Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০ :: ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ৩ : ৪০ অপরাহ্ন
Home / রংপুর / “যেকোন মূল্যে মহাপ্রাণ সুন্দরবনকে রক্ষা করতে হবে”

“যেকোন মূল্যে মহাপ্রাণ সুন্দরবনকে রক্ষা করতে হবে”

p_20160928_181820_dfবিজ্ঞপ্তি: সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে ২৮ সেপ্টেম্বর ’১৬ বিকেল ৪টায় নিউক্রস রোডস্থ সুমি কমিউনিটি সেন্টারে “রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র ও সুন্দরবনের ভবিষ্যৎ” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।

আনু মুহাম্মদ বলেন, মহাপ্রাণ সুন্দরবন বাংলাদেশকে রক্ষা করে। সুন্দরবন ৩৫-৪০ লাখ লোকের জীবিকার যোগান দেয়। প্রায় ৪ কোটি মানুষের জীবন প্রাকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে রক্ষা করে। বাংলাদেশের ফুসফুসখ্যাত নানা জীববৈচিত্র্যের আধার হলো সুন্দরবন। সুন্দরবন থেকে মাত্র ১৪ কি. মি. দূরে রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ হলে প্রতিদিন ৭৯ লাখ টন কার্বন ডাই অক্সাইড বের হবে। যার ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩৪ কোটি গাছ কেটে ফেলার সমান।

এছাড়া সালফার ডাই অক্সাইড, নাইট্রাস অক্সাইড, মার্কারি, আর্সেনিক, সীসাসহ বছরে আড়াই লাখ টন ছাই, বায়ু-পানি-শব্দ দূষণ ও নদীপথে কয়লা পরিবহন ও পানি প্রত্যাহার, তাপমাত্রা বৃদ্ধিসহ নানা কারণে অল্প সময়েই সুন্দরবন ধ্বংস হবে। পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ বন রক্ষার জন্য ইতিমধ্যে ইউনেস্কো তিন-তিন বার এ প্রকল্প বন্ধ করার জন্য সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে। অথচ এসবে সরকার কর্ণপাত করছে না।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এক হাতে পরিবেশ পদক আরেক হাতে সুন্দরবনের মৃত্যুর পরোয়ানা এটা দেশবাসী মেনে নেবে না। ইতিমধ্যে সুন্দরবন রক্ষায় দেশে জাতীয় জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে। শুধু দেশেই নয়, দেশের বাইরেও ভারত, ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে এবং বিভিন্ন বিজ্ঞান ও পরিবেশবাদী সংগঠন সুন্দরবনে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ বন্ধের দাবি করেছে ।

অনুষ্ঠানে সংগঠনের বেরোবি সভাপতি যুগেশ ত্রিপুরার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিনের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন বেরোবি’র বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. রিষিণ পরিমল, অধ্যাপক আব্দুস সোবহান, বাসদ জেলা সমন্বয়ক কমরেড আব্দুল কুদ্দুস, বেরোবি’র ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আতিউর রহমান, ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রনেতা ইমরান হাবিব রুমন প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার ভুল তথ্য দিয়ে, ভুল বিজ্ঞাপনী-প্রচারণার মাধ্যমে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। সরকারের উচিত এসব পরিহার করে রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিষয়ে জনমত যাচাইয়ের জন্য প্রয়োজনে মুক্ত আলোচনা বা গণভোটের আয়োজন করা।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful