Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২০ :: ১১ মাঘ ১৪২৬ :: সময়- ১ : ২৫ পুর্বাহ্ন
Home / পঞ্চগড় / সোয়াইন ফ্লু ঝুকিতে পঞ্চগড়

সোয়াইন ফ্লু ঝুকিতে পঞ্চগড়

swinflu soyenডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড়: প্রতিবেশী দেশ ভারতে সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুকিতে রয়েছে দেশের সর্ব উত্তরের প্রান্তিক ও তিন দিক থেকে ভারত বেষ্টিত জেলা পঞ্চগড়। ভারতের সীমান্ত সংলগ্ন জেলা হিসেবে পঞ্চগড় সোয়াইন ফ্লু ঝুকিতে থাকলেও বাস্তবে তা প্রতিরোধে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তেমন কোন তৎপরতা নেই। পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ভারত, নেপাল ও ভূটানের সাথে বাণিজ্য কার্যক্রম চালু থাকায় ভারতের মানুষ বন্দরে নিয়মিত আসা যাওয়া করে। কিন্তু বন্দরের জিরো পয়েন্টে ভারত থেকে আগতদের সোয়াইন ফ্লু শনাক্ত করার জন্য একটি মেডিক্যাল টিম বসানো কথা থাকলেও তা এখন পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে সোয়াইন ফ্লু ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়ায় ভারতের নিকটবর্তী হওয়ায় পঞ্চগড় জেলার সাধারণ মানুষ সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুকিতে রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তেমন কোন তৎপরতা লক্ষ করা যায় নি।

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে প্রতিদিন মালামাল নিয়ে ৪ থেকে ৫’শ ভারতীয় নাগরিক আসা যাওয়া করে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন সীমান্ত চোরাইপথে নিয়ে গরু ব্যবসায়ীসহ চোরাকারবারিরা নিয়মিত আসা যাওয়া করে বলে জানিয়েছে সীমান্তে স্থানীয় লোকজন। চোরাই পথে আসা লোকজনদের নিয়েই শঙ্কায় আছেন সংশ্লীষ্টরা।

বন্দরেও সোয়াইন ফ্লু শনাক্ত করতে ‘থার্মাল স্ক্যানার’ ও রেডইন্টার থার্মোমিটার নিয়ে ভারত থেকে আগত আমদানি রফতানির পণ্যবাহী ট্রাকের চালক, সহযোগী ও খালসিদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ৫ সদস্যের একটি মেডিক্যাল টিম বসানো হয়েছে বলে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানানো হলেও বাস্তবে বন্দরে কোন প্রকার মেডিক্যাল টিম বসানো হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন বন্দরে অবস্থানরত সিএন্ডএফ ব্যবসায়ী নাহিরুল ইসলাম ও মোজাফ্ফর হোসেন। ফলে সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস জেলার অভ্যন্তরে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। অপরদিকে সোয়াইন ফøু শনাক্তকারী যন্ত্র ও চিকিৎসা সরঞ্জামের সংকট রয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ।

এছাড়াও জেলার প্রত্যেক ইউনিয়নে একটি করে কমিটি করার কথা থাকলেও পঞ্চগড়ে কোন প্রকার কমিটি করা হয়নি। সচেতনতা বৃদ্ধিতে বন্দরের ব্যবসায়ীদের সাথে সোয়াইন ফ্লু নিয়ে কোন মতবিনিময় করা হয়নি বলেও জানান সিএন্ডএফ ব্যবসায়ীরা।

জেলার প্রত্যেক উপজেলা ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে সোয়াইন ফ্লু সম্পর্কে সতর্ক থাকার বিষয়ে অবহিত করা হলেও এখন পর্যন্ত সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস শনাক্ত করার বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

পঞ্চগড় সিভিল সার্জন ডা. মো. আহাদ আলী জানান, সীমান্ত জেলা হিসেবে পঞ্চগড় সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুকিতে রয়েছে। আমরা উর্ধ্বতন কর্তপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। এতে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। এ পর্যন্ত জেলায় সোয়াইন ফ্লু আক্রান্ত রোগীকে শনাক্ত করা যায়নি। বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ১ জন স্বাস্থ্য পরিদর্শন ও ১ জন সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শনসহ ৫ সদস্যের মেডিক্যাল টিম ভারত থেকে আগত মানুষদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও সোয়াইন ফ্লু শনাক্ত আছে কিনা তা পরীক্ষা করছে। ইউনিয়ন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটিকে আমরা সচল করার চেষ্টা করছি। আমাদের সোয়াইন ফøু ভাইরাস শনাক্ত করা ও চিকিৎসার সরঞ্জামের স্বল্পতা রয়েছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে আমরা অবহিত করেছি। সোয়াইন ফ্লু বিষেেয় চিকিৎসকদের বিশেষ প্রশিক্ষণে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস প্রতিরোধে পঞ্চগড়ের প্রত্যেক সীমান্তে নজরদারি বৃদ্ধি করেছে বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পঞ্চগড় ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মো. আরিফুল হক জানান, পার্শ¦বর্তী দেশ ভারতে সোয়াইন ফ্লু ব্যাপক ছড়িয়ে পড়ায় পঞ্চগড়ে বিজিবির সীমান্তবর্তী ২৬ টি ক্যাম্পে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। কোন ভারতীয় ও চোরাকারবারি যাতে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করতে না পারে সে জন্য বিজিবি সদস্যরা সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful