আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১ ● ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
আর্কাইভ   মঙ্গলবার ● ৩০ নভেম্বর ২০২১

রংপুরে অবরোধের কারণে আটকে গেছে ৬০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ

মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৩, রাত ০৯:২০

রংপুর, স্টাফ রিপোর্টার : প্রধান বিরোধী দল এবং ১৮ দলীয় জোটের আন্দোলনের অংশ হিসেবে গত এক মাসে পাঁচ বারের মতো পালিত হয়েছে অবরোধ। এই সব অবরোধ ও হরতাল কর্মসূচীর ফলে পরিবহন সংকট ও ভাড়া বাড়ার কারণে রংপুরে রড ও সিমেন্টের দাম বেপরোয়া হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু রডই নয় প্রতিটি নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে অস্বাভাবিক হারে। গত এক মাসে রডের দাম টনে ২ থেকে ৩ হাজার ও সিমেন্ট প্রতি বস্তায় ১০০ থেকে ১২৫ টাকা বেড়েছে।

ঠিকাদাররা বলছেন, বাজার স্বাভাবিক না হলে চড়া মূল্যে নির্মাণ সামগ্রী কিনে কাজ করা সম্ভব নয়। আর সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা বলছেন, ঠিকাদাররা কাজ বন্ধ করে দেওয়ায় নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করা যাবে না।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, বর্তমানে রংপুরের আট উপজেলায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি), সড়ক ও জনপদ বিভাগ, গণপূর্ত, ফ্যাসিলিটিজ, জেলা পরিষদ, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সিএমএমইউসহ সরকারের বিভিন্ন দফতরের অধীনে ৬০০ কোটি টাকার উন্নয়নকাজ শুরু হয়। এসব কাজের মধ্যে রয়েছে সেতু, কালভার্ট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সরকারি স্থাপনা নির্মাণ।

রংপুরের রড-সিমেন্টের পাইকারি বিক্রেতা কাজী মোহাম্মদ জুননুন বলেন, অবরোধ ও হরতালের কারণে পরিবহন ভাড়া বেড়েছে তিনগুণ। ঢাকা থেকে রড ও সিমেন্ট আনতে আগে ট্রাক ভাড়া যেখানে ছিল সর্বোচ্চ ৯ হাজার টাকা, এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৪ হাজারে। চট্টগ্রামের ভাড়া ২২ হাজার থেকে বেড়ে হয়েছে ৫৫ হাজার টাকা।

বিশিষ্ট ঠিকাদার আক্তারুজ্জামান মওলা জানান, নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করা নিয়ে এখন আমরা শঙ্কিত। দ্রুতই যদি বাজার স্বাভাবিক না হয় তাহলে এই শঙ্কা বাস্তবতায় পরিণত হবে।

মন্তব্য করুন


Link copied