Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১ :: ৫ মাঘ ১৪২৭ :: সময়- ৯ : ০৭ পুর্বাহ্ন
Home / স্পোর্টস / নেইমার খেললেন, গোল করলেন, জেতালেন

নেইমার খেললেন, গোল করলেন, জেতালেন

 ডেস্ক: অভিষেকটা নিয়ে অধীর অপেক্ষা ছিল। সেটার সমাপ্তি হল যথার্থ উচ্চতা মেপেই। পিএসজির জার্সিতে অভিষেকে নেইমার উজ্জ্বলতা ছড়ালেন প্রত্যাশামতই। একটি গোল করলেন, সতীর্থকে দিয়ে করালেন, পিএসজিকে দারুণ এক জয় এনে দিলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে রোববার রাতে গুইনগ্যাম্পের মাঠ থেকে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছে প্যারিস জায়ান্ট পিএসজি। আত্মঘাতী গোলে লিড নেয়ার পর এডিনসন কাভানির মাধ্যমে ব্যবধান দ্বিগুণ করিয়েছেন নেইমার, শেষে নিজেই নাম লিখিয়েছেন স্কোরশিটে।

ম্যাচের বাঁশি বেজেছে মাত্র, দর্শকরা হয়ত নড়েচড়ে বসারই সময় পাননি, নেইমারের পায়ে বল। সেটিও প্রতিপক্ষের বক্সে থাকা অবস্থায়। প্রথম মিনিটে সেদফা ডি মারিয়ার ক্রসে বল পেয়ে ঠিকানা খুঁজে নেওয়া হয়নি নেইমারের। কিন্তু ম্যাচের বাকি অংশের পুরোটা জুড়ে থাকল স্বাগতিকদের রক্ষণে তার ভীতি ছড়ানো ফুটবলের ঝলক।

যার সুফল আসতে পারতো ৩৫ মিনিটের সময়। নেইমারের বানিয়ে দেওয়া বলে মাথা ছুঁইয়ে ক্রসবারে লাগিয়ে সেদফা হতাশ হন মার্কুইনোস। এক মিনিট পর কাভানির দূরপাল্লার শটে দেয়াল হয়ে দাঁড়ান স্বাগতিক গোলরক্ষক। পরে আরও কয়েকটি আক্রমণ শানিয়েও পিএসজিকে গোলশূন্য থেকেই মাঠ ছাড়তে হয় প্রথমার্ধে।

মধ্যবিরতির পর ফিরে আক্রমণের ধারটা ধরে রাখে পিএসজি। ম্যাচের ৫২ মিনিটে গুইনগ্যাম্পের জর্ডান ইকোকো ব্যাকপাস দিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়ালে এগিয়ে যায় অতিথিরা।

দশ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কাভানি। গোলটাতে সমান অবদান থাকল নেইমারের। ব্রাজিল তারকার রক্ষণচেরা নিখুঁত এক পাসে প্রতিপক্ষের জালমুখ খোলেন কাভানি।

পিএসজির জয়টা তখন সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছিল। কিন্তু কী যেন একটা না পাওয়ার আক্ষেপ ঘুরছিল গুইনগ্যাম্পের আকাশে-বাতাসে! নেইমারের অভিষেক গোলটা যে দেখা হয়নি তখনো! রেকর্ড ট্রান্সফারের মালিক হতাশ করেননি। ৬৭ মিনিটে একটি সুযোগ হাতছাড়ার পর ৮০ মিনিটে প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক দেয়াল হয়ে দাঁড়ালেন, নেইমার দমলেন না। ম্যাচের ৮২ মিনিটেই এল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ।

সেসময় প্রথম চেষ্টায় বলে-মাথার জাদু ঠিক মিলল না নেইমারের। পরে কাভানি যেন ধার শোধ করতে মরিয়া হলেন। বল ঠেলে দিলেন নেইমারের দিকে। ডান পায়ের আলতো টোকায় নেইমারও স্বাগতিক গোলরক্ষককে বোকা বানালেন। পূর্ণ হল ষোলোকলা।

রাতের অন্য ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মোনাকো ৪-১ গোলের বড় জয় পেয়েছে দিজোঁর বিপক্ষে। রাদামেল ফ্যালকাও অসাধারণ এক হ্যাটট্রিক তুলে নিয়েছেন। তবে মোনাকো এদিন সেরা খেলোয়াড় কাইলিয়ান এমবাপেকে মাঠে নামায়নি। তার পিএসজিতে আসার গুঞ্জনকে আরও বাড়িয়ে তুলেছে

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful