Templates by BIGtheme NET
আজ- বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০ :: ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ :: সময়- ১ : ৫২ অপরাহ্ন
Home / আলোচিত / শিক্ষার্থীরা এ-প্লাস পাওয়ার প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত- রংপুরে এরশাদ

শিক্ষার্থীরা এ-প্লাস পাওয়ার প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত- রংপুরে এরশাদ

ershad স্টাফ রিপোর্টার: শিক্ষার মান নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সাবেক রাষ্ট্রপতি, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধ ফিরিয়ে আনতে হবে। কারণ তাদের বেশিরভাগ নিজেদের অস্তিত্ব, দেশ, সমাজ, রাষ্ট্র, ঐতিহ্য-ইতিহাস সম্পর্কে জানে না। তারা এ-প্লাস পাওয়ার প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত।

মঙ্গলবার বিকালে রংপুর কারমাইকেল কলেজিয়েট স্কুল এন্ড কলেজের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, আমরা এই শিক্ষায় শিক্ষিত হতে চাই না। আমরা চাই আমাদের সন্তানেরা আগামী দিনের সুনাগরিক হবে। মানবিক মূল্যবোধে প্রকৃত মানুষ হবে। আর এ দায়িত্ব নিতে হবে নতুন প্রজন্মকে।

তিনি বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থা, শিক্ষক সমাজ ও শিক্ষার্থীদের নানা বিষয় উল্লেখ করে বলেন, আমাদের এ-প্লাস পাওয়া একজন এসএসসি শিক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম, দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি কে ছিলেন, প্রধানমন্ত্রী কে ও জাতীয় স্মৃতিসৌধ কি? সে উত্তর করতে পারেনি। একজন এসএসসি পরীক্ষার্থী খাতায় গরুর রচনা লিখতে গিয়ে লিখেছে ‘I LAAB COW. COW HAS DO SAMTING ‘ এই হলো আমাদের শিক্ষার্থীদের অবস্থা।

সাবেক এ রাষ্ট্রপতি বলেন, এখন শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতার বিকাশ হচ্ছে না। ঢাকার বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খেলার মাঠ নাই। আমাদের বর্তমান প্রজন্ম এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির শিকার। গতকাল সিলেটের এমসি কলেজ ক্যম্পাসে প্রকাশ্যে এক ছাত্রীকে ছাত্রনেতা নামধারী সন্ত্রাসী কুপিয়ে জখম করেছে। প্রকাশে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিজেদের দ্বন্দ্বের কারণে নিরীহ শিক্ষার্থী খুন হচ্ছে। ঢাকাসহ সারা দেশের যে সামাজিক অবক্ষয়, নারীর প্রতি সহিংসতা, সন্ত্রাস তার বেশিরভাগ অংশজুড়ে আছে আজকের শিক্ষার্থীরা, তরুণ-যুবসমাজ।

তিনি বলেন, আমাদের এখনই সচেতন হতে হবে। সামাজিক অবক্ষয় থেকে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের রক্ষা করতে হবে। শিক্ষক-অভিভাবক ও বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীদের সেই কাজটি নিজেদের তাগিদে করতে হবে। তা না হলে আমাদের সন্তানদের সামাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষা করা যাবে না। আজ তাই নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে সেই দায়িত্ব পালনে। আমাদের সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধ ফিরিয়ে আনতে হবে।

এরশাদ বলেন, আমরা আমাদের শিক্ষকদের পিতৃতুল্য মনে করতাম। বাবা-মায়ের পরে তাদের স্থান দিতাম। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও কলেজের অধ্যক্ষকে দূর থেকে দেখতাম। তারা ছিলেন পূজনীয়। এখন তাদের ছাত্র-ছাত্রীরা অপমান করে। তাদের ঘেরাও করে। আমরা এটা চাই না। বাবা-মায়ের পরে শিক্ষক-শিক্ষিকাকে সম্মান করতে হবে।

কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওয়াহেদ মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- কারমাইকেল কলেজের অধ্যক্ষ বিনতে হোসাইন নাসরিন বানু, জাপা জেলা কমিটির আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য মোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, কলেজের প্রভাষক মোজাফ্ফর হোসেন।

এসময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন- জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আখতার, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও মহানগর জাপা আহ্বায়ক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সদস্য সচিব এসএম ইয়াসির প্রমুখ।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful