Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০ :: ১১ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ৬ : ৫৫ পুর্বাহ্ন
Home / টপ নিউজ / দিনাজপুরে ছাত্রীর সাথে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

দিনাজপুরে ছাত্রীর সাথে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

zilla school teacher Toslimএস.এন.আকাশ, দিনাজপুর : দিনাজপুরে প্রাইভেট কোচিংয়ে এক ছাত্রীকে স্পেশাল নোটপত্র দেয়ার নাম করে ডেকে নিয়ে যৌন হয়রানির অভিযোগে পুলিশ দিনাজপুর জিলা স্কুলের সহকারী শিক্ষক মো: তসলিম উদ্দীনকে (৪৩) গ্রেফফতার করেছে। পরে দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়সিন্ধু তালুকদারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের উত্তেজনা কিছুটা প্রশমিত হওয়ার পর শিক তসলিম উদ্দীনকে কোতয়ালী থানা হাজতে আনা হয়।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় নির্যাতিত ছাত্রীর চাচার দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর জিলাস্কুলের সহকারী শিক্ষক তসলিম উদ্দীন মুন্সিপাড়াস্থ মৃত সালাম চৌধুরীর বাড়ি ভাড়া নিয়ে প্রাইভেট কোচিং সেন্টারে দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রীদের পড়াতেন। সেই কোচিংয়ে দিনাজপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণীর ছাত্রীরা প্রাইভেট পড়ে। ঈদের ছুটির পর প্রাইভেট শুরুর দিনক্ষণ জানার জন্য গত মঙ্গলবার ওই ছাত্রীকে মোবাইল ফোনে তিনি ডেকে দেন। পরদিন বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ওই ছাত্রী শিক্ষক তসলিমের কোচিং সেন্টারে যায়। শিক্ষক তসলিম ওই ছাত্রীকে পার্শ্ববর্তী ঘরে ডেকে নেন। ঈদের পর প্রথম সাক্ষাৎ হওয়ায় গুরুজন হিসেবে ওই ছাত্রী শিক্ষকের পা ছুয়ে সালাম করার উদ্যোগ নেয়ার সাথে সাথে শিক্ষক তসলিম তাকে জড়িয়ে ধরে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেন। ওই ছাত্রী নিজ বাড়িতে এসে কান্নাকাটি করতে থাকে এবং ওই প্রাইভেট সেন্টারে আর পড়তে যাবে না বলে অনীহা প্রকাশ করে। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে গতকাল দুপুরে শতশত ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবক মুন্সিপাড়াস্থ কোচিং সেন্টার ও বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রকাশ করে। পরিস্থিতি অবনতির দিকে গেলে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে শিক্ষক তসলিমকে আটক করে নিয়ে যায়।

কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল কাদের জিলানী জানান, অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের (২০০৩) ১০ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে দিনাজপুর জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহিন আকতার জানান, এই ঘটনার জন্য শিক্ষক তসলিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

অপরদিকে দিনাজপুর জিলা স্কুলের শিক্ষক তসলিমের পরিবারের দাবী তিনি দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রছাত্রীদের প্রাইভেট পড়ান সেটা ঠিক আছে। কিন্তু ছাত্রীকে নিয়ে শ্লীলতাহানী ঘটনাটি এটি ষড়যন্ত্র। কিছু মহল ঈশ্বার্নিত হয়ে এই ঘটনা ঘটাতে পারে বলেও দাবী করা হয়।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful