Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১২ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ১০ : ৪৫ অপরাহ্ন
Home / টপ নিউজ / ফলোআপ: নীলফামারীতে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড়

ফলোআপ: নীলফামারীতে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড়

তাহমিন হক ববি, নীলফামারী থেকে॥নীলফামারী জেলা সদরের চড়াইখোলা বসুনিয়াপাড়ায় শুক্রবার রাতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ১২ বছরের এক কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনায় নীলফামারীতে তোলপাড় চলছে। বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা সহ বিভিন্ন সংগঠন ধর্ষকদের গ্রেফতারর ও ফাঁসির দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছে।
এদিকে পুলিশ ২ বখাটে ধর্ষক কে রবিবারও গ্রেফতার করতে পারেনি । শুক্রবার রাতে ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী বর্তমানে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অবস্থিত মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর পরিচালিত ওসিসি ওয়ার্ডে (ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার) ডাঃ শারমিন খানের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। রবিবার সেখানেই কিশোরীটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানানো হয়েছে।

সূত্রমতে পালাক্রমে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। সেখানে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আওতায় কিশোরীটির সরকারি খরচে সকল প্রকার চিকিৎসার সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে ।
এ ঘটনার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নীলফামারী থানার এসআই নজরুল ইসলাম জানান, রবিবার দুপুরে রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধীন কিশোরীটির জবানবন্দি গ্রহণ করা হয়েছে। মেয়েটি গ্রামের প্রতিবেশী আব্দুল জলিলের ছেলে আবু সাঈদ (২০) ও কালু মাহমুদের বখাটে ছেলে মুকুল হোসেন((২১) তার মুখ চেপে গ্রামের অদূরে একটি ব্রীজের কাছে নিয়ে যায়। সেখানে দুই বখাটে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে বলে জবানবন্দি দেয়।
এদিকে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের নীলফামারীর জেলা সভাপতি এলএন রোকেয়া জানান, এ ঘটনায় তারা প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে। ধর্ষক দুইজনের গ্রেফতার ও ফাঁসীর দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে।

নীলফামারীর মানবাধিকার কর্মী এ্যাডঃ জাহাঙ্গীর আলম সাগর বলেন এ ঘটনায় ধর্ষিতা মেয়েটিকে সকল প্রকার আইনি সহায়তা প্রদান করা হবে। পাশাপাশি মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষে ধর্ষকদের গ্রেফতার ও ফাঁসীর জন্য মানব-বন্ধন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনার পাশাপাশি সারা দেশে ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় টিআইবির সচেতন নাগরিক কমিটি নীলফামারী জেলা শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে মোমবাতি প্রজ্বলিত করে মানব-বন্ধন কর্মসূচী পালন করে। এখানে সনাকের জেলা সভাপতি অধ্যাপক নরেশ চন্দ্র রায় বক্তব্য রাখেন।
ধর্ষিতা কিশোরীর চাচা সাদেকুল ইসলাম বলেন, রাত সারে আটটার দিকে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার পর প্রায় এক ঘণ্টা পর বিদ্যুৎ আসে। এ সময় গ্রামের সফিকুলের মেয়ের বিয়ের আসরে দোয়া হচ্ছিল। ওই সময় প্রতিবেশী খলিলুর রহমান তার ভাতিজা আবু সাঈদ ও মুকুলকে মারপিট করছিল। আমি তাদের মারপিটের কারণ জানার চেষ্টা করি। কিন্তু তারা আমাকে কিছু বলছিলনা। এ সময় ধর্ষণের শিকার হওয়া মেয়ের মা আমার ভাবী আমিনা বেগম আমাকে ডেকে বলে মুকুল আর সাঈদ মেয়েটার অবস্থা শেষ করে দিয়েছে। পাশে দেখি রক্তাক্ত ও অচেতন অবস্থায় মেয়েটি পড়ে আছে। বিয়ের অনুষ্ঠান ফেলে আমরা প্রতিবেশী দুইজনের সহযোগিতায় মোটরসাইকেল যোগে মেয়েটিকে নীলফামারী হাসপাতালে ভর্তি করাই। ডাক্তারদের পরামর্শে রাতেই সেখান থেকে তাকে রংপুর চিকিৎসা মহাবিদ্যায় হাসপাতালে নেওয়া হয়।
নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডাঃ ফজলুল হক বলেন,মেয়েটি ধর্ষণের শিকার হয়ে শুক্রবার রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে ভর্তি হয়। গনধর্ষনের কারণে তার অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের আশংকাজনক অবস্থায় প্রাথমিক চিকিৎসার পর রাতেই তাকে রংপুর চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।
এ ব্যাপারে কথা বললে চড়াইখোলা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ মোল্লা বলেন ঘটনাটি ন্যক্কারজনক। এদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন।
নীলফামারীর থানার ওসি আবু আক্কাস বলে এ ঘটনায় মেয়েটির চাচাতো ভাই আশিকুর রহমান বাদী হয়ে শুক্রবার বিকালে মামলা করেছে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধিত ) ০৩, ৭/৯(১) /৩০ ধারায়। আসামী দুজনকে গ্রেফতারে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful