Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ৬ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ৬ : ৩৪ পুর্বাহ্ন
Home / গাইবান্ধা / পুনরায় নির্বাচনের দাবীতে সাদুল্যাপুরে আরডিআরএস এর ফেডারেশন কার্যালয়ে তালা

পুনরায় নির্বাচনের দাবীতে সাদুল্যাপুরে আরডিআরএস এর ফেডারেশন কার্যালয়ে তালা

জিল্লুর রহমান মন্ডল পলাশ, সাদুল্যাপুর ॥ বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আরডিআরএস বাংলাদেশ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়ন ফেডারেশন কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়েছে সদস্যরা। অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে ফেডারেশন নির্বাচন করায় এবং ওই নির্বাচিত কমিটি বাতিল করার দাবীতে গত সোমবার রাতে অফিস কক্ষসহ কয়েকটি কক্ষে তালা ঝুলায় ভুক্তভোগী পুরাতন সকল সদস্যরা। এদিকে তালা ঝুলানোকে কেন্দ্র করে ফেডারেশনের দু’গ্রুপের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, হত-দরিদ্রদের ক্ষমতায়ন ও উন্নয়নের লক্ষে ২০০৯ সালে সাদুল্যাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়ন ফেডারেশন যাত্রা শুরু করে। ফেডারেশনের আর্থিক যোগানসহ সার্বিক কর্মকান্ড-গুলো সুষ্ঠভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আরডিআরএস বাংলাদেশ। সেই থেকে ফেডারেশনের আওতায় এলাকার দরিদ্রদের উন্নয়নে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছিল। বিধিমালা অনুযায়ী পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে নতুন এডহক কমিটি গঠন এবং গত ১৯ ডিসেম্বর এডহক কমিটির সভায় নির্বাচনী বিধিসহ তফশিল ঘোষণা করা হয়। পরে নির্বাচনী নিয়মনীতি উপেক্ষা করে এডহক কমিটির সদস্যগণ ও আরডিআরএসের সিনিয়র ম্যানেজার জাহেদা বেগম যোগসাজশ করে অর্থের বিনিময়ে হাফিজুর রহমানকে সভাপতি ও ডা. এমদাদুল হক খুসিকে সাধারণ সম্পাদক করে প্রার্থীতা ঘোষণা করেন। যা সম্পূর্ণ নিয়মের বাহিরে বলে দাবী করেন ফেডারেশনের সদস্যরা। পরে এডহক কমিটির সুপারিশের মাধ্যমে মনগড়া ভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। ফলে ফেডারেশনের অনেক সদস্য ভোটে অংশ গ্রহণ করতে পারেনি। এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে ফেডারেশনের সদস্যদের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছিল। কিন্তু আরডিআরএসের উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নেওয়ায় সদস্যদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সদস্যরা ওই কমিটি বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন, অনিয়ম, দুর্নীতি এবং নিতিমালাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানো সিনিয়র ম্যানেজার জাহেদা বেগম ও ঘটনার সঙ্গে জড়িত সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবীতে ফেডারেশন কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন।

ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি হামিদুর রহমান জানান, সমাজসেবা কর্তৃক অনুমোদন-কৃত সদস্য তালিকায় অনেকের নাম নেই। কিন্তু তারপরেও তাদের নিয়ে এডহক কমিটি অনিয়মভাবে নির্বাচন পরিচালনা করেন। সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জানান, কাজের সন্ধানে অনেক সদস্য বাহিরে অবস্থান করছেন। এ সুযোগে অর্থের বিনিময়ে রেজিস্টার খাতায় এমদাদুল হকের নাম অন্তর্ভুক্ত করে তাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত দেখানো হয়েছে যা ফেডারেশনের নিয়মবহির্ভূত কাজ। আরডিআরএস সিনিয়র ম্যানেজার জাহেদা বেগম তার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, রেজিস্টারসহ সকল কাগজপত্র ফেডারেশন অফিসে থাকার কারণে হয়তো নামের তালিকায় কিছু অনিয়ম হতে পারে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful