Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০ :: ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৭ : ১৮ পুর্বাহ্ন
Home / রকমারি / চাকরি খোঁজা থেকে পাওয়া পর্যন্ত যে ৯টি বিষয় আবশ্যক

চাকরি খোঁজা থেকে পাওয়া পর্যন্ত যে ৯টি বিষয় আবশ্যক

job-search-conceptএকটি চাকরি খুঁজে বের করাটাই ফুল টাইম চাকরি হয়ে দাঁড়ায়। মনের মতো চাকরির খবর পেয়ে গেলেও তা পাওয়ার জন্য বিশাল বাছাইয়ের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। ইন্টারভিউয়ের চাপ তো রয়েছেই, সেইসঙ্গে চাকরিটি খোঁজা থেকে পাওয়া পর্যন্ত যে নয়টি বিষয় দারুণ সহায়তা করবে তা জেনে নিন।
১. নিখুঁত রিজ্যুমি
চাকরি পাওয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শর্তটি হলো একটি নিখুঁত রিজ্যুমি। আপনার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার বর্ণনাসহ নিজের বিষয়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো উপস্থাপন করাতে আদর্শ রিজ্যুমির রহস্য লুকিয়ে। ভালো হয়, যদি রিজ্যুমি প্রস্তুত করে পরিচিত কোনো এক্সপার্টকে দিয়ে দেখিয়ে নেন।
২. আত্মীয়-স্বজন
চাকরি পেতে আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুমহল যে কতো কাজে লাগে তা চিন্তাও করতে পারবেন না। আপনার একটি চাকরি প্রয়োজন তা জানিয়ে দিন। কাদের কারো না কারো কাছে কোনো না কোনো চাকরির খোঁজ রয়েছে। তারাই আপনাকে ভালো কোনো চাকরির খোঁজ দিতে পারবেন।
৩. উৎপাদনশীলতা
বিভিন্ন চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানে ঢুঁ মারলেও আপনার অভিজ্ঞতা বাড়বে যা ভবিষ্যতে আরো দক্ষ করে তুলবে। নতুন প্রতিষ্ঠানে যান এবং নতুনদের সঙ্গে কথা বলুন। চাকরি খোঁজার বেতনবিহীন চাকরিতে অনেক কিছু দেবে এই কাজটি।
৪. বিজ্ঞাপন
চাকরির খোঁজ দেয় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা এবং অনলাইন। বিশেষ করে শুধুমাত্র চাকরির খোঁজ দেওয়া কোনো প্রচারমাধ্যম থাকলে তাতে নিয়মিত চোখ রাখুন। এসব উৎস থেকে প্রচুর চাকরির খবর জেনে যাবেন।
৫. পরিচিতজনের তালিকা
যতো জায়গায় চাকরির খোঁজে গিয়েছেন এবং যতো মানুষের সঙ্গে পরিচিত হয়েছেন তাদের সবার যোগাযোগের ব্যবস্থা সম্পর্কে তালিকা করুন। যে সকল স্থানে রিজ্যুমি দিয়েছেন তাদের আপডেটের বিষয়ে খোঁজ রাখুন। পাশাপাশি যে সব স্থানে পরে চেষ্টা করবেন তাদেরও তালিকা রাখুন।
৬. লক্ষ্য
কাজের খোঁজে লক্ষ্য স্থির করে নামাটা অত্যন্ত জরুরি কাজ। কোনো প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্য করে কাজে নামলে তা আপনাকে আরো উদ্বুদ্ধ করবে। একই সঙ্গে প্রতি সপ্তাহে অন্তত কয়টি রিজ্যুমি কয়টি প্রতিষ্ঠানে পাঠাবেন তাও লক্ষ্য হিসেবে নিন। তাতে কাজ আরো গোছালো হবে।
৭. স্বেচ্ছাশ্রম
যে খাতে চাকরি করতে চান, ছোটখাটো কোনো প্রতিষ্ঠানে বিনা বেতনে কাজ করে অভিজ্ঞতা ঝালিয়ে নিতে পারেন। যখন কোনো চাকরিদাতা আপনার রিজ্যুমিতে চোখ দেবেন, তখন আপনার অভিজ্ঞতার ঘরটি তার আগ্রহ সৃষ্টি করবে। এ ক্ষেত্রে পার্ট-টাইম চাকরি ব্যাপক সহায়তা দেবে।
৮. চর্চা
যতোদিন কোনো ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাক না পান, ততো দিন এ সংক্রান্ত প্রস্তুতি ঝালিয়ে নিন। প্রেজেন্টেশন বা কথা বলার চর্চা চালিয়ে যান। প্রয়োজনে পরিবারের কারো সহায়তা নিন। এতে দক্ষতা বাড়বে এবং ইন্টারভিউয়ে অংশ নেওয়া সহজ মনে হবে।
৯. ইতিবাচক মনমানসিকতা
যেভাবে ফলাফল পেতে চান তা না ঘটলে মনটাই ভেঙে যায়। কিন্তু তাতে হতাশ হলে চলবে না। ব্যর্থতার কারণ বের করে তা ঝালাই করে নিন। মনে রাখবেন, আপনার মনের মতো চাকরিটি ঠিকই রয়েছে। আপনাকে শুধু তা খুঁজে বের করে নিতে হবে। এ জন্য সময় লাগতে পারে এবং সুষ্ঠুভাবে সে সময়টি আপনাকে দিতে হবে।

এই নয়টি বিষয় নিজের মধ্যে ধারণ করুন। চাকরি পাওয়াটা সময়ের ব্যাপার বলে মনে হবে। প্রায় সময় চাকরি খোঁজাটা ক্লান্তিকর হয়ে উঠবে। তখন নিজেকে একটু সময় দিন, আবার চনমনে হয়ে উঠবে মন। সূত্র : ইন্টারনেট

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful