Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ৫ অগাস্ট, ২০২০ :: ২১ শ্রাবণ ১৪২৭ :: সময়- ৯ : ৪০ অপরাহ্ন
Home / রংপুর / রংপুরে ছয় হাজার মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে

রংপুরে ছয় হাজার মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে

মমিনুল ইসলাম রিপন: রংপুরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এবার ঈদগাহ্ মাঠ ও ময়দানে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত হচ্ছে না। বরং স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা মেনে রংপুর জেলায় প্রায় ছয় হাজার মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। ঈদের দিন সকাল আটটা থেকে দশটা পর্যন্ত মসজিদে মসজিদে এসব ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (২৪ মে) দুপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশন রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মো. মহিউদ্দিন চৌধুরী এতথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রংপুরে ঈদের প্রধান জামাত প্রতিবছর কালেক্টরেট ঈদগাহ্ ময়দানে অনুষ্ঠিত হতো। কিন্তু এ বছর করোনার বিস্তার রোধে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী ঈদগাহের পরিবর্তে মসজিদে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করার জন্য বলা হয়েছে। এজন্য প্রত্যেকটি মসজিদ কমিটি তাদের সুবিধাজনক সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামাত আদায়ের ব্যবস্থা করবেন।

এবার রংপুর কাচারি বাজার কোর্ট মসজিদে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে আটটায়। এতে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, সিটি মেয়রসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেবেন। প্রথম জামাতে স্থান সংকুলান না হলে সেখানে দ্বিতীয় জামাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এছাড়াও জেলার সবচেয়ে বড় মসজিদ কারামতিয়া জামে মসজিদে সকালে নয়টায়, নগরীর শাপলা চত্বর আশরাফিয়া জামে মসজিদে সাড়ে নয়টায়, সেনপাড়া জামে মসজিদে নয়টায়,
কামারপাড়া কুতুবিয়া জামে মসজিদে সাড়ে আটটায়, নিউ সেনপাড়া জামে মসজিদে আটটায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

রংপুর জেলায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয়ের সূত্র মতে, রংপুর মহানগরসহ জেলার আট উপজেলাতে ছোট-বড় মিলে ৫ হাজার ৯০টি তালিকাভুক্ত মসজিদ রয়েছে। এছাড়া বেশকিছু ওয়াক্তি মসজিদ এবং নির্মানাধীন নতুন মসজিদ রয়েছে, যা এখনো তালিকাভুক্ত হয়নি। সবমিলে প্রায় ছয় হাজার মসজিদ রয়েছে এই জেলায়।

এবার ঈদুল ফিতরের জামাত আদায় শেষে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্তিসহ দেশে শান্তি-সম্মৃদ্ধি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সম্প্রীতি কামনায় মোনাজাতে গুরুত্ব দেয়া হবে।  এছাড়াও মাদক, সন্ত্রাস, নাশকতা, জঙ্গিবাদ ও করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে  ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ার মাধ্যমে জনসচেতনতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করে মোনাজাত পরিচালনা করবেন ঈদ জামাতের খতিবগন।

এদিকে জেলার বিভিন্ন এলাকার মসজিদ কমিটি মাইকিং করে ঈদের জামাতে নামায় আদায় করতে হলে মুসল্লিদেরকে জায়নামাজ সঙ্গে নিয়ে আসাসহ বাড়ি থেকে ওজু করে আসতে বলছেন। এছাড়াও মুখে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দূরত্ব মানতে মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান করা হচ্ছে। একই সাথে শিশু, জ্বর, সর্দি, কাশি, হাঁচিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি ও অসুস্থ্য এবং বয়ষ্কদের মসজিদে আসতে নিষেধ করা হচ্ছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful