Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ :: ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ :: সময়- ৩ : ০১ অপরাহ্ন
Home / বিনোদন / রাজনীতিতে তারকারা

রাজনীতিতে তারকারা

শোবিজ তারকাদের রাজনীতিতে অংশগ্রহণ নতুন কোনো ঘটনা নয়। ইউরোপ, আমেরিকা এবং এশিয়ার দেশগুলোতে সচরাচর শোবিজ তারকারা রাজনীতিতে অংশ নিয়ে থাকেন। একই ধারাবাহিকতা চলে আসছে বাংলাদেশেও। এখানে যেসব তারকা রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজনের তালিকা তুলে ধরেছেন- আলাউদ্দীন মাজিদ

starকবরী

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে। আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে নবম জাতীয় সংসদে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে নির্বাচন করেন এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। কবরী বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে রাজনীতিতে আসা। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের কল্যাণ করাও রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হওয়ার মূল লক্ষ্য তার।

গাজী মাজহারুল আনোয়ার

প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ও গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সরকারের সময়। বর্তমানে বিএনপির অঙ্গ সংগঠন জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংগঠন জাসাসের সভাপতি তিনি। তার ভাষ্য- বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে বিএনপিতে যোগ দিয়েছি। এখন এই দলের অধীনে সাংস্কৃতিক জগতের উন্নয়নে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

মাসুদ পারভেজ

প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার মাসুদ পারভেজ কলেজজীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধেও অংশগ্রহণ করেন তিনি। কিন্তু আওয়ামী লীগে বর্তমানে ত্যাগী ও যোগ্য নেতা বা কর্মীদের মূল্যায়ন নেই, এ হতাশা ব্যক্ত করে গত বছর জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন এবং পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য পদে অধিষ্ঠিত হন।

আসাদুজ্জামান নূর

অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছেন। বর্তমান সংস্কৃতিমন্ত্রী তিনি। ২০০৮ সালে দলের মনোনয়ন নিয়ে প্রথম সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন এবং নীলফামারী-২ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালেও একই আসন থেকে নির্বাচনে জয়লাভ করেন তিনি।

আমজাদ হোসেন

চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না থাকলেও দীর্ঘদিন ধরে বিএনপিকে সমর্থন দিয়ে আসছেন তিনি। দলটির বিভিন্ন কর্মসূচিতে প্রায় নিয়মিত অংশ নিতে দেখা যায় তাকে। তার কথায় শহীদ জিয়ার আদর্শের রাজনীতিতে বিশ্বাসী আমি।

এটিএম শামসুজ্জামান

অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। নানাভাবে দলটিকে সমর্থন দিয়ে আসছেন এবং দলের নানা কর্মকাণ্ডে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়েই মূলত আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন এই অভিনেতা। এখনো তিনি আওয়ামী লীগের ওপর আস্থা রেখেছেন।

উজ্জ্বল

অভিনেতা উজ্জ্বল বিএনপির প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দলটিকে সমর্থন দিয়ে আসছেন। দলের কর্মকাণ্ডে সক্রিয় অংশগ্রহণও রয়েছে তার। মূলত প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের বহুদলীয় গণতন্ত্র এবং উন্নয়নের রাজনীতির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়েই দলটির সঙ্গে যুক্ত হন তিনি।

রুবেল

চলচ্চিত্রকার রুবেল প্রত্যক্ষভাবে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না থাকলেও বরাবরই আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে সমর্থন দিয়ে আসছেন। বঙ্গবন্ধুর দেশ গড়ার চার মূলমন্ত্র তাকে এই দলটির প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে। চলচ্চিত্র জীবনের ব্যস্ততার পাশাপাশি দলটির বিভিন্ন কর্মসূচিতেও অংশগ্রহণ রয়েছে তার।

সুজাতা

সিনিয়র অভিনেত্রী সুজাতা গত বছর আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। দশম জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে যোগ দেওয়ার অভিপ্রায়ও ব্যক্ত করেন তিনি। সংসদে যোগ দিতে না পারলেও আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সক্রিয় রয়েছেন তিনি।

রত্না

চিত্রনায়িকা রত্না গতবছর আওয়ামী লীগে যোগ দেন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনের জন্য মনোনয়নের আবেদনও করেন তিনি। মনোনয়ন না পেলেও এখনো এই দলের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তিনি।

ফারুক

চিত্রনায়ক ফারুক ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত আছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে মুক্তিযুদ্ধেও অংশ নেন তিনি। বর্তমানে সক্রিয়ভাবেই দলটির সঙ্গে যুক্ত আছেন। নির্বাচনে অংশ নেওয়ারও ইচ্ছা রয়েছে এ অভিনেতার।

তারানা হালিম

অভিনেত্রী তারানা হালিম দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছেন। ২০০৮ সালে সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হন তিনি। রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার কারণে শোবিজ জগৎ থেকে বর্তমানে দূরে রয়েছেন তিনি। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি তিনি।

মমতাজ

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম বিএনপিতে যোগদানের মাধ্যমে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন। কিন্তু ২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। দলটি ক্ষমতায় আসার পর সংরক্ষিত মহিলা আসনে সংসদ সদস্য করা হয় তাকে। বর্তমানে রাজনীতি ও গান দুই জগতেই সমান বিচরণ রয়েছে তার।

আসিফ আকবর

এক সময় রাজনীতির জন্যই গান ছেড়েছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আসিফ। পরে ভক্তদের অনুরোধে আবার গানে ফেরেন তিনি। তবে এখনো দলের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে সম্পৃক্ত রয়েছেন তিনি।

মনির খান

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মনির খান দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন। দলের অঙ্গ-সংগঠন জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংগঠন জাসাসের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

কনকচাঁপা

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন। এর আগে অবশ্য আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সূত্র মতে, ২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়ন না পেয়ে হতাশ হয়েই বিএনপিতে তার যোগদান।

বেবী নাজনীন

কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন সরাসরি বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। তিনি জিয়াউর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন।

বাংলাদেশ প্রতিদিন

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful