Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ::৫ আশ্বিন ১৪২৮ :: সময়- ৪ : ৪৭ অপরাহ্ন
Home / নীলফামারী / নানান অজুহাত॥ জেল জরিমানা করেও নীলফামারীতে থামানো যাচ্ছেনা বাহিরে ঘুরাফেরা

নানান অজুহাত॥ জেল জরিমানা করেও নীলফামারীতে থামানো যাচ্ছেনা বাহিরে ঘুরাফেরা

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউল বাড়ানো হয়েছে আরো সাতদিন। আগামী ১৪ তারিখ পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকবে। কঠোর লকডাউনে গত ১ জুলাই থেকে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, সেনাবাহিনী, বিজিবি এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগন সার্বণিক মাঠে।
কিন্তু এতে হচ্ছে না কোনো লাভ। মামলা এবং জেল জরিমানা করেও থামানো যাচ্ছেনা কিছু ব্যবসায়ী সহ সাধারণ মানুষজনকে। প্রশাসনের এই কঠিন নজরদারিকে উপো করে নানা অজুহাতে বাইরে বের হচ্ছে সাধারণ মানুষ। এতে করোনার সংক্রমণও ছড়িয়ে পড়ছে। বাহিরে বের হয়ে বাড়িতে ফিরে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে দিচ্ছে বাসা-বাড়ির শিশু ও বয়স্কদের মাঝে। জ্বর-সর্দি-কাশি নিয়ে নমুনা পরীক্ষা দিলেই আসছে করোনা পজেটিভ।
গত কয়েকদিন ধরে জেলা ও উপজেলা শহরের বিভিন্ন স্থানে দেখা গেছে,একদিকে প্রশাসন সাধারণ মানুষকে ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। অন্যদিকে বিনা কারণেই মানুষজন রাস্তায় হাঁটা চলা করছেন। এসব সাধারণ জনগনের প্রশাসনকে দেখলেই তারা চোর-পুলিশ খেলায় মেতে গা ঢাকা দিয়ে নিজেদেরকে রা করেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, হাসপাতালে রোগী ভর্তি কিংবা তাদের পরিবারের মানুষ অসুস্থ এমন মিথ্যা অজুহাতে শহরে বের হচ্ছেন। এমনকি ডাক্তারের ইস্যু করা পুরাতন প্রেসক্রিপসন পকেটে রেখে স্বাধীনভাবে ঘুরছে হাট-বাজারে।
ডোমার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম জানান, ডোমার পৌরসভা ও অন্যান্য বাজারে লকডাউনের বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের দায়ে ৫৫ মামলায় মোট ২ লাখ ৮২ হাজার ৫শ টাকা অর্থদন্ড করেছি। তারপরেও লকডাউনের মধ্যেও বাইকারদের ভ্রমণ বিলাসের কমতি নাই। ড্রাইভিং লাইসেন্স, হেলমেট কোনো কিছু না থাকলেও লকডাউনের মধ্যে তাদের একটু ঘুরতে বের না হলে যেন আর চলছে না। বিষয়টা এমন, বাইক যেহেতু আছেই লকডাউনটা কেমন চলছে একটু দেখে আসি! এমনকি ২০১৭-১৮ সালের প্রেসক্রিপসন নিয়ে ঘুরছেন কেউ কেউ।
আজ বৃহস্পতিবার(৮ জুলাই/২০২১) কঠোর লকডাউনের অষ্টম দিনে জেলায় ৩৪টি মামলায় ৫ লাখ ২৩ হাজার ৪শ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। রাত ৮টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জায়িদ ইমরুল মোজাক্কিন। তিনি জানান, সদরে ১০ মামলায় ৪ লাখ ৪১ হাজার, জলঢাকায় ৪ মামলায় ১ হাজার ৮শ, কিশোরীগঞ্জে ৫ মামলায় ৬ হাজার ৯শ ও সৈয়দপুরে ১৫ মামলায় ৭৩ হাজার ৭শ টাকা জরিমানা করা হয়।
জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মীর্জা মুরাদ হাসান বেগ জানান, লকডাউনের বিধিনিষেধ অমান্য কারায় ১ জুলাই থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত জেলার ছয় উপজেলায় ৫০৬ মামলায় ১২ লাখ ৪২ হাজার ৭৬০ টাকা জরিমানা আদায় ও ২০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ড- দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful