Templates by BIGtheme NET
আজ- মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ::৬ আশ্বিন ১৪২৮ :: সময়- ৪ : ৩২ অপরাহ্ন
Home / রংপুর / অচিরেই বদলে যাবে উত্তরবঙ্গ-রংপুরে বাণিজ্যমন্ত্রী

অচিরেই বদলে যাবে উত্তরবঙ্গ-রংপুরে বাণিজ্যমন্ত্রী

মমিনুল ইসলাম রিপন: উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় উত্তরবঙ্গ আর পিছিয়ে নেই। উত্তরবঙ্গের দিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দৃষ্টি আছে। অচিরেই সবকিছু বদলে যাবে। চিলমারী, রৌমারী, রাজিবপুরসহ পাঁচটি পয়েন্টে স্থলবন্দর করা হবে। যেখানে ভারত থেকে কেউ আসলে সেখানেই চেকিং ও কাস্টমস হৃবে। এতে ওইসব অঞ্চলের অর্থনীতি বদলে যাবে বলে। উত্তরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ মোচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করছেন।
বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুরে রংপুরে জেলা আড়তদার মালিক সমিতির সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বাণিজ্যমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা টিপু মুনশি এ কথা জানান।
তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের সাথে আলোচনা অনেক দূর অগ্রসর বলে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তিস্তা নদী নিয়ে সরকার কাজ শুরু করেছে। মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে নদীর দুইপাড়ে শিল্প নগরী গড়ে তোলা হবে। এজন্য চীনকে সাড়ে আট হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে আলোচনা ইতোমধ্যে অনেক দূর এগিয়েছে। আশা করছি, প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এই অঞ্চলের অর্থনীতি বদলে যাবে।
টিপু মুনশি আরো বলেন, তিস্তা খননের সময় দুইপাড়ে ওঠা বিপুল পরিমাণ বালুর ব্যবহার নিয়ে আমরা ভাবছি। ওই বালু দিয়ে ইটের বদলে বালি-সিমেন্ট মিশ্রিত কংক্রিটের ইট তৈরি করা যায় কিনা সেটিও ভেবে দেখা হচ্ছে। সেই জন্য তিস্তার বালু পরীক্ষা করা হবে। এতে দেশে কংক্রিটের ইট নির্মাণ শিল্পের প্রসার ঘটবে।
এসময় তিস্তার মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের দাবি নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির সাথে সাক্ষাত করেন তিস্তা বাঁচাও নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদ নেতারা। তারা মন্ত্রীর মাধ্যমে তিস্তা নদী ব্যবস্থাপনা ও পুনরুদ্ধার প্রকল্প শীর্ষক মহাপরিকল্পনার কাজ দ্রুত শুরুর দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি হস্তান্তর করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন- তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদ সভাপতি নজরুল ইসলাম হক্কানী, সাধারণ সম্পাদক শফিয়ার রহমান, স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ও বেরোবির শিক্ষক ড. তুহিন ওয়াদুদ প্রমুখ।
এর আগে আড়তদার মালিক সমিতির সভাপতি তবিবর রহমানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল বাণিজ্যমন্ত্রীর সাথে মতবিনিময়ে অংশ নেন। এসময় আলু ব্যবসায়ী, আড়তদার ও চাষিদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনে তা সমাধানে তিনি আশ্বাস দেন।
টিপু মুনশি বলেন, হিমাগারে আলু সংরক্ষণের মূল্য বৃদ্ধির বিষয়টি সমন্বয় করার জন্য ডিসিদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। প্রতি বছর আলুর সংরক্ষণ মূল্য বাড়ানোর প্রবণতা দেখা যায়। বছরের শুরুতেই এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে দুই পক্ষকেই। যেহেতু শুরুতেই দাম বৃদ্ধির বিষয়টি উভয়পক্ষই মেনে নিয়ে শুরু করেন। সে কারণে মাঝখানে এসে এ ব্যাপারে কথা বলায় জটিলতা তৈরি হয়। তারপরও ডিসিদের এ ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়ে রাখা হয়েছে। তারা উভয়পক্ষকে নিয়ে ভাড়া সমন্বয় করবেন।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful