Templates by BIGtheme NET
আজ- শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১১ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ০৮ পুর্বাহ্ন
Home / গাইবান্ধা / পলাশবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান ও আ’লীগ শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

পলাশবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান ও আ’লীগ শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একেএম মোকছেদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব তোফাজ্জল হোসেন সরকার, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর প্রধান সহ উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ,স্বেচ্ছাসেবক-লীগ, ছাত্রলীগের এজাহার নামীয় ৬৩ নেতাকর্মী ছাড়াও অজ্ঞাত ৩০ জন সহ মোট ৯৩ বিরুদ্ধে গাইবান্ধা চীপজুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ২ ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাদীর এজাহার সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি আল্লাহ ও নবী করিম (স:)কে নিয়ে ব্লগারদের বিভিন্ন কটূক্তি পূর্ণ ইসলাম বিরোধী শ্লোগান বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রচারিত হওয়ায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি বাদ-জুম্মা উপজেলা মসজিদ হতে ইসলামী সমমনা দলের ডাকে তৌহিদি জনতা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচীতে হাজার হাজার মুসুল্লি অংশ গ্রহণ করে। শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ বিক্ষোভ মিছিলটি কালীবাড়ি হাট জামে মসজিদ হতে বের হয়ে স্থানীয় চৌমাথায় পৌছলে সরকার দলীয় সন্ত্রাসী ও পুলিশ বিনা উস্কানিতে মিছিলকারীদের উপর সশস্ত্র হামলা চালায়। ফলে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার-শেল, রাবার বুলেট, কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে।এক পর্যায়ে মিছিলের একটি অংশ কালীবাড়ি বাজারে মহিলা মার্কেটের পশ্চিম পার্শ্বে আত্মগোপন করে।

এ সময় সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা পুলিশের অস্ত্র কেড়ে নিয়ে প্রতিবাদকারী মুসুল্লিদের উপর বেপরোয়া গুলিবর্ষণ করে। সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের বৃষ্টির মতগুলিতে সদরের মহেষপুর গ্রামের মুনছুর আলীর পুত্র মজনু মিয়া (৩৫) মহদীপুর ইউপির বড় গোবিন্দপুর মৌজার আবু রায়হানের পুত্র ৫ নং মহদীপুর ইউনিয়ন যুব দলের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউসুফ ওরফে কোকিল(৩২) ঘটনাস্থলেই নিহত ও অর্ধশতাধিক মুসল্লি গুলিবিদ্ধ হয়।

এ ঘটনায় নিহত মজনুর বাবা মুনসুর আলী বাদী হয়ে পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতা আলহাজ্ব একেএম মোকছেদ চৌধুরী ,উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব তোফাজ্জল হোসেন সরকার, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর প্রধান সহ উপজেলা আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের এজাহার নামীয় ৬৩ নেতাকর্মী ছাড়া অজ্ঞাত আরো ৩০ জন সহ মোট ৯৩ বিরুদ্ধে সোমবার গাইবান্ধা চীপজুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (সি আর-৫৭/২০১৩)নংএকটি মামলা দায়ের করে।

এ বিষয়ে পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একেএম মোকছেদ চৌধুরী সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনার দিন আমি কর্মস্থল থেকে ৩ দিনের ছুটি নিয়ে মাকে বিদেশ পাঠানোর জন্য ঢাকায় অবস্থান করছিলাম। ঘটনাটি আমি মোবাইলে শুনেছি। প্রতিপক্ষ আমাকে হয়রানী করার জন্য প্রতিহিংসায় মামলায় আমার নাম দিয়েছে। আমি সবে মাত্র হজ্ব করে আসলাম। আর আমি কি না মুসল্লি মারার আসামী ভাবতে অবাক লাগে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful