Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ৫ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ৬ : ৫৯ অপরাহ্ন
Home / টপ নিউজ / স্থানীয় সরকার সচিবকে দশ দিনের আল্টিমেটাম দিলেন মেয়র ঝন্টু

স্থানীয় সরকার সচিবকে দশ দিনের আল্টিমেটাম দিলেন মেয়র ঝন্টু

স্টাফ রিপোর্টার: শ্যামাসুন্দরী খাল সংস্কারের নথিপত্রসহ উন্নয়ন ফান্ড আবার রংপুর সিটি করপোরেশনের ফেরতের জন্য স্থানীয় সরকার সচিবকে দশদিনের সময় দিলেন রংপুরের নবনির্বাচিত মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।

তিনি বৃহস্পতিবার স্থানীয় পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে সিটি করপোরেশন নিয়ে ষড়যন্ত্র এবং অনিয়ম-দূর্ণীতির বিরুদ্ধে ডাকা এক বিশাল জনসভায় এ আল্টিমেটাম দেন।

এই সময়ের মধ্যে অর্থ ফেরত দেয়া না হলে এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণের ব্যবস্থা করা না হলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু আলম শহীদ খানকে রংপুরে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হবে বলেও তিনি ঘোষণা দেন।
গত ২০ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার এক মাসেরও বেশী সময় পর এখনো শপথ নিতে পারেন নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলররা। স্থানীয় সরকার সচিব ষড়যন্ত্র করে শপথ আটকে রেখেছেন এবং মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ বিলম্বিত করে সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ নিজের আত্মীয়-স্বজনের মাধ্যমে দুর্নীতি করে করা হচ্ছে বলে বলে জনসভায় অভিযোগ তোলা হয়।
সিটি করপোরেশন পরিষদ আয়োজিত এই জনসভায় মেয়র ঝন্টু বলেন, অবৈধ কাজ বৈধ করতে প্রধানমন্ত্রীকে অন্ধকারে রেখে রংপুরের উন্নয়ন বরাদ্দের টাকা সাবেক মেয়র আব্দুর বউফ মানিককে সাথে নিয়ে সচিব এবং তার আত্মীয় স্বজনরা লুটপাট করে খাচ্ছে। নবনির্বাচিত কাউন্সিলর জহুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে জনসভায় তিনি আরো বলেন, সাধারণ মানুষ ভোট দিয়েছে সেবা করার জন্য, আন্দোলন করার জন্য নয়। কিন্তু দুর্ণীতিবাজ এই আমলার জন্য শুরুতেই উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। রংপুরের মানুষ এর উচিত জবাব দিবে।

তিনি বলেন ,আমি নির্বাচিত হওয়ার পর দেখেছি রংপুরের উন্নয়নের যেসব কাজকর্ম হচ্ছে, তা নিম্নমানের। সেজন্য জনগনের চাওয়া অনুযায়ী সেগুলো আমি বন্ধ করেছি। এসব কাজ বন্ধ করার পর তারা দেখেছে তদন্ত হলে থলের বিড়াল বেরিয়ে পড়বে। এজন্য সচিব তড়িঘড়ি করে টাকা ও ফাইল সরিয়ে নিয়েছে।
শপথ গ্রহনের আগেই মৌখিক নির্দেশে উন্নয়ন কাজ বন্ধ করার বিষয়ে মেয়র বলেন ‘ যে চারটি ব্রীজ নির্মাণ করা হচ্ছিল তা ১২ ভাগ লেসে ওয়ার্ক অর্ডার দেয়া হয়। কাজ নিম্ন মানের হচ্ছিল। সেকারণে জনগনের চাওয়া অনুযায়ী আমি মৌখিক নির্দেশ দিয়েছি। তা ছাড়া অফিসার কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও চাচ্ছিল না এভাবে কাজ হোক।
জনসভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নবনির্বাচিত কাউন্সিলর শাহজালাল করিম বকুল, সাফিউল ইসলাম, আবদুল কাদের, আকরাম হোসেন, ফজলে এলাহী, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাফিজা খাতুন, জাফরিন ইসলাম রিপা, মহানগর আওয়ামীলীগের সহসভাপতি দেলোয়ার হোসেন তালুকদার, জেলা দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মিলন প্রমুখ।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful