Templates by BIGtheme NET
আজ- শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০ :: ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ৫৮ অপরাহ্ন
Home / রাজশাহী / রাবি শিক্ষকের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর

রাবি শিক্ষকের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর

rrrরাজশাহী: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক আকতার জাহান জলির লাশ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শনিবার দুপুরে আকতার জাহানের ভাই কামরুল হাসান রতন লাশ গ্রহণ করেন। এর আগে দুপুরেই আকতার জাহানের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

রামেক হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার মোশাররফ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, দুপুরেই শিক্ষক আকতার জাহানের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। এরপর তার লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় তার ভাই কামরুল হাসান, মামাতো ভাই শামিম হোসেন রানা ও ইকবাল হোসেনসহ সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষক আকতার জাহান রাবির জুবেরি ভবনের ৩০৩ নম্বর কক্ষে একাই থাকতেন। শুক্রবার বিকালে এই কক্ষ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। কক্ষে তার একটি সুইসাইড নোটও পাওয়া যায়। তার লাশ ঢাকায় পরিবারের কাছে না দিয়ে রামেক হাসপাতালে দিয়ে দেয়ার জন্য তিনি সুইসাইড নোটে লিখেছিলেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আকতার জাহানের ভাই কামরুল হাসান রতন সাংবাদিকদের বলেছেন, তার মা অসুস্থ। তিনি চান না মেয়ের লাশ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দেয়া হোক। এ জন্য লাশ ঢাকায় নেয়া হচ্ছে।

লাশের ময়নাতদন্ত করেছেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক এনামুল হক।

তিনি বলেন, লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে ভিসেরা রিপোর্টের জন্য একটু অপেক্ষা করা লাগবে। কয়েকদিনের মধ্যেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (পূর্ব) আমীর জাফর বলেন, লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন করার সময়ও শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাতিল সিরাজ জানান, শনিবার বিকাল ৪টায় রাবিতে শিক্ষক আকতার জাহানের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কয়েক বছর আগে স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় শিক্ষক আকতার জাহানের। এরপর থেকে তিনি নিঃসঙ্গ জীবনযাপন করতেন। তার সাবেক স্বামী রাবির একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানভীর আহমদ। তিনি তার বিভাগের ছাত্রী সোমা দেবকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সোমা দেবও রাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে শিক্ষকতা করছেন।

শিক্ষক আকতার জাহান তার সাবেক স্বামীর প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করে সুইসাইড নোটে লিখেছেন, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। শারীরিক, মানসিক চাপের কারণে আত্মহত্যা করলাম। সোয়াদকে (ছেলে) যেন ওর বাবা কোনোভাবেই নিজের হেফাজতে নিতে না পারে। যে বাবা সন্তানের গলায় ছুরি ধরতে পারে- সে যে কোনো সময় সন্তানকে মেরে ফেলতে পারে বা মরতে বাধ্য করতে পারে।’

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful