আর্কাইভ  শনিবার ● ২৭ নভেম্বর ২০২১ ● ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   শনিবার ● ২৭ নভেম্বর ২০২১

তিস্তা চরে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, অগ্নিসংযোগ; ১ শিশু নিহত

শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৩, বিকাল ০৬:৫৯

[caption id="attachment_17433" align="alignleft" width="300"] তিস্তার চর গ্রামে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত শিশু বিলকিছ[/caption]

ইনজামাম-উল-হকনির্ণয়, নীলফামারী ৯ নভেম্বর ॥ নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের তিস্তানদীর চর পূর্বখড়িবাড়ি গ্রামে শনিবার সকালে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় গ্রামের তফের উদ্দিনের মেয়ে বিলকিস আক্তার (৩) নিহত ও ৬ জন আহত হয়েছেন।আহতদের ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ডিমলা থানা পুলিশ নিহত শিশুর লাশ উদ্ধার করেছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ডিমলা উপজেলার টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের পূর্বখড়িবাড়ি গ্রামের মৃত আফছার আলীর ছেলে তফের উদ্দিন প্রায় ৭ বছর আগে একই গ্রামের আব্দুস সালামের ১৩ শতক জমি ক্রয় করে বসতভিটা স্থাপন ও সেই জমিতে ফসল আবাদ করে আসছে। তফের উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, একই গ্রামের মিয়ার উদ্দিনের ছেলে খায়রুল ইসলাম প্রায় তিন মাস ধরে ওই ১৩ শতক জমির মালিকানা দাবি করে আসছিল। এ নিয়ে টেপাখড়িবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সহ ইউপি সদস্যরা কয়েক দফা সালিশ বৈঠক করে। বৈঠকে খায়রুল ওই জমির মালিকানার কোন প্রমান দেখাতে পারেননি।

তিনি বলেন, শনিবার সকালে প্রতিপক্ষ খায়রুল ইসলাম (৫৫) তার ভাই নজরুল ইসলাম( ৩৫),জসমতসহ (৪৫) ২০/২২ জন লোক জোর করে ওই জমির ধান কাটতে আসেন। তাদের বাধা দিলে তারা হামলা চালায়। এ সময় তফের উদ্দিন (৪৫) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগম (৪০) আহত হন। এ সময় তফেরের পক্ষে প্রতিবেশী আব্দুল হক(৫৫) আমিনুল(৩৫) মোর্শেদা বেগম (৪৫) ও খায়রুলের ভাই খাতের আলী(৫৩) কথা বললে প্রতিপক্ষ খায়রুল ইসলামের লোকজন তাদের উপরও হামলা চালালে তারা আহত হন। এসময় হামলাকারীরা তফেরের মেয়ে বিলকিসকে (৩) মারডাং করে আছাড় দিলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। এ ছাড়া হামলাকারীরা তফেরের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে দুটি ঘর ও ঘরের আসবাবপত্র পুড়িয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় । টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম মুঠো ফোনে বলেন, বিষয়টি নিয়ে কয়েক দফায় বৈঠক করা হয়েছিল। উভয় পক্ষ সমঝোতায় আসতে পারেনি। উভয়ই জমির মালিকানার দাবী করায় বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। এরই মধ্যে শনিবার সকাল ৭টার দিকে খায়রুল তার লোকজন নিয়ে ওই জমিতে ধান কাটতে গেলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বিকেলে মুঠো ফোনে কথা বললে ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দিন বলেন,ওই গ্রামে একটি জমির মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দুটি পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। শনিবার সকালে ওই জমির ধানকাটাকে কেন্দ্র করে কয়েকজন আহত হয়েছেন। এবং একটি শিশু নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আমরা শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছি। ময়না তদন্তের জন্য আগামীকাল রবিবার জেলা মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন


Link copied