Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০ :: ১৪ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১২ : ০২ পুর্বাহ্ন
Home / টপ নিউজ / রংপুর পিডিবি’র অবৈধ সংযোগে লাখ লাখ টাকার অবৈধ বাণিজ্য

রংপুর পিডিবি’র অবৈধ সংযোগে লাখ লাখ টাকার অবৈধ বাণিজ্য

electস্টাফ রিপোর্টার: সরকারি নির্দেশ মানছেন না রংপুর পিবিডি’র কর্মকর্তা কর্মচারীরা। অবৈধ আয় করতে গিয়ে রংপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড’র (পিডিবি) অসাধু কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ব্যাটারিচালিত অটোরিকসায় অবৈধভাবে বিদ্যুতের সংযোগ দিয়ে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

এ টাকার ভাগ যাচ্ছে রংপুর বিদ্যুৎ বিতরণের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী, মিটার রিডার ও পার্টটাইম কাজে নিয়োজিত সহকারী মিটার রিডারদের কাছে। এ কারণে নগরবাসী চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুতের সেবা পাচ্ছেন না। রমজান মাসেও বেড়েই চলেছে ঘনঘন লোডশেডিং। অবৈধ সংযোগ দেয়ায় আগুল ফুলে কলাগাছ বনে যাচ্ছেন অসাধু ওই কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারী অবৈধ আয় করতে গিয়ে বিপাকে ফেলছেন নগরীবাসীকে।  দিন দিন সিস্টেমলসসহ গ্রাহকরা অসহনীয় লোডশেডিংয়ে এবং লো-ভোল্টেজের কারণে গ্রাহকদের ব্যবহৃত টিভি, ফ্রিজ, কম্পিউটারসহ অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক্স সমগ্রী নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

রংপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রংপুরে বিদ্যুতের চাহিদা ৪০ থকে ৪২ মেঘাওয়াট। তা প্রায় পুরোটাই পাচ্ছে পিডিবি। কিন্তু অবৈধ আয় করতে গিয়ে অবৈধ সংযোগ দেয়ায় সিস্টেম লস হচ্ছে ১৯ থেকে ২২ শতাংশ। ফলে নগরবাসী রমজান মাসেও বিদ্যুৎবিহীন অন্ধকারে থাকতে হচ্ছে। সরকার রমজান মাসে বিদ্যুতের বিষয়ে কড়াকড়ি নির্দেশ দিলেও তা মানা হচ্ছে না।

রংপুর বিদ্যুৎ অফিস সুত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বরাদ্দ পিক আওয়ারে ৩২ থেকে ৩৫ মেঘাওয়াট। এতে রংপুরে লোডশেডিংয়ের প্রয়োজন পড়ে না। অথচ দিন রাত সমান তালে নগরীতে লোড শেডিং হচ্ছেই।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নগরীর মাহিগঞ্জ, দর্শনা মোড়, আলমনগর কলোনি, বাবুপাড়া, মুসলিম পাড়া, রবার্টসনগঞ্জ, মন্ডলপাড়া, নুরপুর, বৈরাগীপাড়া, জুম্মাপাড়া ও ধাপ এলাকায় রংপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের অসাধু কর্মকর্তা, কর্মচারীর ছত্রছায়ায় বিদ্যুতের মিটার থাকলেও অবৈধভাবে সংযোগ নিয়ে প্রতিদিন অটোরিকসাগুলোতে চার্জ দেয়া হচ্ছে। অবৈধ সংযোগ নিয়ে চার্জ দেয়ায় সিস্টেম লসসহ নগরীতে লোডশেডিং বেড়েই চলছে। বাড়তি সুবিধা নিয়ে এসব সংযোগ দেয়ায় লাখপতি বনে যাচ্ছেন পিডিবিতে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

অপরদিকে, নিউ ইঞ্জিনিয়ার পাড়ার (সদর হাসপাতাল) ব্রিজ সংলগ্ন এলাকার মেইন লাইন থেকে তার ফুটো করে অবৈধভাবে কয়েকটি বাসায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। সেখান থেকে মাসোহারা তুলছেন ওই এলাকার লাইনম্যান। সিটি কর্পোরেশন ভবনের বিপরীত থেকে ওরিয়েন্টাল সিনেমা হলের সামনের ফুটপাতের মার্কেটেও অবৈধ সংযোগ দেয়া হয়েছে। সেখানকার প্রত্যেক দোকান থেকেও মাসোহারা নেয়া হচ্ছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, পিডিবির এক মিডার রিডার নিয়ন্ত্রণ করছেন মাহিগঞ্জ এলাকা। তিনি আবার মাহিগঞ্জ এলাকার সকল অটোরিকসার চার্জের দোকানগুলোতে সহকারী মিটার রিডার হিসাবে একজনকে দিয়ে অবৈধ সংযোগ দেয়াসহ মাসোহারা তুলছেন। নগরীর গুপ্তপাড়াসহ আশপাশ এলাকা নিয়ন্ত্রণ করে অন্য আর এক মিটার রিডার।

জানা গেছে, রংপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)তে মিটার রিডার রয়েছে ৬জন। এই ৬জন আবার সহকারী হিসেবে মাস্টাররোল ভিত্তিতে নিয়োগ দিয়েছেন ১৩জন সহকারী মিডার রিডার। এই সহকারীদের মাধ্যমে অবৈধ সংযোগ দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা। এই টাকার অংশ ভাগ হয়ে যাচ্ছে নির্বাহী প্রকৌশলীসহ সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তাদের কাছে।

রংপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ ১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী ওবাইদুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে আমরা খোজঁ খবর নিচ্ছি। এছাড়াও ৬০ টি মামলা করা হয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful