Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০ :: ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৫ : ৩৬ অপরাহ্ন
Home / আলোচিত / সরকারের সঙ্গে সমঝোতায় পাঁচ শর্ত জামায়াতের

সরকারের সঙ্গে সমঝোতায় পাঁচ শর্ত জামায়াতের

jamat a ligরাজনৈতিক মহলে আবারো গুঞ্জন উঠেছে, সরকারের সঙ্গে জামায়াতের সমঝোতার চেষ্টা চলছে। দলটির নায়েবে আমির মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আপিল বিভাগের রায়কে ঘিরেই এমন গুঞ্জন উঠেছে।

মিডিয়ার সঙ্গে জামায়াত নেতারা যোগাযোগ না রাখায় এ গুজব-গুঞ্জনের নানা ডালপালা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে। জোটের প্রধান শরিক বিএনপিও অনেকটা অস্বস্তি বোধ করছে এই গুঞ্জনে। সরকারও এ বিষয়ে কোনো কথা বলছে না। তবে সম্ভাব্য মধ্যবর্তী নির্বাচনকে ঘিরে নীরবে কিছু একটা হচ্ছে বা চেষ্টা চলছে এমন ধারণা অনেকের। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ অতিগোপনে অভিযুক্ত জামায়াতের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র। আর এতে তারা বিদেশিদের সহায়তা নিচ্ছে।

জামায়াতকে ‘ম্যানেজ’ করতে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী। আর জামায়াতের পক্ষে কাজ করছেন দলটির সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক। জামায়াতে ইসলামীর প্রকাশ্য কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নেই বর্তমানে। অনেক দিন ধরে বিএনপির সঙ্গে জামায়াতের জোটগত কোনো কর্মসূচিও নেই। কয়েকটি শর্তে জামায়াত সরকারের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করছে। এ লক্ষ্যে সরকারপক্ষের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেশে-বিদেশে জামায়াত নেতাদের দেনদরবারও চলছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। আর এসব নিয়ে জামায়াতকে সন্দেহের চোখে দেখছে মিত্র দল বিএনপি। মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতের বিচার নিয়ে আইনমন্ত্রীর সাম্প্রতিক বক্তব্যের পর জামায়াতের ভূমিকা নিয়ে বিএনপি ও এর নেতৃত্বাধীন জোটের অন্য শরিক দলগুলোর মধ্যে সন্দেহ আরো বেড়েছে। বিএনপি, জামায়াত ও তাদের মিত্র কয়েকটি দলের বেশ কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিকে, গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকারও বলেছেন, জামায়াতের বিচার প্রশ্নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আইনমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হকের বক্তব্যে বোঝা যায় সরকার ও জামায়াতের মধ্যে আপসকামিতার পথ তৈরি হয়েছে। আমরা আশঙ্কা করছি সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার থেকে সরে যাচ্ছে।

ডা. ইমরান বলেন, আইনমন্ত্রীর বক্তব্য পরস্পরবিরোধী। তিনি ২০১৩ সালের ১৮ই ফেব্রুয়ারি বলেছিলেন, এ আইনের মাধ্যমেই জামায়াতের বিচার করা সম্ভব। আর এখন বলছেন, বর্তমান আইনে বিচার করা সম্ভব নয়। এতে বোঝা যায় সরকার ও জামায়াতের মধ্যে একটা সমঝোতার পথ তৈরি হয়েছে। এখনই আমরা স্পষ্টভাবে বলছি না যে, তাদের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে। এখন পর্যন্ত আমরা আশঙ্কাই করছি।

তবে, জামায়াতের মধ্যম সারির এক নেতা জানান, দলের অস্তিত্ব ও শীর্ষস্থানীয় নেতাদের রক্ষা করতে সম্প্রতি সরকারের সঙ্গে কয়েকবার সমঝোতার চেষ্টা করা হয়েছে। এ নিয়ে শুধু দেশে নয়, বিদেশেও সরকারের প্রতিনিধির সঙ্গে দেনদরবার চলছে। এ ক্ষেত্রে পাঁচটি শর্ত দিয়েছে জামায়াত। দাবিগুলো হচ্ছে- মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের মুক্তি দেওয়া, জামায়াত নেতা-কর্মীদের নামে দায়ের করা অন্যান্য মামলা প্রত্যাহার করা, নির্বিঘ্নে রাজনীতি ও নির্বাচন করার সুযোগ দেওয়া, মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার না চালানো এবং দলটির আর্থিক প্রতিষ্ঠান বাজেয়াপ্ত না করা। বেঙ্গলি টাইমস

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful