Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০ :: ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ :: সময়- ৯ : ১০ অপরাহ্ন
Home / বিনোদন / আবার অনন্তের ঘরে বর্ষা, সব ম্যানেজ

আবার অনন্তের ঘরে বর্ষা, সব ম্যানেজ

বিনোদন ডেস্ক: ছাড়াছাড়ি যখন সময়ের ব্যাপার। পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনা যখন থানা পুলিশ পর্যন্ত গড়ায় তখন অনন্ত-বর্ষা দু’জনেই সম্পর্কের অবসান ঘটানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। বিশেষ করে বর্ষা ছিলেন অনড়।

রোববার রাত পর্যন্ত সবাই যখন জেনে গেছে অনন্ত-বর্ষার ছাড়াছাড়ির বিষয়টি চূড়ান্ত, ঠিক তখনই জানা গেল নাটকীয়ভাবে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের খবর। মধ্যরাতে অনন্ত-বর্ষা দু’জনেই একসঙ্গে হাজির হলেন মোহাম্মদপুর থানায়। দু’জনেই দু’জনের বিরুদ্ধে করা অভিযোগ প্রত্যাহার করে মিলেমিশে সংসার করার কথা জানান। অভিযোগ প্রত্যাহার করে দু’জনেই একই ভাষায় মিডিয়ায় বিবৃতি প্রদান করেন।

অনন্ত ও বর্ষা দু’জনেই মিডিয়ার উদ্দেশে দেয়া আলাদা আলাদা বিবৃতিতে বলেন, আমি অনন্ত ও বর্ষা এই মর্মে জানাচ্ছি যে, গত ২২-৩-২০১৩ইং তারিখ শুক্রবার ঘটে যাওয়া ঘটনাটি সম্পূর্ণ অনাকাঙিক্ষত একটি পারিবারিক ভুল বোঝাবুঝি এবং রাগের বশীভূত হয়ে এই মর্মে মোহাম্মদপুর থানায় করা আমাদের জিডি স্বেচ্ছায়, কারও প্ররোচনা ছাড়াই স্থগিত করেছি এবং তুলে নিয়েছি। অনাকাঙিক্ষত এই ভুল বোঝাবুঝির কারণে ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া এবং আমাদের অগণিত দর্শকের মধ্যে যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছে, সে জন্য আমি অনন্ত ও বর্ষা সবার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী এবং আমাদের ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি। মোহাম্মদপুর থানা থেকে বর্ষা সোজা চলে যান অনন্তের বাসায়।

তিনি  বলেন, সংসারে এমন ঘটনা ঘটতেই পারে। তবে আমার থানায় অভিযোগ করা ঠিক হয়নি। বর্ষা বলেন, আমি আর অনন্ত দু’জন দু’জনকে অনেক ভালবাসি, তাই সামান্য ভুল বোঝাবুঝিতে কষ্টটা বেশি হয়। হঠাৎ করেই রাগ জমে যায়। আর এই রাগের বশীভূত হয়েই এমনটি করা। যার জন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে খুবই লজ্জিত ও দুঃখিত। অনন্ত বলেন, বর্ষার মধ্যে এখনও ছেলেমানুষিটা রয়ে গেছে। প্রচণ্ড অভিমানী সে। হঠাৎ হঠাৎ মাথা গরম করে বসে। তাছাড়া আমি প্রথম থেকেই বলেছি, এখনও বলছি, ওর জন্য আমার একটা নিঃশ্বাস বের হলেও সেটা ভাল নিঃশ্বাসই বের হবে। আমরা দু’জনেই আমাদের ভুলটা বুঝতে পেরেছি। আশা করছি এই ধরনের ঘটনার আর ঘটবে না। আমরা সবার কাছে ক্ষমা এবং দোয়া দুটোই চাই।রাহার আত্মহত্যার সঙ্গে জড়ানোয় দু’জনের বিস্ময় প্রকাশ

লাক্স তারকা রাহার আত্মহত্যার সঙ্গে অনন্ত-বর্ষা ঘটনাকে জড়িয়ে মিডিয়ার একটি অংশের অপপ্রচারে বিস্ময় প্রকাশ করে এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনন্ত-বর্ষা দু’জনেই। তারা  জানান, রাহা ৫ বছর আগে আমাদের ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ ছবিতে ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন পরিচালক ইফতেখার চৌধুরীর কল্যাণে। তার সঙ্গে আমাদের কোন পরিচয় ছিল না। ছবির কাজ শেষ হওয়ার পর কোন যোগাযোগও ছিল না। কিন্তু হঠাৎ করেই আমাদের ব্যক্তিগত সম্পর্কের মধ্যে রাহার আত্মহত্যাকে টেনে এনে একটি মহল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত, যার তীব্র প্রতিবাদ আমরা জানাচ্ছি।

বর্ষা বলেন, রাহার সঙ্গে অনন্তর কোন পরিচয়ই নেই। ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ ছবিতে একসঙ্গে কোন দৃশ্যও নেই। আমরা দু’জনেই রাহার অনাকাঙিক্ষত মৃত্যুতে অবাক হয়েছি। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছি। আর এই সবকিছুই করেছি পত্রপত্রিকা পড়ে, টেলিভিশনে নিউজ দেখে। রাহার সঙ্গে আমাদের কারওই কোন ব্যক্তিগত যোগাযোগ ছিল না। অথচ আমাদের ব্যক্তিগত ভুল বোঝাবুঝিতে রাহাকে যারা জড়াচ্ছেন আমি বর্ষা তার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি এবং এই ধরনের অপপ্রচার বন্ধের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

বর্ষা বলেন, আমি স্পষ্ট করেই বলছি, অনন্ত আমার স্বামী, তার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আমার ভুল বোঝাবুঝি হতেই পারে। কিন্তু অনন্তের সঙ্গে নারীকেন্দ্রিক কোন বিষয়ে কখনই ভুল বোঝাবুঝি হয়নি। কারণ পরকীয়া কোন সম্পর্কে অনন্ত বিশ্বাস করে না। আমিও করি না। অতএব, যারা আমাদের দাম্পত্য জীবনের সামান্য অনাকাঙিক্ষত ঘটনাকে অন্য খাতে প্রবাহ করতে চান তারা ভুল করছেন। আমি তাদেরকে এ বিষয় থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ জানাবো।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful