Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ১ এপ্রিল, ২০২০ :: ১৮ চৈত্র ১৪২৬ :: সময়- ৩ : ৪৫ পুর্বাহ্ন
Home / চাপাইনবাবগঞ্জ / চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ অফিসার মতিউর ডিএমপিতে বদলি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ অফিসার মতিউর ডিএমপিতে বদলি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের চৌকস পুলিশ অফিসার (সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার-সদর ও শিবগঞ্জ সার্কেল) মতিউর রহমান সিদ্দিকী ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে বদলি হয়েছেন।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তিনি সেখানে যোগদান করবেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জে আসার পর তিনি অত্যন্ত দক্ষতা, নিষ্ঠা এবং সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে পাঁচবার রাজশাহী বিভাগে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন।

২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি যুদ্ধাপরাধের মামলায় দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায়কে কেন্দ্র করে জামায়াত শিবিরের কানসাট পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে অগ্নিসংযোগসহ সারা জেলায় ব্যাপক তাণ্ডব এবং ধ্বংসলীলা সাধনের মত একটি প্রতিকূল পরিবেশে ওই বছরের ৬ মার্চ তিনি এ জেলায় যোগদান করেন। গত আড়াই বছরে তিনি অত্যন্ত সাহসিকতার সঙ্গে নাশকতাকারীদের দমনে অভিযান পরিচালনা করেছেন।

তার এ সকল কর্মকাণ্ডের মূল্যায়ন স্বরূপ তিনি পাঁচবার রাজশাহী বিভাগে শ্রেষ্ঠ সার্কেল এএসপি হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন।

এ ছাড়া ভারতের বর্ধমানে বোমা হামলার ঘটনায় জড়িত জেএমবি সদস্যদের চিহ্নিত এবং গ্রেফতার করে তিনি আর্ন্তজাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন। এজন্য পুলিশ সদর দপ্তর তাকে দুই লাখ টাকা পুরস্কার প্রদান করে।

মাঠ পর্যায়ে সাহসিকতাপূর্ণ কার্যক্রমের পাশাপাশি জেলার চাঞ্চাল্যকর, লোমহর্ষক এবং ক্লু-লেস হত্যা মামলাগুলোর রহস্য উদঘাটন ও আসামি গ্রেফতারে তার ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ যুবলীগ নেতা মনিরুলকে রাতের অন্ধকারে শিবগঞ্জ স্টেডিয়ামের পাশে গুলি করে হত্যার পর পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। যেখানে কোন প্রত্যক্ষদর্শী ছিল না। অথচ এই কর্মকর্তার নেতৃত্বে ঘটনার মাত্র দুই ঘণ্টার মধ্যে মূল আসামিদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় শিবগঞ্জ থানা পুলিশ।

অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধনসহ দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর সোনামসজিদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় স্থানীয় এলাকাবাসী।

এমন প্রেক্ষাপটে তিনি নিজে মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রায় সকল আসামিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। এই মামলায় আটজন আসামি আদালতে হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণের বর্ণনা দিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। একটি মামলায় এত অধিক সংখ্যক আসামির জবানবন্দী রেকর্ড একটি বিরল ঘটনা। এ ছাড়াও এই কর্মকর্তা তার সময় কালে সংঘটিত কানসাট-চৌডালা সড়কে খুন ডাকাতি মামলা, আমনুরা মন্দির মিশনে ডাকাতি মামলা, ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মত গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদঘাটন, আসামি গ্রেফতার ও ১৪৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী গ্রহণে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছেন।

একান্ত আলাপচারিতায় এই কর্মকর্তা জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার বশির আহম্মদের দক্ষ নেতৃত্ব ও নির্দেশনার কারণেই তিনি সাহসিকতার সঙ্গে কাজ করতে সক্ষম হয়েছেন।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful