Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ৮ জুলাই, ২০২০ :: ২৪ আষাঢ় ১৪২৭ :: সময়- ৭ : ০৪ পুর্বাহ্ন
Home / বিনোদন / ছোট পর্দার পেছনের কারিগর আরিফিন

ছোট পর্দার পেছনের কারিগর আরিফিন

স্টাফ রিপোর্টার; নাটক, সিনেমা কিংবা লাইট ক্যামেরা একশনের কারসাজির ভক্ত কে ই বা হয়না? কমবেশি সবারই ভালোবাসার অংশের সাথে জুড়ে আছে লাইট ক্যামেরার দুনিয়া, সেই সূত্রেই আমরা পরিচিত অভিনেতার সাথে কিংবা নির্মাতার সাথে। এরা ছাড়াও প্রতিটি নির্মাণের সাথেই যুক্ত আছে কয়েক লাখো মানুষ, এদের সাথে কি আমরা পরিচিত? কিংবা জানি কি এদের গল্পটা?

জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘ব্যাচেলর পয়েন্টের সাথে কমবেশি সবাই পরিচিত, নির্মাতা কাজল আরেফিন অমিও অচেনা নয়, এই ব্যাচেলর পয়েন্টের পেছনের অন্যতম কারিগরের সাথে পরিচয় করানো যাক তবে। নাম আরিফিন, পুরোনাম আরিফিন সরকার। পেশায় একজন ভিডিও সম্পাদক। আরিফিনের কাজের সাথে কমবেশি আমরা সবাই পরিচিত কিন্তু তাকে চেনা হয়নি কখনো। দেশের নাটক জগতের পেশাদার ভিডিও সম্পাদক আরিফিন, সম্পাদনা করেছেন দেশের সাড়া জাগানো শত নাটকের পেছনের মানুষ হয়ে।

পেশাদার ভিডিও সম্পাদনার কাজের শুরুটা কীভাবে? ছোটবেলা থেকেই কম্পিউটারের প্রতি আরিফিনের আকর্ষণটা যেনো একটু বেশিই, আলাদা আগ্রহ কাজ করতো গ্রাফিক ডিজাইনের কাজে। আগ্রহকে কি আর ধরে রাখা যায়? একদিন একটি ইন্টারনেট মডেম জোগার করেই বসে পড়েন বিভিন্ন অনলাইনে টিউটোরিয়ালের পর্দার সামনে। পরবর্তীতে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েই ঢাকায় চলে আসেন কলেজের অধ্যায়ে। “ঢাকায় আসার পর থেকেই আমার উদ্দেশ্য ছিলো নাটক পরিচালকদের সাথে কাজ করা, এরইমধ্যে একদিন পরিচয় হই পেশাদার ভিডিও সম্পাদক রমজান আলীর সাথে, তাকে জানাই আমার আগ্রহের কথা। ব্যস! সুযোগ করে দেন কাজ করার।” বলেন আরিফিন।

২০১৪ সালে মিনার নামের একটি নাটকে প্রথম এনিমেশন এবং ভিএফএক্স এর কাজের মাধ্যমে শুরু হয় আরিফিনের অন্য ক্যারিয়ার গড়ার লড়াই, নাটকটির পরিচালক ছিলেন মাবরুর রশিদ বান্নাহ। পরবর্তীতে নির্মাতা বান্নাহর সাথে কাজ করেন প্রায় ১০০টি নাটকের টাইটেল এনিমেশন নিয়ে। নিজের ভিডিও সম্পাদনার দক্ষতা দেখিয়ে দেরি হয়নি সিনেমায় সুযোগ পেতেও। ২০১৫ সালে আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘কিস্তিমাত’ সিনেমা দিয়ে শুরু হয় আরিফিনের সিনেমার সাথে নতুন অধ্যায়। আশিকুর রহমানের সর্বশেষ সিনেমা ‘সুপারহিরো’ তেও এনিমেশন এবং ভিএফএক্স কাজ করেছিলেন আরিফিন। সুযোগকে যেনো ভুল করেননি কাজে লাগাতে, একের পর এক নির্মাতারা সাথে সুযোগ পান নিজের দক্ষতার পরিচয় দেওয়ার। কৌশিক শংকর দাস, তুহিন হোসেন, সাফায়েত মনসুর রানা, অনিমেষ আইচ, হিমেল আশরাফ, মোস্তফা কামাল রাজ, রাহাত মাহমুদ, হাসিব খান হয়ে বর্তমানে আরিফিন কাজ করছেন জনপ্রিয় নিমার্তা কাজল আরেফিন অমির সাথে।

২০১৯ সালে আরিফিনের বেশকয়েক্টি কাজ জনপ্রিয়তা পায় দেশজুড়ে। “এক্স বয়ফ্রেন্ড”, ‘এক্স গার্লফ্রেন্ড’, ‘এক্স ওয়াইফ’, পুলিশ দ্যা রিয়েল হিরো’, ‘টম এন্ড জেরি’, ‘ব্যাচেলর ঈদ’, ‘মিশন বরিশাল’ সহ আরো বেশকিছু নাটকের ভিডিও সম্পাদক ছিলেন আরিফিন। এপর্যন্ত ভিডিও সম্পাদনা ক্যারিয়ারে সম্পাদনা, কালার গ্রেডিং, অ্যানিমেশন ও ভিএফ এক্স সহ তিন শতাধিক নাটকের কাজে দায়িত্বে ছিলেন আরিফিন, যার অধিকাংশই সাড়া জাগিয়েছে বাংলা নাটকের জগতে। ২০১৯ সালেই অরিফিনের কাজ করা পাঁচটি নাটক অতিক্রম করেন এক কোটির বেশি ভিউ।

আরিফিন বলেন, ‘বর্তমানে বিভিন্ন নাটকের পাশাপাশি আরিফিন শুভর ‘মৃত্যুপুরী’ সিনেমার কালার গ্রেডিং এর কাজ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি, যেখানে আমার কালার গ্রেডিংসহ ভিএফএক্স ও এনিমেশনের কাজের দেখা মিলবে”।

আগামীর লক্ষ্যটা নিশ্চয়ই বড় পরিসরে? তাও জানিয়ে রাখলেন আরিফিন, “আমার আগামীর ইচ্ছাটাও ভিডিও সম্পাদনাকেই ঘিরে। ইচ্ছে আছে নিজের দক্ষতাকে আরো উন্নত করা এবং নিজের একটি টিম গঠন করা। যেখানে বিশ্বের দক্ষ সম্পাদক এবং ডিজাইনাররা মিলে একসাথে কাজ করবো। একাডেমিকভাবে ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি তে মাল্টিমিডিয়া ও ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি তে স্নাতকে অধ্যায়নরত আরিফিন। সময় পেলেই বসে পড়েন নতুন নতুন দক্ষতা অর্জনে। আরিফিনের শখের বিষয় অডিও ভিজুয়াল, এর প্রতি যেনো কাজ করে আলাদা আগ্রহ।

এছাড়া নিজের অবসর সময়ে প্রতিনিয়তই নানান দক্ষতার পরিচয় দিয়ে অর্জন করছেন বিভিন্ন কোর্সের সনদপত্র, ইতোমধ্যেই অনলাইন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার মাধ্যমে Blackmagic Design থেকে অফিশিয়ালি সার্টিফাইড কালারিস্ট এবং ভিডিও এডিটর হয়েছেন DaVinci Resolve এর উপর।ভিডিও সম্পাদনের কাজটা নিশ্চয়ই চ্যালেঞ্জিং? প্রশ্নের জবাবে আরিফিন বলেন, “প্রতিটি কাজই চ্যালেঞ্জিং, আমি সবসময় চ্যালেঞ্জিং কাজ করতে ভালোবাসি, এতেই হয়তো সাহস পাই নিজেকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে।”

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful