Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ :: ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ১ : ০৬ পুর্বাহ্ন
Home / দিনাজপুর / দিনাজপুরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া;রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ

দিনাজপুরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া;রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ

দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপের মধ্য দিয়ে ১৮ দলীয় জোটের ৩৬ ঘণ্টা হরতাল চলছে। হরতালে বিএনপি অফিসসহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবি র‌্যাবের টহল দলকে টহল দিতে দেখা গেছে। ১৮ মার্চ সোমবার দিনাজপুরে হরতাল চলাকালে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বেলা সাড়ে ১২টায় জেল রোডস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে একটি মিছিল বের করে স্টেশন রোড হয়ে টিএন্ডটি মোড়ে পৌছলে পুলিশ মিছিলের গতিরোধ করে। পুলিশের বাধায় মিছিলটি টিএন্ডটি মোড় থেকে বাহাদুর বাজার হয়ে লিলিমোড় পৌঁছলে পুলিশ পিছন দিক থেকে অতর্কিতে মিছিলকে লক্ষ্য করে টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। এতে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এসময় বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পিকেটাররা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ ১০/১২ রাউন্ড টিয়ার সেল ও ২ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

এ সময় পিকেটাররা রাস্তায় ইট ভেঙ্গে ও ট্রাফিক ডিভাইডার ফেলে দিয়ে রাস্তা অবরোধ করে। এ ঘটনায় লিলিমোড়, বাহাদুর বাজার, স্টেশন রোড এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং সাধারণ জনতা দিকবিদিক ছুটাছুটি করে। পুলিশের টিয়ার সেলের আঘাতে যুবদল নেতা নাদিম ও মহিলা-দল নেত্রী রুনাসহ ৮ পথচারী আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ২জনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
এ ঘটনার পর পর পুরো শহরজুরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। বেলা পৌনে ১টায় আবারো জেল রোডস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা মিছিল বের করে লিলিমোড়ে পৌঁছলে পুলিশ বাধায় দিলে মিছিলটি পুনরায় দলীয় কার্যালয়ের দিকে চলে যায়।
এদিকে হরতাল চলাকালে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে, মুন্সিপাড়া, বালুয়াডাঙ্গা এলাকাসহ শহরের কয়েকটি জায়গায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে। হরতালে শহরে স্কুল-কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সকল প্রকার দোকানপাট, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান, মিল-কারখানা বন্ধ ছিল। ব্যাংক-বীমা, অফিস-আদালত, খোলা থাকলে উপস্থিতি ছিল কম। দিনাজপুর থেকে দূরপাল্লার বাস-ট্রাকসহ সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। শহরে স্বল্প সংখ্যক রিকশা, অটোরিকশা, ভ্যান চলাচল করতে দেখা গেছে। দিনাজপুর থেকে অন্যান্য দিনের ট্রেন ছেড়ে গেলেও অনেক ট্রেন বিলম্বে ছেড়েছে। ট্রেনে অন্যান্য দিনের চেয়ে যাত্রী সংখ্যাও ছিল কম। যে কোন ধরনের নাশকতা ঠেকাতে শহরের বিভিন্ন স্থানে ভোর থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়। র‌্যাবের টহল দলকে শহরে টহল দিতে দেখা গেছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful