Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০ :: ১৪ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৮ : ১৭ পুর্বাহ্ন
Home / বিনোদন / বাংলাদেশি নায়িকাদের যত গোপন প্রেম

বাংলাদেশি নায়িকাদের যত গোপন প্রেম

heroinসেলিব্রেটিদের প্রেম-বিয়ের গুঞ্জন নতুন কিছু নয়। হলিউড, বলিউড, টলিউড ও ঢালিউডে যুগে যুগে, কালে কালে তারকাদের প্রেম-প্রণয়ের গুঞ্জনে বাতাস ভারি হয়েছে, এখনো হচ্ছে। ঢালিউডে সুজাতা, সুচন্দা, সুচরিতা থেকে শাবনাজ, রেসি পর্যন্ত এই জল গড়িয়েছে। নব্বই দশকে এবং এরপর ঢালিউডে আসা সাত নায়িকার প্রেমের গুঞ্জন অথবা সত্যিকারের প্রেম-বিয়ের চিত্র ছিল এমন-shabnaz

শাবনাজ : ১৯৯১ সালে এহতেশামের ‘চাঁদনী’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে নায়িকা হয়ে আসেন শাবনাজ।
ওই চলচ্চিত্রে তার নায়ক ছিলেন নাঈম। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করতে গিয়ে ঘনিষ্ঠ হন দুজন। একসঙ্গে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ও করেন। শুরু থেকেই তাদের প্রেম কাহিনী মিডিয়ায় চাউর হয়। কিন্তু এ খবর তারা অস্বীকার করেন। অবশেষে ১৯৯৬ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসে অবসান ঘটান সব জল্পনা-কল্পনার।
mousumi
মৌসুমী : ১৯৯৩ সালে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ চলচ্চিত্রের নায়িকা হন মৌসুমী। শুরুতেই এই চলচ্চিত্রের নায়ক সালমান শাহকে জড়িয়ে তার প্রেমের গুঞ্জন রটলেও পরে আরেক হার্টথ্রব নায়ক ওমর সানীর সঙ্গে মৌসুমীর প্রেমের খবর চলচ্চিত্রাঙ্গনসহ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। যথারীতি প্রথমে অস্বীকার, পরে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। এর পরেও অনেকের সঙ্গে জড়িয়ে মৌসুমীর প্রেমের গুঞ্জন রটলেও এখনো মৌসুমী-সানির সুখী দাম্পত্য জীবন অনেকের কাছে ঈর্ষণীয়।
শাবনূর : ১৯৯৩ সালে এহতেশামের ‘চাঁদনীsabnur রাতে’ চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে পাওয়া গেল শাবনূরকে। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সাবি্বর, সালমান শাহ, রিয়াজসহ অনেকের সঙ্গে তার প্রেমের খবর চাউর হতে থাকে। এখনো অবিবাহিত শাবনূরের পিছু ছাড়ছে না গোপন প্রেম-বিয়ের গুঞ্জন।
popi
পপি: ৯০ দশকের মাঝামাঝি সময় মনতাজুর রহমানের আকবরের ‘কুলি’ চলচ্চিত্রে সুশ্রী নায়িকা হিসেবে পাওয়া গেল পপিকে। পরবর্তীতে শাকিল খানের সঙ্গে পপি অভিনয় করেন ‘আমার ঘর আমার বেহেশত’ চলচ্চিত্রে। একসঙ্গে জুটি হয়ে বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন দুজন। কিন্তু এ জুটি প্রথম চলচ্চিত্র থেকেই প্রেমের গুঞ্জনের জন্ম দেন। এক পর্যায়ে পপিকে স্ত্রী হিসেবেও দাবি করেন শাকিল খান। কিন্তু পপির অস্বীকৃতিতে ঘটনা আদালতে গড়ায়। শেষ পর্যন্ত দুজন দুই মেরুতে চলে যান।
পূর্ণিমা : ৯০ দশকের মাঝামাঝিতে চলচ্চিত্রে আসেন মিpurnimaষ্টি মেয়ে পূর্ণিমা। সুদর্শন নায়ক রিয়াজের সঙ্গে জুটি হয়ে অনেক ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র উপহার দেন। তাদের প্রেম কাহিনী এক সময় কানে কানে ফিরতে থাকে। এরপর অবশ্য আরও এক নায়ক ও নির্মাতার সঙ্গেও পূর্ণিমার প্রেমের খবর রটে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চলচ্চিত্র জগতের বাইরে বিয়ে করায় পূর্ণিমার প্রেম উপাখ্যান আর হালে পানি পায়নি।

অপু বিশ্বাস :
 অপু-শাকিব জুটি এখনো প্রেমিক যুগল হয়ে আছেন ঢালিউডে। তাদের প্রেম-বিয়ের খবরে পত্রিকাগুলো সরব থাকলেও দুজনের কেউই এখনো বিষয়টি স্বীকার বা অস্বীকার করছেন না। তাদের গোপন বিয়ের খবরও ফিল্মপাড়াসহ সর্বত্র মুখরোচক গল্প হয়ে আছে।

opuরেসি :
 ২০০৮ সালে বুলবুল জিলানীর ‘নীল আচল’ চলচ্চিত্রে নায়িকা হয়ে আসেন রেসি। প্রথমে এই নির্মাতা, পরে এক মডেল সর্বশেষ অভিনেতা ডিপজলের সঙ্গে রেসির প্রেম-বিয়ের গুঞ্জন ঢালিউডের বাতাস ভারি করেছে। অবশেষে ২০১২ সালে রেসি বিয়ে করেন এক ব্যবসায়ীকে। অবসান ঘটে জল্পনা-কল্পনার।
Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful