Templates by BIGtheme NET
আজ- শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ :: ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ :: সময়- ১২ : ৩২ অপরাহ্ন
Home / চাপাইনবাবগঞ্জ / ১০১ বেত্রাঘাত অত:পর বিয়ে

১০১ বেত্রাঘাত অত:পর বিয়ে

চাঁপাইনবাবগঞ্জচাঁপাইনবাবগঞ্জ : প্রেম করার অপরাধে  প্রেমিক-প্রেমিকাকে ১০১ বেত্রাঘাত করার পর তাদের বিয়ে দিয়ে দিয়েছেন স্থানীয় সমাজপতিরা।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলার খাড়বাটরা গ্রামে।

এ ঘটনার পর ওই প্রেমিক প্রেমিকা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খাড়বাটরা গ্রামের মৃত এত্তাজ আলীর ছেলে আলালপুর দারুস সুন্নাত দাখিল মাদ্রাসার অফিস সহকারী মনিরুল ইসলাম (৪৫) দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের কলেজ পড়ুয়া এক মেয়ের (২৫) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে।

ওই সম্পর্কের জের ধরে রোববার জনৈক নুহ মাস্টারের গলিতে ইউপি সদস্য তোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে রাতে বিচারকাজ চলে। কিন্তু বিচারকাজ সারা রাতেও শেষ না হওয়ায় আজ সোমবার সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলে। বিচারে বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নুহ মাস্টার, হাসেম সরদার, একরামুল সরদার, আব্দুর রহমাস ও মন্টু মেম্বরসহ অনেকেই। বিচারে প্রেমিক প্রেমিকাকে প্রায় ২৫০/৩০০ মানুষের উপস্থিতিতে ১০১ বেত্রাঘাত করা হয় এবং উভয়কে সাড়ে ৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

পরে তাদের ২ লাখ ৫২৫ টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে বিয়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে প্রেমিক মনিরুল ইসলামের সঙ্গে যোগযোগ করা হলে তিনি ও তার প্রেমিকা দোররার আঘাতে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন এবং আত্মমর্যাদার চরম ক্ষতির শিকার হয়েছেন বলে জানান।

এ ঘটনায়  এক বিচারক মুন্টু মেম্বারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তাদের বিয়ে দেওয়ার কথা স্বীকার করলেও বেত্রাঘাত করার কথা অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে ভোলাহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মহসীন আলী জানান, এমন কোনো ঘটনা ঘটে থাকলে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful