Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ৩১ মে, ২০২০ :: ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ :: সময়- ১ : ০৬ অপরাহ্ন
Home / আন্তর্জাতিক / ২৪ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয় দিবে ফ্রান্স

২৪ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয় দিবে ফ্রান্স

২৪ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয় দিবে ফ্রান্সডেস্ক:  ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদ বলেছেন, তার দেশ ফ্রান্স এশিয়া ও আফ্রিকা থেকে আসা ২৪ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয় দিবে। এশিয়া ও আফ্রিকা থেকে আসা শরণার্থী সংকট মোকাবেলায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের বৃহত্তর পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই ফ্রান্স এই পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওই বৃহত্তর পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মধ্য দিয়েই চলমান শরণার্থী সংকট মোকাবেলা করা সম্ভব হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

 

রবিবার ফরাসি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এসময় তিনি বলেন, যুদ্ধ ও হত্যাযজ্ঞ থেকে পালিয়ে আসাদের আশ্রয়দানে বাধ্যবাধকতা রয়েছে তার দেশের। তার দেশ সে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

চলমান শরণার্থী সংকট মোকাবেলায় ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরুন একটি নতুন পরিকল্পনার খসড়া তৈরির ঘোষণা দেওয়ার পরপরই ওঁলাদ এই ঘোষণা দিলেন।

 

মি. ওঁলাদ আরো বলেন, সিরিয়ায় আইএস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানও শুরু করবে ফ্রান্স। তারই পূর্ব-প্রস্তুতি হিসেবে মঙ্গলবার থেকেই সিরিয়ার আইএস কবলিত এলাকাগুলো গোপনে পরিদর্শনে অভিযানও শুরু হবে।

 

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের কাছে প্রমাণ রয়েছে যে, সিরিয়া থেকে ফ্রান্সসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে আইএস জঙ্গিরা। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আমি আমাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে সিরিয়ায় বিমান হামলা চালানোর পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে গোপন পরিদর্শন প্রক্রিয়া শুরু করা জন্য অনুরোধ করেছি। মঙ্গলবার থেকেই গুপ্তচর বিমানের মাধ্যমে ওই পরিদর্শন প্রক্রিয়া শুরু হবে।’

 

ওঁলাদ বলেন তিনি এবং জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল শরণার্থী সংকট মোকাবেলায় পুরো ইউরোপজুড়েই শরণার্থীদেরকে বিতরণের ব্যবস্থা করার ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণে ঐকমত্যে পৌঁছেছেন।

 

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলও সোমবার জানিয়েছেন, তিনি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই এ বিষয়ে চুড়ান্ত কিছু সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন।

 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে শরণার্থীদের বন্টনে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কোটা ব্যবস্থা চালুর পরিকল্পনা করছেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন নির্বাহীরা। প্রতিটি দেশের জন্যই শরণার্থী গ্রহণে একটি নির্দিষ্ট কোটা নির্ধারণ করে দেওয়া হবে।

 

বুধবার এ বিষয়ে একটি খসড়া প্রস্তাবনা ঘোষণা করা হবে। এতে জার্মানি আরো ৩১ হাজার ৪৪৩ জন ও ফ্রান্স ২৪ হাজার ৩১ জন উদ্বাস্তুকে গ্রহণ করবে বলে ঘোষণা দেওয়া হবে। ফলে সবমিলিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এখন ১ লাখ ২০ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয়দানে রাজি হল। এর আগে ইইউ ৪০ হাজার জনকে গ্রহণে একমত হয়েছিল।

 

তবে হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর ওরবান কোটা নির্ধারণের নতুন এই পরিকল্পনার বিরোধীতা করেছেন। তার মতে যারা জার্মানি যেতে চাইছে তারা শরণার্থী নয়। বরং এরা মূলত জার্মান জীবনযাত্রায় আকৃষ্ট হয়ে স্বদেশ ছেড়ে আসা অভিবাসনপ্রত্যাশী। এ কারণে তিনি জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলকে শরণার্থীদের আশ্রয়ের জন্য আর ডাকাডাকি না করারও আহবান জানিয়েছেন।
Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful