Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ :: ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ :: সময়- ৯ : ১১ পুর্বাহ্ন
Home / জাতীয় / কে এই আলোচিত এমপি বুবলী?

কে এই আলোচিত এমপি বুবলী?

ডেস্ক: ঢালিউড অভিনেত্রী শবনম বুবলী। বড় পর্দার এই তারকাকে চেনেন সবাই। কিন্তু সম্প্রতি তামান্না নুসরাত বুবলী নামের এক নারী বেশ আলোচনায় উঠে এসেছেন। অনেকেরই প্রশ্ন কে এই বুবলী?

তিনি আর কেউ নন, আওয়ামী লীগের নরসিংদী সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য। যিনি নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি পাস বলে নির্বাচনের হলফনামায় উল্লেখ করেছেন। এ যোগ্যতা আরও একটু বাড়িয়ে নিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ’তে ভর্তি হন তিনি। তবে সেখানে নিয়েছেন অনৈতিকতার আশ্রয়। তার হয়ে পরীক্ষা দিয়েছেন ভাড়াটে পরীক্ষার্থীরা। এ পর্যন্ত ৮ জন ভাড়াটে পরীক্ষার্থী তার হয়ে পরীক্ষা দিয়েছেন। এর মধ্যে এক প্রক্সি পরীক্ষার্থী ধরাও খেয়েছেন। আর এটি আলোচনায় আসলে নরসিংদী কলেজ কর্তৃপক্ষ বুবলির সব পরীক্ষা বাতিল করে তদন্ত কমিটি গঠন করে।

জানা যায়, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএ কোর্সে এ পর্যন্ত চারটি সেমিস্টার ও তেরোটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু তিনি একটিতেও অংশগ্রহণ করেননি। বরং তার পক্ষে একেক সময় একেক জন অংশ নিয়েছেন। আর এমপির প্রক্সি প্রার্থীকে সুবিধা দিতে পরীক্ষা কেন্দ্রসহ হল পাহারায় থাকতেন তার লোকজন। ভয়ে ছাত্র-শিক্ষক কেউই মুখ খুলতেন না। সর্বশেষ শুক্রবার পরীক্ষা দিতে এসে হাতে নাতে ধরা পড়েছেন প্রক্সি পরীক্ষার্থী।

নরসিংদিতে সরেজমিনে পরীক্ষার হলে সংসদ সদস্যের রোল নাম্বারের নির্দিষ্ট আসেন অন্য এক তরুণী বসে পরীক্ষা দিচ্ছেন। সেই পরীক্ষার্থীকে সাংবাদিকরা তার পরিচয় জানতে চাইলে তিনি দাবি করেন, তিনিই সংসদ সদস্য তামান্না নুসরাত বুবলী। তার পরিচয় কার্ডটি দেখতে চাইলে ওই পরীক্ষার্থী বলেন, ‘আইডি আনতে ভুলে গেছি।’ আইডি কার্ড ছাড়া কীভাবে একজন শিক্ষার্থীকে পরীক্ষায় বসতে দেয়া হলো এ প্রশ্ন করা হলে হল পরিদর্শক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আইডি কার্ড হারিয়ে গেছে বলে আমাদের জানিয়েছেন ওই পরীক্ষার্থী। প্রমাণ হিসেবে সে থানার সাধারণ ডায়েরির অনুলিপি নিয়ে এসেছে। তাই তাকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হচ্ছে।’

পরীক্ষায় অংশ নিতে এসে যে প্রক্সি পরীক্ষার্থী ধরা পড়েন তার নাম এশা। তাকে পরীক্ষার হল থেকে বহিষ্কার করা হয়। এমপি বুবলীর পরীক্ষা কিভাবে দিচ্ছেন তা জানতে চাইলেও সঠিক জবাব দিতে পারেননি তিনি। তবে এক পর্যায়ে জানিয়েছেন, বুবলীর হয়ে সর্বশেষ ৮ পরীক্ষায় ৮ জন অংশ নিয়েছেন। প্রক্সি পরীক্ষার বিষয়টি সবাই জানলেও বুবলি ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য হওয়ায় কেউ ভয়ে মুখ খুলতেন না।

এদিকে কেউ পরীক্ষা অসদুপায় অবলম্বন করলে তাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়ার নিয়ম থাকলেও প্রক্সি পরীক্ষার্থীর বেলায় তা করেনি কলেজ কর্তৃপক্ষ। বহিস্কারের পর প্রক্সি পরীক্ষার্থী হল থেকে স্বাভাবিকভাবেই বের হয়ে যান।

নরসিংদী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান আকন্দ বলেন, জালিয়াতির মাধ্যমে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া তামান্না নুসরাত বুবলীর সব পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। তাকে পরীক্ষা থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে জালিয়াতির বিষয়টি অনুসন্ধানে কলেজের পক্ষ থেকে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিকে ৭ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী নরসিংদী পৌরসভার প্রয়াত মেয়র ও সাবেক শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেনের স্ত্রী। তার দেবর কামরুজ্জামান কামরুল নরসিংদী পৌরসভার মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি। অপর দেবর শামীম নেওয়াজ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। পুরো পরিবারই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful