Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২০ :: ৪ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৯ : ৩০ অপরাহ্ন
Home / দিনাজপুর / দিনাজপুরে কোটি কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি ৪৩ বছর ধরে পরিত্যক্ত

দিনাজপুরে কোটি কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি ৪৩ বছর ধরে পরিত্যক্ত

Jala Porisod Dinajpurকুরবান আলী, দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে কোটি কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি ৪৩ বছর ধরে পরিত্যক্ত লক্ষলক্ষ টাকার রাজস্ব সরকার। বীরগঞ্জ থানা গঠনকালে ১৮৯০ইং সালে ১৮৭ টি মৌজার জনগনের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে তৎকালিন ইংরেজ সরকারের সময় জেলা পরিষদ থানা সংলগ্ন ২ দশমিক ৩৭ একর জমিতে একটি ডিস্পেনচারী, একটি এমবিবিএস ডাক্তারের কোয়াটার, একটি কম্পাউন্ডার কোয়াটার নির্মানের মধ্য দিয়ে স্বাস্থ্য কেন্দ্র স্থাপন করে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। স্বাধীনতা যুদ্ধের পর ৩১ শর্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নির্মান করে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নির্মানের পর পুরাতন কমপ্লেক্স পরিত্যাক্ত হয়। দীর্ঘদিন পরিত্যাক্ত থাকার পর লুটেরা বাহিনীর সদস্যরা ইট, টিন, কাঠ,লোহার পিলারসহ যাবতীয় মালামল লুট করে কমপ্লেক্সটি নিশ্চিহৃ করে দেওয়া হয়।

এমবিবিএস কোয়াটার উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয় ও কম্পাউন্ডার কোয়াটার কুষ্ঠ চিকিৎসা কেন্দ্র হিসেবে ব্যাবহার করা হচ্ছিল। দীর্ঘদিন তাদের দখলে থাকার পর জেলা পরিষদ দরপত্র বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কোয়াটার দু’টি বিক্রয় করে জায়গা খালি করা হয়।

অবশিষ্ট ফাঁকা মাঠ পরিত্যাক্ত হওয়ায় এলাকার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক ব্যাবসায়ী সরকারী সম্পত্তির পূর্ব ও দক্ষিন বাহু দখল করে অবৈধ ভাবে ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান নির্মান করে ভোগ দখলে আছে। স্বাধীনতার পর থেকে সরকার বদল হলেই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। বর্তমান সরকার এখন পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেনি। স্বাধীনতার পর বারবার উচ্ছেদ অভিযানে হাজার হাজার ব্যাবসায়ীর ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের কারনে লক্ষ লক্ষ টাকা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

এছাড়াও জেলা পরিষদের কিছু অসৎ কর্মচারী মাকের্টে দোকান বরাদ্দ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অসহায় ব্যাবসায়ীদের কাছে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বারবার। এলাকার হাজার হাজার মানুষ জেলা পরিষদের কাছে বহুতল সুপার মার্কেট নির্মানের দাবী তোলে কিন্তু জনতার দাবী পুরন হয়নি ৪৩ বছরেও। বর্তমান সরকারের সময়ে জেলা পরিষদ বহুতল সুপার মার্কেট নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহন করে। দিনাজপুর-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মনেরঞ্জন শীল গোপাল গত ২৬ অক্টোবর/২০১০ জেলা পরিষদের “বহুতল সুপার মার্কেট” নির্মানের ভিত্তি প্রস্তর আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্ধোধন করে মিষ্টি বিতরন করেন।

প্রায় ২৫ কোটি টাকা ব্যায়ে বহুতল সুপার মার্কেটের ডিজাইন ও প্লান তৈরী করে পরিত্যাক্ত ডাক্তার খানার মাঠ পরিস্কারের জন্য হাজার বছরের পুরাতন আমগাছ গুলো কেটে ফেলা হয়। দিনাজপুর জেলা পরিষদ চলতি বছরের মার্চ মাসে ৩-তলা প্লান তৈরী করা হয়। ১ম তালায় ১৮৯টি দোকান, ২য় তালায় ২০০টি দোকান ও ৩য় তালায় অফিস, বীমা, ব্যাংক ১২ হাজার বর্গফুট বরাদ্দ গ্রহনের জন্য র্নিধারিত ফরমে দরখাস্ত আহবান করা হয়। প্রতিটি ফরম অফেরৎযোগ্য ১০০০/-টাকা শতাধিক ফরম বিক্রি কর হয়। শর্ত মোতাবেক প্রথম কিস্তির ৫০ হাজার টাকা এককালিন জামানত গ্রহন করা হয়। কিন্তু পরিতাপের বিষয় হচ্ছে যে ৬ বছর পেরিয়ে গেলেও মার্কেট নিমার্নের টেন্ডার আহবান করা হচ্ছে না।

দিনাজপুর জেলা পরিষদ কার্যালয়ে গিয়ে প্রশাসক মোঃ আজিজুল ইমাম চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, টোটাল মার্কেট এক ছাদে হওয়ায় পরর্বতীতে পর্যাপ্ত আলো বাতাসের সমস্যার কথা বিবেচনা করে নুতন ভাবে ডিজাইন করতে সামান্য বিলম্ব হচ্ছে। তিনি নিশ্চতভাবে জানান অবিলম্বে বহুতল সুপার মার্কেট নির্মান কাজ শুরু হবে বলে আস্বস্থ করেন।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful