Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০ :: ৫ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ৪৩ অপরাহ্ন
Home / ক্যাম্পাস / জাতীয় পার্টির হাল ধরছেন জিএম কাদের, অবসরে যাচ্ছেন এরশাদ

জাতীয় পার্টির হাল ধরছেন জিএম কাদের, অবসরে যাচ্ছেন এরশাদ

JPস্পেশাল ডেস্ক: সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বার্ধক্যজনিত কারনে ক্লান্ত। আগামী জাতীয় নির্বাচনই তার জীবনের শেষ নির্বাচন। এরপর তিনি রাজনীতি থেকে অবসরে যাবেন। পার্টির দায়িত্ব অর্থাৎ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিবেন তার ছোট ভাই জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মহাজোট সরকারের বানিজ্য মন্ত্রী জিএম কাদেরে কাছে। রাজনৈতিক উত্তরসুরি হিসেবে এইচ এম এরশাদের পুত্র সাদ এরশাদকে রাজনীতিতে টানবেননা। সাদ এরশাদও রাজনীতি করতে আগ্রহি নন।

জাতীয় পার্টির একাধিক সুত্র জানায়, আগামী নির্বাচনের পর জাতীয় পার্টি থেকে আরো তিন জন ব্যাক্তি অবসরে যাবেন। তারা হচ্ছেন জাতীয় পার্টির সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. টি আইএম ফজলে রাব্বি, এরশাদ পত্নি বেগম রওশন এরশাদ, কাজী জাফর আহমেদ এসব নেতারাও বার্ধক্যজনিত কারনে রাজনীতি থেকে অবসরে যাবেন। ইতিমধ্যে কাজী জাফর আহমেদ, বেগম রওশন এরশাদ ও টিআইএম ফজলে রাব্বি এ বিষয়ে পার্টির কাছের নেতা-কর্মী এবং নিকটতম আত্নিয়স্বজনদের কাছে অবসরে যাওয়ার কথা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন।

অবসরে যাওয়ার প্রসংগে বেগম রওশন এরশাদ জানান, আমারও বয়স হয়েছে আমি আগামী নির্বাচনের পরে রাজনীতি থেকে অবসরে যাবো। তবে এ প্রসংগে কাজী জাফর আহমেদকে ফোন করে পাওয়া যায়নি। তবে তার ব্যাক্তিগত সহকারি গোলাম মোস্তফা জানান, কাজী জাফর আহমেদের রাজনীতির বয়স ৫৫ বছর।কাজী জাফর আহমেদ সাহেবকে নিয়ে টানা হেচড়া করবেন না। সে রাজনীতি থেকে অবসরে যাবেন না। যারা এ তথ্য দিয়েছেন তারা ভুল তথ্য দিয়েছেন।

এছাড়া জাতীয় পার্টি মহাজোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার দিন তারিখ ইতিমধ্যে ঠিক করে রেখেছেন এরশাদ। সুত্র মতে আগামী অক্টোবরের শেষের দিকে মহাজোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দিতে পারেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।
এ প্রসংগে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জানান, আগামী জাতীয় নির্বাচন আমার জীবনের শেষ নির্বাচন। বার্ধক্যজনিত কারনে আমি ক্লান্ত। পার্টির দায়িত্ব ছোট ভাই জিএম কাদেরের কাছে দেয়া হবে। আর আমি পার্টির উপদেষ্টা হিসেবে থাকবো। তার এই বক্তব্যের পর বিএনপি আওয়ামী লীগের মত রাজনৈতিক উত্তরসুরিরা যে ভাবে রাজনীতিতে এসে দলের হাল ধরছেন সে ভাবে সাদ এরশাদ রাজনীতিতে এসে জাপার হাল ধরবে কীনা? জবাবে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেন, সাদ এরশাদ রাজনীতিতে আসবেনা। সাদ রাজনীতি করতে আগ্রহী নয়। মহাজোট ছাড়া বিষয় জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান শিগগিরই মহাজোট ছাড়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দেয়া হবে।

সুত্র জানায়, আগামী নির্বাচনকে জীবনের শেষ নির্বাচন হিসেবে বেছে নিয়ে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ১০০ টি আসনের টার্গেট নিয়ে শক্ত ভাবে নির্বাচনী প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ৩০০ আসনের মধ্যে ২০০ আসনে দলীয় প্রার্থীদের তালিকা চুড়ান্ত করেছেন। বাকি দুই শত আসনের প্রার্থীর কার্যক্রম যাচ্ছাই বাছাই করার কার্যক্রম অব্যহত রেখেছেন। সুত্র মতে ২০০ আসনের অধিকাংশ আসন জোট কিংবা রাজনৈতিক তৃতীয় শক্তির প্লা¬াটফরমের শরিকদের জন্য রেখেছেন।
জাতীয়তাবাদী মুল্যবোধে বিশ্বসী রাজনৈতিক দলগুলো নিয়ে নির্বাচনী জোট কিংবা রাজনৈতিক তৃতীয় শক্তি প্লাাটফরম গঠন করার কার্যক্রম ইতিমধ্যে শেষ করেছেন। ছোট খাটো ওইসব দলগুলোকে ধরে রাখতে দলের নেতাদের সঙ্গে পৃথক ভাবে বৈঠক করার কার্যক্রম অব্যহত রেখেছেন তিনি।

জানা গেছে এই নির্বাচনী জোটে কিংবা রাজনৈতিক তৃতীয় শক্তির প্ল¬াটফরমে যারা রয়েছেন তাদের মধ্যে হেফজতে ইসলাম, ইসলামী শাসনতন্ত্র, নেজামী ইসলামী পার্টি, হাফেজি হুজুরের ইসলামী দলের একাংশ ও মরহুম সায়খুল হাদিস আমিনীর ইসলামী দল, জাসদের আ.স.ম আব্দুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগসহ বেশ কয়েকটি ছোট ছোট রাজনৈতিক দল রয়েছে। ওইসব দলের শীষ নেতাদের সঙ্গে পৃথক ভাবে কথা এবং ধরে রাখতে কৌশলী হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর আহমেদ, ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহামুদ।

এছাড়া জাপা শক্তিশালী করতে চলতি মাসের মধ্যে পার্টির বর্ধিত সভা প্রেসিডিয়াম সদস্য ও দলীয় সংসদ সদস্যদের নিয়ে যৌথবৈঠক এবং বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশ করার কথা রয়েছে। মুলত বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশ করার কর্মসুচি হচ্ছে জাপার অনানুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারনা। ওই সব সমাবেশে জাপার নির্বাচনী ইশতেহারের কিছু কিছু অংশ তুলে ধরবেন এবং দলীয় প্রাথীর নাম ঘোষনা করবেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।
সুত্রগুলো বলেছে, আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কী হবে না এই সংশয়টি নিশ্চিত ভাবে কেটে গেলেই অর্থাৎ নির্বাচনী সিডিউল ঘোষনা হলেই এরশাদের নেতৃত্বধীন রাজনৈতিক তৃতীয় শক্তি প্লাটফরম বা নির্বাচনী জোট প্রকাশ্যে আসবে।
এ প্রসংগে, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, নির্বাচন হবে কী হবেনা তা নিয়ে সবাই উৎকণ্ঠের মধ্যে রয়েছে। নির্বাচন হবেই এধরনের নিশ্চয়তা পেলেই রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রকাশ পাবে। রাজনৈতিক তৃতীয় প্লাটফরম বা নয়া জোট বলেন সবই প্রকাশ পাবে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful