে ভোট করতে হবে। ’

১৪ জুলাই এরশাদের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য ঘোষিত হয়। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ অক্টোবর ভোট গ্রহণ হবে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর। যাচাই-বাছাই ১১ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১৬ সেপ্টেম্বর। ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৫ অক্টোবর।  রংপুর সদর উপজেলা ও সিটি কর্পোরেশন নিয়ে গঠিত এ আসনের মোট ভোটার ৪ লাখ ৪২ হাজার ৭২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ২১ হাজার ৩১০ জন এবং ২ লাখ ২০ হাজার ৭৬২ জন নারী ভোটার।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful