Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০ :: ১৪ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৯ : ৫১ অপরাহ্ন
Home / আলোচিত / চালু হচ্ছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা হল

চালু হচ্ছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা হল

BRUবেরোবি প্রতিনিধি: আগামী রবিবার ১৪ জুলাই বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের জন্য প্রথম আবাসিক হল চালু হচ্ছে। এ হলটির নাম দেয়া হয়েছে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল। মোট ৩৩৫৫ বর্গ মিটার আয়তনের এবং পাঁচতলা বিশিষ্ট এ হলটির নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, ২০০৮ সালে তত্বাবধায়ক সরকারের আমলে রংপুর মহানগরীর  লালকুঠি টিটি কলেজ ক্যাম্পাসে ‘রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়’ নামে যাত্র শুরু করে।  এরপর তত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দিন আহমেদ কারমাইকেল কলেজের ৩’শ বিঘা জমির উপর রংপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এরপর মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসলে ২০১১ সালের ৮ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় নামে নামকরণ করে স্থায়ী ক্যাম্পাসের উদ্বোধন করেন। একাডেমিক ভবন, প্রশাসনিক ভবন, শিক্ষক-কর্মকর্তাদের আবাসিক ডরমেটরি, উপাচার্যের বাসভবন, লাইব্রেরী ভবন চালু হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানিয়েছে, এ হলটিতে মোট ৫৬টি কক্ষ রয়েছে। প্রতিটি কক্ষে চার জন করে ছাত্রী থাকতে পারবে। প্রত্যেকের জন্য পৃথক সিট ও চেয়ার-টেবিল ও আলামরি সিস্টেম লকারের ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া হলটির নীচ তলায় প্রভোস্টের কার্যালয়, হাউস টিউটরদের কক্ষ, অফিস কক্ষ, গেস্টরুম, টিভি হলরুম ও ডাইনিং রুমের ব্যবস্থা রয়েছে। দ্বিতীয় তলায় একটি গণরুমের ব্যবস্থা রয়েছে। হলটির মাঝখানে ফুলবাগান করা হচ্ছে। হলের উত্তর পার্শ্বে নিরাপত্তা প্রাচীরের ভেতরে প্লে গ্রাউন্ড করা হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য হলের চার পার্শ্বে নির্মাণ করা হয়েছে উঁচু প্রাচীর। প্রবেশ পথে থাকছে গার্ড রুম। হলটির প্রবেশ পথ রাখা হয়েছে পূর্ব পার্শ্বে।

হলটির প্রথম প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা। হাউস টিউটর হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক মো. জাহিদ হোসেন, রসায়ন বিভাগের শিক্ষক এইচ.এম. তারিকুল ইসলাম, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক খন্দকার শারমিন আশরাফী এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক তাসনীম হুমাইদা।
হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা বলেন, হলে সিট সংখ্যার চেয়ে আবেদনকারী বেশি। সিট বন্টন করা হবে মেধার ভিত্তিতে। হল চালুর আনুষঙ্গিক প্রস্তুতিও শেষ পর্যায়ে। আগামী ১৪ জুলাই হলটি চালু করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ কে এম নূর-উন নবী বলেন, আবাসিক হল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা জীবনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। তবে নতুন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একটু সমস্যা হয়েই থাকে। গুরুত্বের বিষয়টি বিবেচনা করে আমি দায়িত্ব গ্রহণ করেই আবাসিক হল চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful