Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট, ২০২০ :: ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ :: সময়- ৫ : ৩৪ পুর্বাহ্ন
Home / নীলফামারী / নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ করোনা আক্রান্ত

নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ করোনা আক্রান্ত

নীলফামারী প্রতিনিধি॥ নীলফামারী পৌরসভার মেয়র, বাংলাদেশ মিউনিসিপালিটি অ্যাসোসিয়েশনের (ম্যাব) সভাপতি ও নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সেই সঙ্গে তার গাড়ী চালক রিপনও করোনা পজেটিভ হয়।
আজ রবিবার(৫ জুলাই/২০২০) সন্ধ্যায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের নমুনার পরীক্ষার রির্পোটে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।
এ দিন নীলফামারী জেলার ১০৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে নীলফামারী পৌর পরিষদ ও মেয়রের বাড়ীর সকল সদস্যের নমুনা ছিল। রির্পোটে দুইজনের পজেটিভ আসে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন।

জানা যায়, করোনা কালিন শুরু থেকে মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ ঘরে বসেছিলেন না। তিনি পৌর এলাকার এক প্রাপ্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছুটে চলেন। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে ছিল তার কার্যক্রম। এ ছাড়া মশা নিধনে নিজহাতে ফগার মেশিন, জীবনুনাশক স্প্রে, লিফলেট বিতরণ, পৌর শহরের বিভিন্ন স্থানে হাত ধোয়ার বেসিন ও এলাকার বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সালিশ বৈঠক পরিচালনা করছেন। এছাড়া গত ৩০ জুন তিনি নীলফামারী পৌরসভার ২০২০-২০২১ ইং অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার মাধ্যমে তার ৩২তম ওই বাজেট ঘোষণা করেন। এসময় তিনি ৬৭ কোটি ৮৭ লাখ তিন হাজার ৩৫ টাকার উম্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করেন। পাশাপশি সরকারের বরাদ্দকৃত ত্রাণ, শুকনো খাবার, শিশু খাদ্য এবং পৌরসভার পক্ষে লকডাউনে থাকা পরিবারগুলিকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন।
পারিবারিক সূত্র মতে, তিনি নিজ বাড়িতে আইসোলেশনের রয়েছেন এবং সুস্থ আছেন। পরিবারের পক্ষে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করা হয়েছে।

অপরদিকে গতকাল শনিবার(৪ জুলাই/২০২০) নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার, একই পৌরসভার স্যানিটারী ইন্সপেক্টর অহিদুল হক করোনা আক্রান্ত হন। তারাও নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন ও সুস্থ আছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্র মতে, নীলফামারী জেলায় সর্বমোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হলো ৪০৯ জন। এর মধ্যে সদরে রয়েছেন ১৩৯ জন, জলঢাকা উপজেলায় ৭৯ জন, ডিমলা উপজেলায় ৫২ জন, সৈয়দপুর উপজেলায় ৫৩ জন, ডোমার উপজেলায় ৪২ জন ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ৩৪ জন রয়েছেন। তবে আক্রান্তদের মধ্যে ২৯৩ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। মারা গেছেন ১ নারীসহ ৭ জন।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful