Templates by BIGtheme NET
আজ- রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০ :: ১০ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১ : ৪৮ পুর্বাহ্ন
Home / টপ নিউজ / রংপুর বিভাগে ৫৮শতাংশ মানুষের ব্যবহার আয়োডিন বিহীন লবন

রংপুর বিভাগে ৫৮শতাংশ মানুষের ব্যবহার আয়োডিন বিহীন লবন

saltস্টাফ রিপোর্টার: রংপুর বিভাগের ৫৮টি উপজেলায় ৫৮ শতাংশ মানুষ এখনো ব্যবহার করছে আয়োডিন বিহীন সাধারণ লবন। ফলে ৮ জেলার হাজার হাজার মানুষ আয়োডিনের অভাব জনিত নানা রোগে ভুগছে। গলগন্ড বা ঘ্যাগ-এর কারণে মানুষ অসহনীয় জীবন যাপন করছে।

এ অঞ্চলের একটি এনজিওর পরিসংখ্যানে জানা গেছে, রংপুরে ৪০ভাগ, নীলফামারী ২২ দশমিক পাঁচ ভাগ, কুড়িগ্রাম ৩৫ দশমিক নয় ভাগ, লালমনিরহাট ১২দশমিক সাত ভাগ, গাইবান্ধায় ১৮ ভাগ, দিনাজপুরে ৩৫ দশমিক ছয় ভাগ, গড়ে উত্তজনপদের প্রায় ৪২শতাংশ মানুষ আয়োডিন যুক্ত লবন ব্যবহার করছে।

আয়োডিন বিহীন লবনের দাম কম হওয়ায় এই লবন ব্যবহার বেশি হচ্ছে। আয়োডিন ছাড়ালবন খেয়ে মানসিক প্রতিবন্ধি, চোখ ট্যারা, হাবাগোবা বোকা এবং গলগন্ড রোগাক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। গর্ভাবস্থায় শিশু মৃত্যু, শিশুদের চিন্তা শক্তি হ্রাস এবং মেধায় স্বাভাবিক বিকাশ রুদ্ধের হার বাড়ছে।
সুত্র মতে, উত্তর জনপদে গলগন্ডের আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০লাখ। গলগন্ডে আক্রান্তদের মধ্যে মেয়েদের সংখ্যা অত্যন্ত বেশী। গলগন্ড বা ঘ্যাগ এর কারনে হাজার হাজার মহিলা অসহনীয় জীবন যাপন করছে। গলায় থলির মতো একতাল মাংসপিন্ড নিয়ে সংসার জীবনে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে। ফলে অনেক মেয়েদের বিয়ে হচ্ছে না। আয়োডিনের অভাব পুরনের একমাত্র উপায় হচ্ছে খাদ্যের মাধ্যমে আয়োডিন গ্রহণ করা আর তা সম্ভব আয়োডিনযুক্ত লবন খাদ্যের মাধ্যমে গ্রহণ করে।

জানা গেছে, দেশে ১৯৯৪সাল থেকে আয়োডিনযুক্ত লবন উৎপাদন বিপনন এবং ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হলেও আজ পর্যন্ত তা পূর্ণাঙ্গভাবে বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ,সচেতনতার অভাব এবং প্রশাসনিক দুর্বলতার কারনে কর্মসুচী সফলতার মুখ দেখছে না।
জানা গেছে, দেশে উৎপাদিত লবনে যথাযথ পরিমানে আয়োডিন মিশ্রণ করা হয় না। অনেক অধিক মুনাফালোভী ব্যবসায়ী আয়োডিনযুক্ত লবনেই সুদৃশ্য প্যাকেটে সাধারন লবন কিংবা সামান্য পরিমান আয়োডিন মিশিয়ে বাজার জাত করছে।

খোলা বাজারে সাধারন লবন এখন পর্যন্ত নিয়ন্ত্রন করা যায়নি। আয়োডিন বিহীন লবন উত্তর জনপদের গ্রামীণ বাজার গুলোতে ছেয়ে গেছে। আয়োডিনযুক্ত প্যাকেটে লবনের চেয়ে খোলা লবনের দাম অনেক কম হওয়ায় ব্যাপক দরিদ্র জনগোষ্ঠী সেগুলো কিনছে এবং ব্যবহার করছে।

প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের অনেক মানুষ আয়োডিনের ঘাটতিজনিত বিষয় সম্পর্কে মোটেও অবগত নয়। স্থানীয় প্রশাসন আয়োডিন বিহীন লবন বিক্রির ব্যবপারে নির্বিকার।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful