Templates by BIGtheme NET
আজ- বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০ :: ৭ কার্তিক ১৪২৭ :: সময়- ১১ : ৩১ অপরাহ্ন
Home / পঞ্চগড় / পঞ্চগড়ে ১১৫.৫ মিলি বৃষ্টি রেকর্ড, জনজীবন ব্যহত

পঞ্চগড়ে ১১৫.৫ মিলি বৃষ্টি রেকর্ড, জনজীবন ব্যহত

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: দেশের প্রান্তিক জেলা পঞ্চগড়ের পাঁচ উপজেলায় আবার সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। ফলে চরম বিপাকে পড়েছে এ জেলার খেটে খাওয়া ও সাধারন মানুষেরা৷ অন্যদিকে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনের ব্যবস্থা না থাকায় পানিববন্দী জীবনযাপন করছে পঞ্চগড় পৌরসভা কয়েকটি এলাকার মানুষ। আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে সর্বোচ্চ ১১৫ দশমিক ৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে জেলার ৫ উপজেলায় মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়েছে এবং তা এখনও অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে সরেজমিনে দেখা গেছে সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টিপাত হওয়ার ফলে চরম বিপাকে দিন পার করছে এ জেলার খেটে খাওয়া ও সাধারন মানুষেরা। বৃষ্টির কারণে অনেকে কাজে যেতে পারছে না আর যারা কাজের সন্ধানে বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে বের হয়েছেন তারাও কাজ না পেয়ে বাড়ির পথে রওয়ানা হয়েছেন। অন্যদিকে মুষলধারে বৃষ্টি ও ভারী বর্ষণে কারনে পঞ্চগড় পৌরসভার কামাতপাড়া,ডোকরোপাড়া ও ইসলামবাগ সহ কয়েকটি এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে ফলে শত শত পরিবার পানিবন্দি জীবনযাপন করছে। শুধু তাই নয় পঞ্চগড় পৌরসভা কতৃক পানি নিষ্কাশনের জন্য তৈরী ড্রেনের অবস্থা নাজেহাল ও পানি নিষ্কাশনে ব্যর্থ হওয়ায় পানি নিষ্কাশন না হয় না, যার ফলে শুধু মানুষের বসতবাড়ি নয় পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল, পানি উন্নয়ন বোর্ড,খাদ্যগুদাম সহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি অফিসের ভবনের সামনে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা।

এবিষয়ে কথা হয় পঞ্চগড় পৌরসভার বাসিন্দা প্রদীব রায়ের সাথে তিনি জানান,পঞ্চগড় পৌরসভার ড্রেনের সমস্যার কারণে পানি যেতে পারে না ফলে আমাদের এলাকায় শহরের সকল পানি আসে জমাট হয় ফলে আমরা শতশত পরিবার আজ পানিবন্দী জীবনযাপন করছি পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলদের বার বার বলার পরও কাজে আসছে না।

এবিষয়ে পঞ্চগড় পৌরসভার মেয়র তৌহিদুল ইসলাম জানান,নগর উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে বড় কয়েকটি ড্রেন নির্মাণের লাজ শেষ হয়েছে। পৌরসভার কিছু মানুষ তাদের বাড়ির ময়লা আর্বজনা ড্রেনে ফেলছেন আমাদের পরিছন্ন কর্মীরা ড্রেনগুলো পরিস্কার করেছে৷ তারপরও ড্রেনের ময়লা, পানি নিয়ন্ত্রণ করার কঠিন হচ্ছে৷ জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধানের জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেরে ১১৫ দশমিক ৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রের্কড করা হয়েছে। তবে বৃষ্টিপাত আরও দুই/একদিন থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful