Templates by BIGtheme NET
আজ- সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১ ::৩ কার্তিক ১৪২৮ :: সময়- ৩ : ১৩ অপরাহ্ন
Home / দিনাজপুর / হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে পেঁয়াজের আমদানি, কমেছে দাম
https://www.uttorbangla.com/wp-content/uploads/PMBA-1.jpg

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে পেঁয়াজের আমদানি, কমেছে দাম

হিলি প্রতিনিধি: দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে বেড়েছে পেঁয়াজের আমদানি। আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী ও খুচরা বাজারে কমেছে আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম, দুই দিনের ব্যবধানে কেজিতে কমেছে ২ থেকে ৪ টাকা। আমদানি বাড়ার সাথে সাথে দাম কমেতে শুরু করেছে বলে জানালো ব্যবসায়ী আলমগীর।
এদিকে বন্দরে পেয়াজের দাম কমায় বিভিন্ন এলাকা থেকে পাইকাররা এসে ভিড় করছে পেযাজ কেনার জন্য। এদিকে পেয়াজ কাঁচা পণ্য হওয়ায় বন্দর থেকে দ্রুত ছাড়করণ করতে সবধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছেন বেসরকারী অপরাটের হিলি পানামা লিংক লিমিটেড কর্তৃপক্ষ।
হিলি স্থলবন্দর অভ্যন্তরে ও খুচরা বাজার ঘুরে জানা যায় ,বন্দর অভ্যন্তরে ভারত থেকে সারি সারি ভাবে প্রবেশ করছে পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক এবং পেঁয়াজ ক্রয়ের জন্য ভিড় জমাচ্ছেন পাইকাররা। অন্যদিকে আমদানি বেশির কারনে খুচরা বাজারে প্রকার ভেদে পেঁয়াজের দাম কেজিতে দুই থেকে চার টাকা করে কমেছে। এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে সাধারন ক্রেতাদের মাঝেও । চলতি সপ্তাহের গেলো শনিবার বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩০ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে,সেই পেঁয়াজ মঙ্গলবার বিক্রি হচ্ছে ২৮ টাকা কেজি দরে।
দাম কমার কারন হিসেবে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক বাবু জানান, দেশের বাজারে চাহিদা থাকায় এই বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানিটা বেড়েছে। আমদানি বাড়ার কারনে স্থানীয় বাজারে পণ্যটির সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় দাম কমেছে। কাঁচা পণ্যের নিয়মই এটি আমদানি বাড়লে দামও কমে। আমদানি বাড়লে বাজারে পণ্যটির দাম আরো কমে আসবে।
এদিকে হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতা শরিফ জানান, বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানি বেড়েছে যার কারনে আমরা সেখান থেকে কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারছি এবং কম দামে বিক্রি করছি। আমরা কম দামে কিনতে পারলে কম দামেই বিক্রি করে থাকি। দাম বাড়ানো সুযোগ আমাদের হাতে থাকে না। কথা হয় হিলি বাজারের রহমত ও রাজিব নামের দুইজন সাধারন ক্রেতা বলেন,আজকে আমরা হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসলাম । সেদিনের থেকে আজকে একটু পেঁয়াজের দামটি কাম। এরকম দাম কম হলে আমাদের জন্য একটু ভালো হয়।
হিলি পানামা পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক প্রতাব বলেন, এই বন্দরের আমদানিকৃত সকল পণ্য দ্রুত ছাড়করণে আমরা ব্যবসায়ীদের সবধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি,তবে পেঁয়াজ যেহেতু কাঁচা পণ্য হওয়ায় সেটি দ্রুত ছাড়করণ করে দেশের বাজারে ব্যবসায়ী সরবরাহ করতে পারে সে লক্ষ্যে তাদের সার্বিক সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে।
হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি সপ্তাহের প্রথম দিন শনিবার ভারত থেকে মাত্র ৬টি পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করলেও রবিবার,সোমবার ভারত থেকে ৬০টি পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাকে ১ হাজার ৭শ ৪৬ মেট্টিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে।

Social Media Sharing
https://www.uttorbangla.com/wp-content/uploads/Circular-MBAProfessional-Admission_9th-Batch-1.jpg

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful